বড় হারে সিরিজ খোয়াল বাংলাদেশ

তিন ম্যাচ সিরিজের দ্বিতীয় ওয়ানডেতে বাংলাদেশকে ৩ শ’ ২৭ রানের বিশাল লক্ষ্য দেয় ইংল্যান্ড। জবাবে ব্যাটিং বিপর্যয়ে ১শ’ ৯৪ রানে গুটিয়ে যায় স্বাগতিকরা। ১৩২ রানের বড় হারে সিরিজ খোয়াল বাংলাদেশ।

শুক্রবার মিরপুরে সিরিজের দ্বিতীয় ওয়ানডেতে বোলারদের পর ব্যাটাররাও দিয়েছেন ব্যর্থতার পরিচয়। এতে তিন ম্যাচ সিরিজ এক ওয়ানডে বাকি থাকতেই ২-০ ব্যবধানে জিতে নিয়েছে ইংল্যান্ড।

টস জিতে প্রথম ফিল্ডিং বেছে নিয়েছিলেন টাইগার অধিনায়ক তামিম ইকবাল। বাংলাদেশের বোলারদের রীতিমতো তুলোধুনো করলেন সফরকারীরা।

শুরুটা করেছিলেন ইংলিশ ওপেনার জেসন রয়। তার ঝোড়ো সেঞ্চুরির (১৩২) পর ব্যাট হাতে দাপট দেখালেন অধিনায়ক জস বাটলার (৭৬)। আর শেষ দিকে চড়াও হলেন মঈন আলি (৪২) ও স্যাম কারান (৩৩)। পঞ্চাশ ওভার শেষে ৭ উইকেট হারিয়ে ৩২৬ রানের বড় সংগ্রহ দাঁড় করায় ইংলিশরা।

রান তাড়া করতে নেমে প্রথম ওভারেই সাজঘরে ফিরেন লিটন দাস আর নাজমুল হোসেন শান্ত। স্যাম কারানের ওভারের চতুর্থ বলে লিটন (১ বলে ০) ব্যাকওয়ার্ড পয়েন্টে ক্যাচ দেন। এর পরের বলে শান্তও মারেন গোল্ডেন ডাক (১ বলে ০), উইকেটরক্ষক জস বাটলারকে দেন ক্যাচ।

৫ বলে ৪ করে মুশফিকুর রহিম স্যাম কারানকে তৃতীয় উইকেট উপহার দেন। ইংলিশ পেসার স্যাম কারানের তোপে ২.২ ওভার হতেই ৯ রানে ৩ উইকেট হারিয়ে বসে স্বাগতিকরা। দলের চরম বিপদের মুহূর্তে হাল ধরেছিলেন সাকিব আর তামিম। তাদের ১১১ বলে গড়া ৭৯ রানের লড়াকু জুটিটি ভেঙে যায় তামিম আউট হলে। ৬৫ বলে ৪ বাউন্ডারিতে ৩৫ করে তামিম হন মঈনের শিকার।

তামিম ইকবালের পর ফিফটি করে আউট হন সাকিবও। ১২২ রানে ৫ উইকেট হারায় বাংলাদেশ। তখনই বাংলাদেশের হারের পাল্লা ভারি হয়ে যায়। হারের ব্যবধান কমানোর মিশনে দাঁড়িয়ে সেট হয়েও ইনিংস বড় করতে পারেননি আফিফ হোসেন আর মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। আফিফ ২৩ আর মাহমুদউল্লাহ ৩২ করে হন আদিল রশিদের শিকার। রশিদের চতুর্থ উইকেট মেহেদি হাসান মিরাজ (৭)। শেষ পর্যন্ত ৪৪.৪ ওভারে ১৯৪ রানে থামে বাংলাদেশের ইনিংস।

ফম/এমএমএ/

স্পোর্টস ডেস্ক | ফোকাস মোহনা.কম