চাঁদপুর তিন উপজেলায় হুমায়ুন-হেলাল-মকবুল চেয়ারম্যান নির্বাচিত

চাঁদপুর : ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের দ্বিতীয় ধাপে চাঁদপুর সদর, হাজীগঞ্জ ও শাহরাস্তি উপজেলায় পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। নির্বাচনে সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছে ঘোড়া প্রতীক নিয়ে মো. হুমায়ুন কবির, হাজীগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আনারস প্রতীক নিয়ে হেলাল উদ্দিন মিয়াজী ও শাহরাস্তি উপজেলায় ঘোড়া প্রতীক নিয়ে মকবুল হোসেন পাটোয়ারী বেরসকারিভাবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন।

মঙ্গলবার (২১ মে) সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত তিন উপজেলার ২৮৭টি কেন্দ্রে ইভিএম পদ্ধতিতে টানা ভোট গ্রহন অনুষ্ঠিত হয়। এতে চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন ২৬জন প্রার্থী।

রাতে বেরসকারিভাবে নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণা করেন সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সাখাওয়াত জামিল সৈকত, হাজীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) তাপস শীল ও শাহরাস্তি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ইয়াসির ইকরাম।

প্রাপ্ত ফলাফলে জানাগেছে, চাঁদপুর সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ১৩৪টি ভোট কেন্দ্রের মধ্যে মো. হুমায়ুন কবির ৫০ হাজার ৪৯৫ পেয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি মো. আইয়ুব আলী পেয়েছেন ৩৫ হাজার ৩৫৩ এবং নুরুল ইসলাম দেওয়ান (কাপ-পিরিচ) পেয়েছেন ৬৮৭৯, রাকিব মাঝি (আনারস) পেয়েছেন ৯৭৬০ এবং মিজানুর রহমান (মোটর সাইকেল) ৪৯১৬ ভোট পেয়েছেন।

ভাইস চেয়ারম্যান পদে মো. নুরুল হায়াদার ৫১ হাজার ৪৮৪ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি আবুল বারাকাত মো. রেজওয়ান (চশম) প্রতীক পেয়েছেন ৪০ হাজার ৫৭৬ভোট। মো. হারুনুর রশিদ হাওলাদার (তালা) প্রতীক পেয়েছেন ১৫ হাজার ৮২ ভোট।

মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে রেবেকা সুলতানা (পদ্মাফুল) প্রতীক পেয়েছেন ৭৩হাজার ৪৪১ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার প্রতিদ্বন্দ্বি শিপ্রা দাস (ফুটবল) প্রতীক পেয়েছেন ৩৩ হাজার ৭২২ ভোট।

হাজীগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ৮৮টি ভোট কেন্দ্রের মধ্যে মো. হেলাল উদ্দিন ২৬ হাাজার ৫৮৮ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি মো. জসিম পেয়েছেন ২৫ হাজার ০৭০ ভোট এবং মো. আবু সুফিয়ান মজুমদার (ঘোড়া) প্রতীক পেয়েছেন ১হাজার ৩০ ভোট। ভাইস চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থী না থাকায় বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন কামরুজ্জামান সুমন।

অপর দিকে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে রাবেয়া আক্তার নির্বাচিত হয়েছেন। তিনি (প্রজাপতি) প্রতীকে ২৮ হাজার ৮৪ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ফুটবল প্রতীকের প্রার্থী রুবি আক্তার পেয়েছেন ২৪ হাজার ১৯৯ ভোট।

শাহরাস্তি উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ৬৫টি ভোট কেন্দ্রের মধ্যে মকবুল হোসেন পাটোয়ারী ৩২ হাজার ৬৭৯ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। তার প্রতিদ্বন্দ্বি মো. ওমর ফারুক পেয়েছেন ২৬ হাজার ০৯৮ ভোট।

ভাইস চেয়ারম্যান পদে মো. ইমদাদুল হক (চশমা) প্রতীকে ২২ হাজার ৮৫৯ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়ছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি তোফায়েল আহমেদ ইরান (উড়োজাহাজ) পেয়েছেন ১৯ হাজার ৬৬ ভোট। মো. ওমর ফারুক (টিউব ওয়েল) প্রতীক পেয়েছেন ১০ হাজার ৭৩৫, মো. ইব্রাহীম খলিল (মাইক) প্রতীক পেয়েছেন ৩ হাজার ৫১৮ ও মো. নুর আলম (তালা) প্রতীকে পেয়েছেন ২ হাজার ৬৬৭ ভোট।

মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে হাছিনা আক্তার (প্রজাপতি) প্রতীকে ২১ হাজার ১৩৯ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি কামরুন্নাহার (হাঁস) প্রতীক পেয়েছেন ১৫ হাজার ৯৬৭ ভোট। হনুফা আক্তার (ফুটবল) প্রতীক পেয়েছেন ১১ হাজার ১৯৯ ভোট, নাজমুন নাহার (কলস) প্রতীক পেয়েছেন ১০হাজার ১৭২ ভোট।
ফম/এমএমএ/

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | ফোকাস মোহনা.কম