হাওর পাড়ের গর্ব চৌধুরী আব্দুল্লাহ আল মামুন

চৌধুরী আব্দুল্লাহ আল মামুন।

এস ডি সুব্রত।। হাওর বললেই চোখের সামনে ভেসে উঠে বর্ষায় অথৈ পানি আর শুকনায় যেদিকে চোখ যায় ধান আর ধান । বর্ষায় হাওর জুড়ে পানি আর পানি । নৌকা ছাড়া যাতায়াতের তেমন কোন সুযোগ নেই। স্কুলের শিক্ষার্থীরাও নৌকা বেয়ে স্কুলে যেতো এক সময় । শুকনা মৌসুমে পায়ে হেঁটে শিক্ষার্থীসহ অন্যান্য মানুষকে যাতায়াত করতে হতো ।

হাওর অঞ্চলে প্রচলিত প্রবাদ আছে –“বর্ষায় নাও আর শুকনায় পাও । অবশ্য এখন চিত্র অনেকটা বদলেছে । সেই হাওরের প্রতিকূল পরিবেশের সাথে সংগ্রাম করে হাওর পাড়ে উঠে এসেছে বিভিন্ন সময়ে জ্ঞানী গুণী মানুষ নিজের মেধা ও অদম্য চেষ্টায় । সেরকম একজন হাওর রত্ন চৌধুরী আব্দুল্লাহ আল মামুন । হাওরের উত্তাল ঢেউ পাড়ি দিয়ে তীরে আসা এক সাহসী যোদ্ধা , আমাদের হাওর পাড়ের গর্ব চৌধুরী আব্দুল্লাহ আল মামুন। সারা দেশে রয়েছে যার কাজের সুনাম । র‌্যাবের ডিজি থেকে পুলিশের আইজিপি হচ্ছেনন‌ । চৌধুরী আব্দুল্লাহ আল মামুন । সততা ও দক্ষতার সাথে দায়িত্ব পালন করছেন সৎ ও মেধাবী এই অফিসার। হাসিখুশি আর প্রাণবন্ত মানুষ । হাওর পাড়ের কৃতি সন্তান সারা বাংলাদেশের গর্ব ।

চৌধুরী আবদুল্লাহ আল মামুন পুলিশে যোগ দিয়েছিলেন ১৯৮৯ সালের ২০ ডিসেম্বর। সুনামগঞ্জের শাল্লা উপজেলার শ্রীহাইল গ্রামে ১৯৬৪ সালের ১২ জানুয়ারি জন্ম তার চৌধুরী বাড়িতে । তার বাবা আব্দুল মান্নান চৌধুরী ছিলেন শাল্লা উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি । ছিলেন শাল্লা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান। । চৌধুরী আব্দুল্লাহ আল মামুন ১৯৮২ সালে বিসিএস (পুলিশ) ক্যাডারের ১৯৮৬ ব্যাচের কর্মকর্তা হিসেবে পুলিশের সহকারী সুপারিনটেনডেন্ট (এএসপি) হিসেবে যোগ দেন। পরে তিনি অতিরিক্ত আইজিপি পদে পদোন্নতি পান। এর আগে তিনি ঢাকা রেঞ্জের ডিআইজি ছিলেন। সবশেষে র‌্যাবের ডিজি হিসেবে কাজ করছেন। পদোন্নতি পাচ্ছেন পুলিশের আইজিপি হিসেবে । কর্মজীবনে আবদুল্লাহ আল মামুন পুলিশ সদরদপ্তর, মেট্রোপলিটন পুলিশ, আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন এবং বিভিন্ন জেলার বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ ইউনিটের দায়িত্ব পালন করেছেন। এছাড়া জাতিসংঘ শান্তি মিশনে কাজ করার মাধ্যমে তিনি বিশ্ব শান্তিরক্ষার জন্যও উজ্জ্বল অবদান রেখেছেন। তিনি ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সদর সার্কেল এএসপি, সিরাজগঞ্জের রায়গঞ্জ সার্কেল এএসপি, চাঁদপুরের হাজীগঞ্জ সার্কেল এএসপি, চাঁদপুরের অতিরিক্ত এসপি, ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের সহকারী কমিশনার, আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের এএসপি, এডিসি (ডিএমপি) হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। এছাড়া নীলফামারী জেলার সুপারিনটেনডেন্ট পুলিশ, ডিএমপির ডেপুটি কমিশনার , এআইজি (এস্টাবলিশমেন্ট) এবং পুলিশ সদরদপ্তরের এআইজি (গোপনীয়) হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। “সৎ, পরিশ্রম, ধৈর্য্য – সাফল্যের সর্বোচ্চ চূড়ায় অধিষ্ঠিত করে হাওর রত্ন চৌধুরী আব্দুল্লাহ আল মামুনকে।” আমরা গর্বিত। অভিনন্দন বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনীর মহাপরিচালক ( আইজিপি) আমাদের শাল্লা উপজেলার কৃতি সন্তান “চৌধুরী আব্দুল্লাহ আলমামুন” ভাইকে ।

বুধবার (১৪ সেপ্টেম্বর) স্বরাষ্ট মন্ত্রণালয়ের একটি সূত্র চৌধুরী আব্দুল্লাহ আল মামুন মহোদয়ের পদোন্নতির বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। বর্তমান আইজিপি বেনজীর আহমেদের চাকরির মেয়াদ শেষ হচ্ছে ৩০ সেপ্টেম্বর। এরপরই চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুন পুলিশ মহাপরিদর্শকের দায়িত্ব নেবেন।

তিনি চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সমাজবিজ্ঞান বিষয়ে স্নাতকসহ (সম্মান) স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করেছেন। এরপর বিসিএস অষ্টম ব্যাচে যোগ দেন চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুন। আগামী ১১ জানুয়ারি তার অবসরে যাওয়ার কথা। গত বছরের ১৮ অক্টোবর আবদুল্লাহ আল-মামুন গ্রেড-১ পদে পদোন্নতি লাভ করেন। পুলিশে অসামান্য অবদান ও অনন্য সেবাদানের স্বীকৃতিস্বরূপ তিনি বাংলাদেশ পুলিশ মেডেল (বিপিএম) ও প্রেসিডেন্ট পুলিশ মেডেল (পিপিএম) পদকে ভূষিত হয়েছেন।

উনার সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু কামনা করছি। বাংলাদেশ পুলিশের নবনিযুক্ত ৩১ তম মহাপরিদর্শক (আইজি) শ্রদ্ধাভাজন”চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুন” ভাই বাংলাদেশ পুলিশ ডিপার্টমেন্টের গর্ব,আমাদের ভাটির অহংকার,সততা ও নির্ভীকতায় এগিয়ে যান সাফল্যের সর্বোচ্চ চূড়ায় এই কামনা করি। জনসেবায় নিজেকে বিলিয়ে দেওয়া সৎ ও মেধাবী এই মানুষ চিরদিন থাকবেন মানুষের মনের মণিকোঠায়। তাঁর হাত ধরে সততা আর দক্ষতায় এগিয়ে যাবে বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনী ।

লেখক : কবি ও প্রাবন্ধিক, সুনামগঞ্জ ।
০১৭১৬৭৩৮৬৮৮ ।
sdsubrata2022@gmail.com

ফোকাস মোহনা.কম