ফেলে যাওয়া বৃদ্ধ অসহায় মায়ের পাশে ফ্রেন্ডস ক্লাব

কুমিল্লা : নাম পরিচয় বলতে না পারা বৃদ্ধাকে হাসপাতালে প্রেরণ ও চিকিৎসার ব্যবস্থা করলেন স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ফ্রেন্ডস ক্লাব। 
সুত্রে জানা যায়- আজ শনিবার বিকাল ৩টায় মহিলাটি (৬০) তিতাস উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করানো হয়। ফ্রেন্ডস ক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সাংবাদিক হালিম সৈকত,  ফ্রেন্ডস ক্লাবের প্রধান সমন্বয়ক মো: সবুজ মিয়া, সুহৃদ সদস্য
ইকবাল হোসেন বাবুল, ওয়াছেক মিয়া, অরুণ দাস, পলাশ সরকার, শামীম শান্ত সহ আরও কয়েকজন মিলে মহিলাটিকে হাসপাতালে প্রেরণের ব্যবস্থা করেন। তার সেবা করার জন্য আরও দুজন মহিলাকেও সাথে পাঠানো। ঔষধপত্র,  খাবারসহ যাবতীয় প্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের ব্যবস্থা করেন সংগঠনটি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে বিষয়টি দেখে ফ্রেন্ডস ক্লাবকে কিছু করার জন্য আহ্বান করেন, তিতাস উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ পারভেজ হোসেন সরকার। তিনি বলেন, আপনারা বৃদ্ধাকে হাসপাতালে নেওয়ার ব্যবস্থা করেন। যদি পরিবারের কোন খোঁজ পাওয়া না যায় তাহলে কোন বৃদ্ধাশ্রমে তাকে আশ্রয় দেওয়ার ব্যবস্থা করব। সহযোগিতার প্রয়োজন হলে করব। তিনি তিতাস উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ সরফরাজ হোসেন খানকে অবগত করলে তিনি সহযোগিতা করেন।
উল্লেখ্য ২৩ সেপ্টেম্বর শুক্রবার সকালে বৃদ্ধ মহিলাটিকে তিতাস উপজেলার মাছিমপুর খেলার মাঠে কে বা কারা ফেলে যায়। গতকাল রাতে মহিলাটি ওখানেই পড়ে ছিল।
পরিচয় জানার চেষ্টা করা হলে অস্পষ্ট গলায় মহিলাটি বলেন, আমার গায়ে গন্ধ আসে এই জন্য আমার মেয়ে আমাকে এখানে ফেলে যায়। মহিলাটির বয়স আনুমানিক ৬০ বছর হবে। যদি কেউ বৃদ্ধাকে চিনে থাকেন তাহলে তাকে তার পরিবারের কাছে পৌঁছে দেওয়ার জন্য আহ্বান জানানো হলো।
ফম/এমএমএ/

তাপস চন্দ্র সরকার | ফোকাস মোহনা.কম