সাগর থেকে বাড়ী ফিরছে ইলিশ শিকারী জেলেরা

সাগর থেকে আসা জেলেরা হরিনা ফেরিঘাটে ট্রলার থেকে নামছে। ছবি: ফোকাস মোহনা.কম

চাঁদপুর: গত ২০ মে থেকে ২৩ জুলাই থেকে পর্যন্ত ৬৫ দিন সাগরে মাছ আহরণ নিষিদ্ধ ছিল। এরপরেই উপকূলীয় অঞ্চলের জেলেরা সাগরে ছুটে যায় ইলিশ আহরণ করার জন্য। চাঁদপুরের মেঘনা উপকূলীয় এলাকার অনেক জেলে এ সময় ইলিশ আহরণ করেন। তারা প্রায় ৩ মাস ইলিশ আহরণ করেন সাগরে। এ সময়ের মধ্যে অনেক জেলে একাধিকবার বাড়িতে আসেন। প্রজনন মৌসুমে ইলিশ রক্ষায় বরাবরের মতো এবছরই আগামী ৭ থেকে ২৮ অক্টোবর ২২ দিন সারাদেশে এই মাছ শিকার বন্ধ থাকবে। যে কারণে সাগরে ইলিশ শিকারে যাওয়া চাঁদপুরের জেলেরা বাড়িতে ফিরতে শুরু করেছেন।

রবিবার (২ অক্টোবর) দুপুরে চাঁদপুর সদর উপজেলার হানারচর ইউনিয়নের হরিণা ফেরিঘাট এলাকায় দেখাগেছে সাগরে ইলিশ ধরতে যাওয়া জেলেরা বাড়ীতে ফিরেছেন।

একই ফিসিং ট্রলারে প্রায় ৩০ জন জেলে ঘাটে এসে নামলেন। তাদের সাথে পোষাকের ব্যাগ ও বাড়ীতে খাওয়ার জন্য মাছের বক্স। নৌকা থেকে একজন করে নামছেন জেলেরা। চোখে মুখে অনেকটা আনন্দ। ঘাটের ব্যবসায়ীদের সাথে অনেকেই কুশল বিনিময় করছেন।

এসব জেলেদের মধ্যে জেলে আব্দুছ ছোবহান বলেন, জাহাঙ্গীর মাঝি ও সুফিয়ান কোতওয়ালের দুটি ফিসিং ট্রলারে আমরা গত তিন মাস সাগরে ইলিশ শিকার করেছি। একটি ফিসিং ট্রলার সাগর এলাকায় রেখে এসেছি। গতকাল রাতে সাগর থেকে বাড়ীর উদ্দেশ্যে রওয়ানা হয়েছি। প্রায় ১১ ঘন্টা সময় লেগেছে হরিণা ফেরিঘাট আসতে। গত ৩ মাস প্রত্যেক জেলে প্রায় ২৫ হাজার টাকার মত পেয়েছি।

তিনি আরো বলেন, সাগরে গিয়ে মোটামোটি ইলিশ পেয়েছি। যে কারণে কষ্ট হলেও পরিবারের লোকদের ছেড়ে সাগরে থাকতে হয়েছে। বাড়ীতে থেকেও কোন কাজ নেই। আমাদের পদ্মা-মেঘনায় ইলিশ তেমন পাওয়া যায় না।
ফম/এমএমএ/

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | ফোকাস মোহনা.কম