তীব্র শীতে নাকাল শাহরাস্তির মানুষ

গত ২ দিনের শীতে জবুথবু হয়ে পড়েছে শাহরাস্তি উপজেলার মানুষ। এ সময় ফুটপাতে ভ্যানগাড়ি থেকে শীতের কাপড় কিনতে দেখা যায় অনেককে।

শাহরাস্তি (চাঁদপুর): শৈত্য প্রবাহে ও কনকনে হিমেল বাতাসে চাঁদপুরের শাহরাস্তিতে শীত জেঁকে বসেছে। এর প্রভাবে যান চলাচলে বিঘ্ন ও কর্মমুখী মানুষের জীবনযাত্রায় ব্যঘাত ঘটছে।

গত দু’দিন ধরেই হিমেল বাতাসে তীব্র শীত অনুভূত হওয়ায় মানুষের জীবনযাত্রা জুবুথবু হয়ে পড়েছে। দিনে সূর্য উঠলেও শীতের প্রকোপ কমছে না। সন্ধ্যা থেকে দুপুর পর্যন্ত কুয়াশায় ঢেকে থাকছে গোটা জনপদ। গরম কাপড়ের অভাবে শীতে কষ্ট ভোগ করছে দুস্থ ও অভাবী কর্মজীবী মানুষ। শীতের দাপটে সন্ধ্যায় পর হাট-বাজারসহ কর্মচঞ্চল এলাকা ফাঁকা হয়ে পড়ছে। গরম কাপড়ের অভাবে খড়কুটা জ্বালিয়ে শীত নিবারনের চেষ্টা করছেন নিম্নবিত্তরা। শীতের সাথে কনকনে বাতাসের কারণে প্রয়োজন ছাড়া বাড়ির বাইরে কেউ বের হচ্ছে না। শীতের কারণে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলো থাকছে ক্রেতাশূন্য। ঘন কুয়াশার কারণে দিনের বেলায় হেডলাইট জ্বালিয়ে যানবাহনকে সড়ক পথে চলাচল করতে হচ্ছে।

সিএনজি অটোচালক মনির বলেন, ঘন কুয়াশার কারণে গাড়ি নিয়ে রাস্তায় নামলেই আতঙ্কের মধ্যে পথ চলতে হচ্ছে। গাড়ির হেডলাইট জ্বালিয়েও সামনের দশ গজ দূরে কিছু দেখা যাচ্ছে না।

শীতের প্রভাবে সকালবেলা বিদ্যালয় ও মাদরাসায় যেতে বেশ বেগ পেতে হয় কোমলমতি শিশুদের। শিশু শ্রেনীর শিক্ষার্থী আবরার জানায়, খুব ঠান্ডা পড়ায় গত দু’দিন সে মাদরাসায় যায় নি।

এদিকে গোটা উপজেলায় দেখা দিয়েছে শীতজনিত রোগবালাই। উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ মোঃ নাসির উদ্দিন জানান, বৃদ্ধ ও শিশুরাই এ সময় বেশী আক্রান্ত হচ্ছে। তারা শীতের প্রভাবে সর্দি-কাশি ও শ্বাসকষ্টে আক্রান্ত হচ্ছে।

ফম/এমএমএ/

ফয়েজ আহমেদ | ফোকাস মোহনা.কম