সুপ্তসুর সঙ্গীত একাডেমির রবীন্দ্র জয়ন্তী উদযাপন

বিশ্ব কবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ১৬১তম জন্ম জয়ন্তী উপলক্ষে

চাঁদপুর: চাঁদপুরের প্রতিষ্ঠিত সঙ্গীত প্রতিষ্ঠান সুপ্তসুর সঙ্গীত একাডেমির আয়োজনে পালিত হয়েছে বিশ্ব কবি রবন্দ্রনাথ ঠাকুরের ১৬১তম জন্ম জয়ন্তী।

রবিবার (৮ মে) বিকালে সুপ্তসুর সঙ্গীত একাডেমির কার্যালয়ে কবি গুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের জন্মজয়ন্তী উদযাপনের লক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন সাহিত্য একাডেমির মহা পরিচালক বিশিষ্ট লেখক ও বরেন্য সাংবাদিক কাজী শাহাদাত।

এ সময় তিনি বলেন, আমাদের অস্তিত্বে মিশে আছেন রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর। তিনি বিশ্বের দরবারে বাঙালিকে মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে শিখিয়েছেন। রবীন্দ্রচর্চার মাধ্যমেই বাংলা সাহিত্য ও সংস্কৃতির সর্বোচ্চ বিকাশের পথ উন্মুক্ত হতে পারে। যুগের পর যুগ কবিগুরুর গান, কবিতা, সাহিত্য মানুষের মনে সাহস যোগায়, মনকে করে শান্ত।

তিনি আরো বলেন, বাঙালি জীবনের যত ভাবনা, বৈচিত্র্য তার পুরোটাই লেখনী, সুর আর কাব্যে তুলে ধরেছেন কবিগুরু। তার সাহিত্যকর্ম, সঙ্গীত, জীবনদর্শন, মানবতা, ভাবনা-সবকিছুই সত্যিকারের বাঙালি হতে অনুপ্রেরণা দেয়। কবি গুরুর অসাধারণ গান আমাদের জীবনবোধের অনুপ্রেরণা যোগায়, তার সব দার্শনিক চিন্তাসমৃদ্ধ প্রবন্ধ, সমাজ ও রাষ্ট্রনীতিসংলগ্ন গভীর জীবনবাদী চিন্তা আমাদের ভবিষ্যতের অগ্রযাত্রায় সহায়ক ভূমিকা পালন করে।

সুপ্তসুর সঙ্গীত একাডেমির সাধারণ সম্পাদক শরীফ চৌধুরীর সভাপতিত্বে আরো উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের কর্মকর্তা সূফি খায়রুল আলম খোকন, কন্ঠ শিল্পী রিতা পাল, তৃষ্ণা বনিক প্রমূখ।

পরে সুপ্তসুর সঙ্গীত একাডেমির শিল্পীরা রবীন্দ্র সঙ্গীত, কবিতা আবৃত্তি ও নৃত্য পরিবেশন করে। অংশ নেয় রিতা পাল, তৃষ্ণা বনিক, লিটন মজুমদার, অর্পণা দাস সম্পা, তৃষা পোদ্দার তৃনা, সিথী দাস লিউ, পৃথিবী দাস, পূর্ণতা প্রাপ্তি, কথা মজুমদার, কলি মজুমদার ও শরীফ চৌধুরী।
ফম/এমএমএ/

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | ফোকাস মোহনা.কম