প্রযুক্তির শক্তি, তারুণ্যের মেধায় এগিয়ে যাবে দেশ

নিউজ ডেস্ক: তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, প্রযুক্তির শক্তি ও তারুণ্যের মেধায় দেশ এগিয়ে যাবে। জননেত্রী শেখ হাসিনার রূপকল্প প্রযুক্তিনির্ভর ডিজিটাল বাংলাদেশ এখন বাস্তবতা। প্রযুক্তির শক্তি আর তারুণ্যের মেধায় দেশ এগিয়ে যাচ্ছে।

রবিবার (১৩ মার্চ) দুপুরে সিংড়া উপজেলা কোর্ট মাঠে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ সিংড়া উপজেলা, সিংড়া পৌর ও গোল-ই-আফরোজ সরকারি কলেজ শাখার বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘জননেত্রী শেখ হাসিনা তাঁর সততা, মেধা ও সাহসিকতা দিয়ে স্বল্পোন্নত দেশ থেকে বাংলাদেশকে উন্নয়নশীল দেশে পরিণত করেছেন। ১৩ বছরের পথপরিক্রমায় মধ্যম আয়ের দেশ থেকে আমরা এখন উন্নত দেশের অভিযাত্রী। উন্নত প্রযুক্তিনির্ভর ডিজিটাল বাংলাদেশে এখন মানুষের জীবনযাত্রা অনেক সহজ, সুন্দর আর নিরাপদ। ‘

তিনি বলেন, দেশে ১৩ কোটি মানুষ ইন্টারনেট ব্যবহার করছেন। ইন্টারনেটের ব্যবহার মূল্য কয়েক হাজার গুণে কমিয়ে আনার সুফল পাওয়া যাচ্ছে। ২০১০ সাল থেকে দেশে আট হাজার ডিজিটাল সেন্টারের মাধ্যমে দেশের প্রান্তিক জনগোষ্ঠীকে হাতের মুঠোয় ২০১টি নাগরিক সেবা প্রদান করা হচ্ছে। এর মধ্য দিয়ে নাগরিক সেবা গ্রহণের ক্ষেত্রে দীর্ঘসূত্রতা ও দুর্নীতি রোধ করা সম্ভব হয়েছে। এখন আর জমির পর্চা তুলতে জেলা সদরে ধরনা দিতে হয় না। বিশ্ববিদ্যালয়ে ঘুরে ঘুরে এখন আর ভর্তি ফরম পূরণ করতে ভোগান্তি পোহাতে হয় না।

জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা এবং সজীব ওয়াজেদ জয়ের পরিকল্পনায় ডিজিটাল বাংলাদেশের সকল প্ল্যাটফর্ম তৈরি করে দিয়েছে বর্তমান সরকার। এসব প্ল্যাটফর্ম ব্যবহার করে দেশে সাড়ে ছয় লাখ ফ্রিল্যান্সার তৈরি হয়েছে। বাড়িতে বসে এসব উদ্যোক্তা বৈদেশিক মুদ্রা উপার্জন করছেন। তথ্য-প্রযুক্তি খাতে রপ্তানি আয় এক বিলিয়ন ডলার ছাড়িয়ে গেছে। ২০২৫ সালের মধ্যে প্রযুক্তি খাতে রপ্তানি আয় পাঁচ বিলিয়ন ডলার ছাড়িয়ে যাবে বলে জানান প্রতিমন্ত্রী।

ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের উদ্দেশে প্রতিমন্ত্রী পলক বলেন, ২০৪১ সালে বাংলাদেশ হবে জ্ঞানভিত্তিক উদ্ভাবনী শক্তির নতুন এক দেশ। মাদক, জঙ্গিবাদ আর দুর্নীতি প্রতিরোধ করে দেশের প্রতিটি শিক্ষাঙ্গনকে সবুজ, পরিচ্ছন্ন আর নিরাপদ ক্যাম্পাস হিসেবে গড়ে তুলতে অগ্রণী ভূমিকা পালন করতে হবে।

সম্মেলনের উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সভাপতি আল-নাহিয়ান জয়। সিংড়া উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি খালিদ হাসানের সভাপতিত্বে সম্মেলনের প্রথম অধিবেশনে প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য। সম্মেলনে বিশেষ বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন নাটোর জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ফরহাদ বিন আজিজ ও সাধারণ সম্পাদক শরিফুল ইসলাম শাহিন।

সম্মেলনের দ্বিতীয় অধিবেশনে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ সিংড়া উপজেলা, সিংড়া পৌর ও গোল-ই-আফরোজ সরকারি কলেজ শাখার নতুন কার্যনির্বাহী পরিষদের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত করা হয়।

ফম/এমএমএ/

ফোকাস মোহনা.কম