কচুয়ায় ফাতেমা জামে মসজিদ ও এতিমখানা নির্মাণ কাজ উদ্বোধন

কচুয়া (চাঁদপুর): চাঁদপুরের কচুয়া উপজেলার বাতাবাড়িয়া নুরুল আজাদ কলেজ, মনপুরা জাফর আলী মেমোরিয়াল উচ্চ বিদ্যালয় ও বাতাবাড়িয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়সহ বহু শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রতিষ্ঠাতা ও বিশিষ্ট শিক্ষানুরাগী মরহুম নুরুল আজাদের  প্রতিষ্ঠিত স্বপ্নের বাস্তবায়নে  ফাতেমা জামে মসজিদ ও  হাফিজিয়া এতিমখানা মাদ্রাসার ৫তলা  ভবনের কাজ  উদ্বোধন করা হয়েছে।
বুধবার (১৮ মে) মনপুরা বাতাবাড়িয়া বাজার সংলগ্ন এ মসজিদটির শুভ উদ্বোধন করা হয়।
মসজিদের সভাপতি, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের অস্ট্রেলিয়া সিডনি শাখার সাধারণ সম্পাদক ও মরহুম নুরুল আজাদের সুযোগ্য সন্তান  ফয়সাল আজাদ রুবেলের সভাপ্রধানে ও মাওলানা শাহজাহানের সঞ্চালনায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন, উপজেলা চেয়ারম্যান মো. শাহজাহান শিশির।
বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি ও পৌর মেয়র নাজমুল আলম স্বপন,মনপুরা ইসলামিয়া ফাজিল মাদ্রাসার সাবেক অধ্যক্ষ, বিশিষ্ট আলেমে দ্বীন হযরত মাওলানা আব্দুল হাই, উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক শাজালাল প্রধান জালাল,নুরুল আজাদ কলেজের ভারপ্রাপ্ত মো. সেলিম মিয়া, মনপুরা বাতাবাড়িয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক গোলাম মোস্তফা, ইউপি চেয়ারম্যান নূরে-ই আলম রিহাত, বিশিষ্ট সমাজসেবক মোঃ আব্দুল হান্নান, মাওনালা আবু জাফর,  ইউপি সদস্য কাউছার আলম, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জহিরুল ইসলাম, সমাজসেবক হাজী মো. নুরুল আমিন মিয়াজী, বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হালিম মাষ্টার, সমাজ সেবক আবু হানিফ, দেলোয়ার হোসেন, নুর মোহাম্মদ, ইউনিয়ন আওয়ামী যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক আমির হোসেন, ছাত্রলীগের আহবায়ক রফিকুল ইসলাম রনি, যুগ্ম আহ্বায়ক রাসেল প্রধান, সাবেক সাধারণ সম্পাদক মেজবাহ, অনেকে।
 সভাপতি ফয়সাল আজাদ রুবেল  বক্তব্যে বলেন, আমার বাবা মরহুম নুরুল আজাদ অত্র এলাকার  শিক্ষার মান এগিয়ে নেয়ার জন্য ও  একটি সু-শিক্ষিত সমাজ গড়ার লক্ষ্যে আমার জন্মস্থানে বহু শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান প্রতিষ্ঠিত করেছেন। এ এলাকায় সাধারণ মানুষের চিন্তা করে  সামাজিক উন্নয়নমূলক কাজ করে গেছেন । বাবার একটি স্বপ্ন ছিল এই বাতাবাড়িয়া বাজারে একটি বড় মসজিদ নির্মাণ করবেন, বাবার স্বপ্ন আজকে আমি বাস্তবায়ন করতে পেরে আমি নিজেকে ধন্য মনে করি। আজ আমার বাবা যদি বেঁচে থাকতো এই ভবন উদ্বোধন করার সময় অনেক খুশি হতেন।  বাবা মৃত্যুবরণের  আগে আমাকে বলে গেছে, বাবার কথা অনুযায়ী আমার দাদীর নামে মসজিদটি প্রতিষ্ঠিত করেছি। পাঁচতলা ভবনে চতুর্থ ও পঞ্চম তলায় একটি এতিমখানা করবো।  এই মসজিদ ও এতিমখানা নির্মাণের কাজে  প্রতিষ্ঠানটি  নিজেদের মনে করে আপনার সবাই  বুদ্ধি ও পরামর্শ দিয়ে সার্বিক সহযোগিতা করবেন ‌।
এসময় স্থানীয় ওলামায়ে কেরামসহ এলাকার সর্বস্তরের জনসাধারণ উপস্থিত ছিলেন। পরে দেশ, জাতির মুক্তি ও মসজিদের সফলতা কামনা করে মুনাজাত পরিচালনা করেন, বিশিষ্ট আলেমে দ্বীন মাওলানা আব্দুল হাই।
ফম/এমএমএ/

ইসমাইল হোসেন বিপ্লব | ফোকাস মোহনা.কম