হাজীগঞ্জে ৪ মাসের শিশুর রহস্যজনক মৃত্যু!

হাজীগঞ্জ (চাঁদপুর): চাঁদপুরের হাজীগঞ্জে ইকরা নামের চার মাস বয়সি এক শিশুর রহস্যজনকভাবে মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে।

রোববার (২ অক্টোবর) দুপুরে পুলিশ ইকরার মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠায়। মারা যাওয়া শিশুটি হাজীগঞ্জ পৌরসভাধীন ৩নং ওয়ার্ড ধেররা গ্রামের কালা গাজীর বাড়ির ইসমাঈল হোসেনের ছোট মেয়ে।

এর আগে নানার বাড়ি কালচোঁ দক্ষিণ ইউনিয়নের রামপুর-নওহাটা গ্রামের খলিফা বাড়িতে শনিবার দিবাগত রাতের কোন এক সময়ে ইকরা মারা যায়। রোববার সকালে বিষয়টি জানতে পেরে বাবা ইসমাঈল হোসেন শিশুর মরদেহ নিজ বাড়িতে নিয়ে আসে। এ সময় শিশুটিকে তার মা স্বপ্না বেগম হত্যা করেছে বলে খবর ছড়িয়ে পড়ে।

শিশুর দাদা দুলাল হোসেন সংবাদকর্মীদের জানান, শনিবার বিকালে পারিবারিক কলহের জেরে তার মেয়ে, ছেলে, পুত্রবধুর মাঝে ঝগড়া-বিবাদ হয়। একপর্যায়ে এদিন সন্ধ্যায় শিশু ইকরাকে নিয়ে পুত্রবধু স্বপ্না বেগম রাগ করে তার বাবার বাড়িতে চলে যায়। যাওয়ার সময় তাদেরকে দেখে নেওয়ার হুমকি-ধমকি দেয়।

এরপর রোববার সকালে ইকরার মৃত্যুর খবর পান তারা। পরে ইকরার মরদেহ নানার বাড়ি থেকে বাবার বাড়িতে নিয়ে আসেন বাবা ইসমাঈল হোসেন। বিষয়টি জানাজানি হলে মা স্বপ্না বেগমের বিরুদ্ধে শিশু ইকরাকে মেরে ফেলার অভিযোগ উঠে। এ খবর চারদিকে ছড়িয়ে পড়লে শিশুটির বাবার বাড়িতে মানুষের ভীড় জমে। খবর পেয়ে ইকরার মরদেহ থানা হেফাজতে নিয়ে আসে পুলিশ।

এ বিষয়ে শিশুর মা স্বপ্না বেগমের সাথে কথা হলে তিনি জানান, ঘুমের মধ্যেই ইকরা মারা যায়।

বাবা ইসমাঈল হোসেন জানান, আমার মেয়ে ঘুমের ঘরে মারা গেছে। কারো বিরুদ্ধে আমার কোন অভিযোগ নেই।

হাজীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ জোবাইর সৈয়দ জানান, শিশু ইকরার মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য চাঁদপুর সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। পরবর্তীতে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ফম/এমএমএ/

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | ফোকাস মোহনা.কম