হাজীগঞ্জে মাদ্রাসা ছাত্রের মরদেহ উদ্ধার

হাজীগঞ্জ: হাজীগঞ্জে পড়া-লেখার জন্য চাপ দেয়ায় এক কিশোর আত্মহত্যা করেছে। সোমবার রাতে ওই কিশোর নিজ ঘরের আড়ার সাথে গামছা পেঁছিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে।

নিহত কিশোর তামিম হোসেন (১৪) বেলঘর গ্রামের মিজানুর রহমানের ছেলে। সে বেলঘর রাজাপুর মাদরাসার নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী।

হাজীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত) মো. আবদুর রশিদ জানান, খবর পেয়ে রাতে নিহত তামিমের মৃতদেহ থানায় নিয়ে আসা হয়। সকালে মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য চাঁদপুরে প্রেরণ করা হয়েছে। এ বিষয়ে হাজীগঞ্জ থানায় ইউডি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

নিহতের পারিবারিক সূত্রে জানাযায়, তামিম পড়া-লেখায় একজন ভালো ছাত্র। তার বাবা একজন সাধারণ কৃষক। তারা ২ ভাই ২ বোন। তামিমের এক বোন হাজীগঞ্জ মডেল সরকারি কলেজে ও এক ভাই ঢাকায় মেরিন একাডেমিতে লেখা পড়ে করে। সোমবার বেলঘর এলাকায় একটি মৃতদেহ গোসল করিয়ে বাড়ীতে আসলে তার মা পড়ে বসতে বলে। তার মায়ের সাথে পড়া-লেখার বিষয় নিয়ে কথা কাটা-কাটি হয়। এতেই ক্ষিপ্ত হয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে তামিম। এ ঘটনায় কিশোরের মা বাকরুদ্ধ হয়ে পড়ে।

ফম/এমএমএ/

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | ফোকাস মোহনা.কম