হাজীগঞ্জের শিক্ষানুরাগী মকবুল আহমেদ আখন্দের দাফন সম্পন্ন

অবিভক্ত ঢাকা সিটি কর্পোরেশনের সাবেক কমিশনার

হাজীগঞ্জ (চাঁদপুর):  চাঁদপুরের হাজীগঞ্জের বহু শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রতিষ্ঠাতা ও অবিভক্ত ঢাকা সিটি কর্পোরেশনের ৩২নং ওয়ার্ডের তিনবারের নির্বাচিত সাবেক কমিশনার আলহাজ মকবুল আহমেদ আখন্দ ইন্তেকাল গেছেন (ইন্নালিল্লাহে ওয়াৃ.রাজেউন)। রোববার (৩ জুলাই) বিকালে তিনি বার্ধক্যজনিত কারণে রাজধানীর নিজ বাসায় মারা যান।

নিহত আলহাজ মকবুল আহমেদ আখন্দ হাজীগঞ্জ উপজেলার রাজারগাঁও ইউনিয়নের আহমেদাবাদ (রামরা) গ্রামের আখন্দ বাড়ির বাসিন্দা। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল প্রায় ৮০ বছর। তিনি ৩ ছেলেসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

সোমবার (৪ জুলাই) বাদ জোহর বলাখাল মকবুল আহমেদ ডিগ্রি কলেজ প্রাঙ্গনে প্রথম নামাজে জানাযা ও পরবর্তীতে বাদ আছর গ্রামের বাড়ি হাজীগঞ্জে জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়।

উপস্থিত ছিলেন কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মিহির চক্রবর্তী।

কলেজের নামাজে জানাযায় অংশগ্রহন করেন-অধ্যাপক মোশাররফ হোসেন লিটন, মোস্তাফিজুর রহমান, এস.এম. লিয়াকত হোসেন, আবদুল্লাহ শাহীন, কাজী নাছির উদ্দিন, তাজুল ইসলাম, কমিটির সদস্য-মো. বিল্লাল মজুমদার, নিশাত মজুমদার, কামাল হাজী ও মো. মিজানুর রহমান। অন্যান্য মধ্যে ছিলেন-বিএনপি নেতা মোল্লা মাহমুদ হোসেন, জসিম উদ্দিন খান বাবুল, আবুল খায়ের মজুমদার ও শিশির মজুমদার প্রমূখ।

নামাজে জানাযায় ইমামতি করেন কলেজের ইসলামী শিক্ষা বিভাগের শিক্ষক অধ্যাপক নূর মোহাম্মদ।

আলহাজ মকবুল আহমেদ আখন্দ হাজীগঞ্জ পৌরসভাধীন বলাখাল মকবুল আহমেদ ডিগ্রি কলেজ, বাকিলা ইউনিয়নের শ্রীপুর মকবুল আহমেদ ইসমালিয়া দাখিল মাদ্রাসা, রাজারগাঁও ইউনিয়নের মেনাপুর পীর বাদশা মিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্রাবাসের প্রতিষ্ঠাতা এবং একই প্রতিষ্ঠানের পরিচালনা পর্ষদের সাবেক সভাপতি ছিলেন। এছাড়া আলহাজ মকবুল আহমেদ আখন্দ নিজ বাড়ির সামনে একটি এতিমখানা ও মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা ও পরিচালক ছিলেন। তিনি এ ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানগুলোর পৃষ্ঠপোষক ছিলেন। তিনি অবিভক্ত ঢাকা সিটি কর্পোরেশন ৩২ নং ওয়ার্ড তথা মতিঝিল এলাকা থেকে বিএনপির সমর্থনে ৩ বার কমিশনার পদে নির্বাচিত হয়েছিলেন।

তাঁর মৃত্যুতে চাঁদপুরের ও হাজীগঞ্জের রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, শিক্ষক নেতা, শিক্ষকমহল ও সর্বস্তরের মানুষ শোক প্রকাশ করেছেন এবং মরহুমের আত্মার মাগফেরাত কামনা করেছেন।

ফম/এমএমএ/

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | ফোকাস মোহনা.কম