সাউথ এশিয়ান ভলিবল গেমসে অংশ নিবেন চাঁদপুরের নারায়ন দেবনাথ

চাঁদপুর: চাঁদপুরের হাজীগঞ্জ উপজেলার নারায়ন দেবনাথ রাজন প্রায় ১০ বছর ধরে ভলিবল দলের হয়ে খেলে যাচ্ছেন। তিনি বাংলাদেশ জাতীয় ভলিবল দলের হয়ে অফসাইড পজিশনে খেলেন।

বুধবার (২৭ নভেম্বর) থেকে নেপালের কাডমুন্ডুতে শুরু হচ্ছে ১৩ তম সাউথ এশিয়ান গেমস। ২৭ নভেম্বর থেকে শুরু হওয়া এ গেমসটির পর্দা নামবে ১০ ডিসেম্বর। কিন্তু ভলিবল খেলা শেষ হয়ে যাবে ৪ ডিসেম্বর। এবারের এশিয়ান গেমসে অংশ নিচ্ছে ৬টি দেশ। দেশগুলো হলো- বাংলাদেশ, ভারত, পাকিস্তান, শ্রীংলঙ্কা, নেপাল ও মালদ্বীপ। কাল বা পরশু বাংলাদেশ ভলিবল দলের ১৭ সদস্যও দলটি রওয়ানা করবে। দলে রয়েছেন ১৪ জন খেলোয়াড়, দুই জন কোচ ও একজন ম্যানেজার।

ঊাংলাদেশ জাতীয় ভলিবল দলের জন্য যে দলটি এখন রয়েছে সেই দলটিতে বাংলাদেশ সেনাবাহীনী, নৌ-বাহিনী, বিজিবি, বিদ্যু উন্নয়ন বোর্ড, বিকেএসপি, বিমানবাহিনীর দায়িত্বরত সদস্যরা (খেলোয়াড়রা) আছেন।

দলের ম্যানেজারের দায়িত্ব পালন করছেন ভলিবল ফেডারেশনের সদস্য ইদ্রিস মিয়া। প্রধান কোচের দায়িত্বে রয়েছেন ইরানী বংশোদর ভলিবল কোচ আলী আরজী এবং সহকারী কোচের দায়িত্বে রয়েছেন বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ভলিবল কোচ সফিকুর রহমান রাসেল।

দলের খেলোয়াড়রা হলেন-মাসুদ মিলন, হরশিদ বিশ্বাস, ইসমাইল হোসেন পাভেল, মোঃ সাফিন, নারায়ন দেবনাথ রাজন, মোঃ কায়সার হামিদ, রাশেদ খান মেনন, রুহল আমিন হৃদয়, সুজন মিয়া, দীপশংকর প্রান্ত, মোঃ সিয়াম হোসেন নাহিদ, মোঃ আল-আমিন, মোঃ আলী (সোনা মিয়া) ও তানভীর।

বাংলাদেশ জাতীয় ভলিবল দলের হয়ে খেলায় অংশ নেয়া হাজীগঞ্জের নারায়ন দেবনাথের সাথে মুঠোফোনে এ ক্রীড়াপ্রতিবেদকের সাথে গত শনিবার রাতে কথা হয়।

নারায়ন জানান, আমাদের দলটি ২৫ নভেম্বর সকাল ১০টা ৪০ মিনিটে নেপালের উদ্দেশ্যে রওয়ানা করবে। আমি অনেক দিন ধরেই দলে রয়েছি। আমি যাতে এ গেমসে বাংলাদেশ দলের হয়ে ভালো পারফরমেন্স করতে পারি এজন্য সকালের দোয়া ও আর্শীবাদ কামনা করছি। আমরা যাতে এ গেমসের ভলিবল ইভেন্টের ফাইনাল খেলতে পারি। আর দলের সকল খেলোয়াড়রা যেনো তাদের ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে পারে।

হাজীগঞ্জ উপজেলার ধেররা ৩ নং ওয়ার্ডের দেবনাথ বাড়ির নারায়ন দেবনাথ রাজন। তার পিতা ছিলেন স্বর্গীয় মনোহরন দেবনাথ। স্কুল জীবন শেষ করেই তিনি কর্মজীবনে যোগদান করেন। অনেক লম্বা ও সুঠাম দেহের অধিকারি নারায়ন বর্তমানে বাংলাদেশ বিজিবিতে কর্মরত রয়েছেন। তিনি বিজি’বির খেলোয়াড় কোটায় খেলছেন নিয়মিতভাবে। ৩ ভাইয়ের মধ্যে সে সবার ছোট। ২০১৪ সাল থেকে তিনি নিয়মিতভাবে বাংলাদেশ জাতীয় দলের হয়ে খেলে যাচ্ছেন। রাজন জাতীয় ভলিবল দলে অফসাইড পজিশনে খেলে ক্রীড়ামোদী দর্শকদের মন জয় করে নিয়েছেন।

নারায়ন দেবনাথ রাজন জাতীয় ভলিবল দলের হয়ে শ্রীলংকা, ইরান, ভারত, মালদ্বীপ, কাজাগিস্তান সহ বেশ ক’টি দেশে জাতীয় দলের হয়ে খেলেন। মাঠে ক্রীড়ামোদী দর্শকদের ভালো ভলিবল খেলা উপহার দেয়ার কারনে ২০১৭ সালে বাংলাদেশ সরকারের প্রধানমন্ত্রী ও জননেত্রী শেখ হাসিনা ক্রীড়া ইভেন্টে হাজীগঞ্জের নারায়ন দেবনাথকে গোল্ড মেডেল পড়িয়ে দেন। তিনি কয়েকমাস আগে জাতীয় দলের হয়ে ইরানের রাজধানী তেহরানে মাসব্যাপী ভলিবলের প্রশিক্ষনে অংশ নেন। তিনি বিজেবিতে যোগ দেয়ার পর থেকেই ভলিবল খেলার সাথে জড়িত হয়ে পড়েন। তিনি যেনো ভলিবল খেলার মাধ্যমে দলকে জয়ীসহ নিজের খেলাটুকু উপহার দিতে পারেন এজন্য সকলের সহযোগিতাসহ দোয়ার প্রত্যাশা করেন।
ফম/এমএমএ/চৌইই/

চৌধুরী ইয়াছিন ইকরাম | ফোকাস মোহনা.কম