সাংবাদিকতায় চাঁদপুরের বর্ণাঢ্য ঐতিহ্য রয়েছে : ফরিদা ইয়াসমিন

চাঁদপুর: জাতীয় প্রেসক্লাব সভাপতি ফরিদা ইয়াসমিন বলেছেন, সাংবাদিকতায় চাঁদপুরের বর্ণাঢ্য ঐতিহ্য রয়েছে। জাতীয় প্রেসক্লাবের আগের দু’জন সভাপতির বাড়ী চাঁদপুরে। আমি ২৪ বছর দৈনিক ইত্তেফাক পত্রিকায় কাজ করছি। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানও এই পত্রিকা কাজ করেছেন। আমাদের শিক্ষামন্ত্রীর পিতাও এই পত্রিকায় কাজ করেছেন। সাংবাদিকতা পেশা হচ্ছে মানুষের জন্য এবং মানুষের জন্য কাজ করার পেশা। সাংবাদিকদের মানুষের কাছে প্রতিজ্ঞা রয়েছে। এই পেশায় আমাদেরকে দায়িত্বশীলতা নিয়ে কাজ করতে হবে। এর জন্য আমাদের প্রথম দায়িত্ব হবে সততা ও অঙ্গীকার।

মঙ্গলবার (১৭ জানুয়ারি) রাতে প্রেসক্লাবের সামনে পৌর উদ্যানে চাঁদপুর প্রেসক্লাবের কার্যকরি কমিটির অভিষেক অনুষ্ঠানে সংবর্ধিত অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, এটি জাতীয় সংসদ নির্বাচনের বছর হিসেবে খুবই গুরুত্বপূর্ণ। বাংলাদেশের উন্নয়ন এখন বিশে^র কাছে বিস্ময়। আমি একজন নারী হিসেবে কিভাবে নেতৃত্ব দিচ্ছি, সেটি হচ্ছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাহস থেকে সাহস নিয়ে। এভাবে আরো যারা নারী আছেন তাদের কাছ থেকে সাহস নিয়ে। সংক্ষিপ্তভাবে সফলতা অর্জন করা যায় না। এর জন্য অনেক কষ্ট করতে হয়। যেসব নারীরা সাংবাদিকতা কিংবা অন্য পেশায় আসতে চান, তাদের ইচ্ছা শক্তিটাই হচ্ছে বড়। আমরা দেশের সকল প্রেসক্লাবকে এক ছাতার নীচে এনে কাজ করে এগিয়ে যেতে চাই।

প্রেসক্লাব সভাপতি এএইচএম আহসান উল্লাহ’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন পুলিশ সুপার মো. মিলন মাহমুদ, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব ওচমান গণি পাটওয়ারী, চাঁদপুর পৌরসভার মেয়র মো. জিল্লুর রহমান, চাঁদপুর সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম নাজিম দেওয়ান, জেলা আওয়ামী লীগ সহ-সভাপতি ইউসুফ গাজী, ডাঃ জে আর ওয়াদুদ টিপু, সাংগঠনিক সম্পাদক তাফাজ্জল হোসেন এসডু পাটওয়ারী প্রমূখ।

সংবর্ধিত অতিথির বক্তব্য রাখেন জাতীয় প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক শ্যামল দত্ত। এছাড়া বিশেষ সংবর্ধিত অতিথির বক্তব্য রাখেন সিআইপি জয়নাল আবেদিন মজুমদার।

ফম/এমএমএ/

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | ফোকাস মোহনা.কম