সরকার হিন্দু মুসলমান সকলের জান-মালের নিরাপত্তা দিতে ব্যর্থ হয়েছে: ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী

চাঁদপুর : আমাদের গোয়েন্দা বাহিনী (বাংলাদেশের) ভারতীয় গোয়েন্দা বাহিনীর পদস্থ কর্মকর্তা বলে মন্তব্য করেছেন ভাসানী অনুসারী পরিষদের চেয়ারম্যান ও গণস্বাস্থ্য কেন্দের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী।

রবিবার (১৭ অক্টোবর) বেলা ১১ টায় চাঁদপুর জেলার হাজীগঞ্জ পৌরসভায় (গত ১৩ অক্টোবর রাতে পুলিশ-জনতা সংঘর্ষের ঘটনায় পুলিশের গুলিতে ৪ জন নিহত) ঘটে যাওয়া উদ্ভুত পরিস্থিতি সরজমিনে পরিদর্শন শেষে তিনি স্থানীয় সাংবাদিকদের সাথে একথা বলেন।

সরকার হিন্দু মুসলমান সকলের জান-মালের নিরাপত্তা দিতে ব্যর্থ হয়েছে। এর একমাত্র কারণ দেশে গণতন্ত্র নেই। তাই সরকার দ্রুত পদত্যাগ করে জাতীয় সরকার গঠন করে গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনার দাবী জানান তিনি।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালকে ঘটনাস্থল পরিদর্শনের আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, ‘আপনি ক্ষতিগ্রস্তদের বাড়িতে যান। প্রত্যেক মসজিদের ইমামদের হুকুম করুন, তারা যেন প্রতি ওয়াক্ত নামাজের সময় বলেন- হিন্দু-মুসলমান ভাই ভাই।’ এ দেশ আমার আপনার সকলের। এখানে যেসব হিন্দু নির্যাতিত হয়েছে তারা আমার ভাই-বোন। যারা নিহত হয়েছে তারাও আমাদের পরিবারের সদস্য।

তিনি বলেন, সরকার ক্ষমতায় টিকে থাকার জন্য জামায়াত শিবিরকে দিয়ে হিন্দুদের মন্দিরে হামলা চালিয়েছে। যতোগুলো মন্দির ভেঙেছে সরকার সবগুলো মন্দিরের ক্ষতিপূরণ দিতে হবে।

তিনি বলেন, সরকার বিভিন্ন মাদরাসায় যে, ৫ হাজার কোটি টাকার অনুদান দিয়েছে সেখানেই মৌলবাদের বীজ রোপন করা হয়েছে। এ ভুলগুলো সরকারকে শুধরাতে হবে।

সর্বশেষ উত্তেজনাপূর্বক বিষয়টি পুলিশ শক্ত হাতে দমন করায় তিনি পুলিশ প্রশাসন ও স্থানীয় সংবাদকর্মীদের ধন্যবাদ জানান।

ভাসানী অনুসারী পরিষদের মহাসচিব শেখ রফিকুল ইসলাম বাবলু বলেন, সরকার পতনের জন্য এ দেশে একটি গণঅভ্যুত্থান ঘটানোর চেষ্টা করছি আমরা। ঠিক সেই সময় মানুষের দৃষ্টিকোনকে অন্য দিক সরাতে সরকার উদ্দেশ্য প্রণোদিতভাবে হেফাজাত-জামায়াত-শিবিরকে মাঠে নামিয়ে মন্দিরে হামলা করিয়েছে।

এ সময় অন্যান্যেও মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রেস উপদেষ্টা জাহাঙ্গীর আলম মিন্টু, ৬৯‘ শহীদ আসাদের ছোট ভাই ডাঃ নুরুজ্জামান, হাবিবুর রহমান রিজু, ভাসানী অনুসারী পরিষদের সদস্য ব্যারিস্টার সাদিয়া আরমান, হাসিবুদ্দিন হোসেন, জাতীয় নির্বাহী কমিটির রাজনৈতিক সমন্বয়ক ফরিদুল হক, সাংগঠনিক সমন্বয়ক ইমরান ইমন, অর্থ সমন্বয়ক দিদারুল ভূঁইয়া, সদস্য সারোয়ার তুষার, গোলাম মোস্তফা, বাংলাদেশ ছাত্র ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি ভাসানী অনুসারী পরিষদের ছাত্র নেতা ইসমাইল হোসেন সম্রাট প্রমূখ।
ফম/এমএমএ/

মহিউদ্দিন আল আজাদ | ফোকাস মোহনা.কম