শোক দিবসে চাঁদপুর সরকারি মহিলা কলেজে আলোচনা সভা

চাঁদপুর: সোমবার জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর ৪৭তম শাহাদত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস-২০২২ উপলক্ষ্যে চাঁদপুর সরকারি মহিলা কলেজে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল এর আয়োজন করা হয়। কলেজের সাহিত্য ও সংস্কৃতি কমিটির আহ্বায়ক ড. মো: মাসুদ হোসেন এর সভাপতিত্বে এবং সমাজকর্ম বিভাগের প্রভাষক আলআমিন এর সঞ্চালনায় উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর মো: মাসুদুর রহমান। এছাড়াও আরো বক্তব্য রাখেন কলেজ উপাধ্যক্ষ প্রফেসর আবুল খায়ের খান, শিক্ষক পরিষদের সম্পাদক মোহাম্মদ ফিরোজ আলম চৌধুরী, বাংলা বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ড. কানিজ ফাতেমা, ইতিহাস বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মোহাম্মদ এনামুল হক, রসায়ন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মোহাম্মদ আফসার আলী শিকদার, প্রমুখ।

কলেজের অধ্যক্ষ তার বক্তব্যে ১৯৪৭ সাল থেকে ১৯৭৫ সাল পর্যন্ত বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এঁর রাজনীতি, দর্শন, ১৫ই আগস্ট কাল রাত্রি, বর্তমানে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক অগ্রগতি, বিশ্ব দরবারে বাংলাদেশের অবস্থান প্রভৃতি সম্পর্কে বিস্তারিত আলোকপাত করেন এবং বঙ্গবন্ধুর জীবন ও দর্শন থেকে শিক্ষার্থীদেরকে নিজের জীবন গঠন করে দেশ মাতৃকার সেবায় এগিয়ে আসার আহ্বান জানান। “বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বাঙালির স্বাধীনতা ও মুক্তির প্রতীক। তিনি বাংলার মাটি ও মানুষের পরম আত্মীয়। ইতিহাসের বিস্ময়কর নেতৃত্বের কালজয়ী স্রষ্টা, বাংলার ইতিহাসের মহানায়ক, স্বাধীন বাংলাদেশের স্বপ্নদ্রষ্টা, স্বাধীন-সার্বভৌম বাংলাদেশ রাষ্ট্রের প্রতিষ্ঠাতা। সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি। উন্নত সমৃদ্ধ ‘সোনার বাংলা’র স্বপ্ন সারথি’। তিনি আরো বলেন, বঙ্গবন্ধু ছিলেন মহাকালের গর্ভ থেকে উঠে আসা সর্ব সময়ের শ্রেষ্ঠ সন্তান। দেশ, মাটি ও মানুষের প্রতি অকৃত্রিম ভালোবাসাই তাঁর রাষ্ট্রদর্শনের উৎস। জনগনের রাজনীতি করেগেছেন তিনি। রাজনৈতিক স্বাধীনতার পাশাপাশি অর্থনৈতিক মুক্তি অর্জনে তথা ক্ষুদা দারিদ্রমুক্ত সোনার বাংলা প্রতিষ্ঠায় জীবনবাজী রেখে কাজ করে গেছেন।

সূর্যোদয়ের সাথে সাথে কলেজের অধ্যক্ষের নেতৃত্বে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত রাখার মাধ্যমে শোক দিবসের কর্মসুচি শুরু হয়। সকাল ৯:০০ টায় জাতীয় শোক দিবস স্মরণে চাঁদপুর সরকারি মহিলা কলেজ প্রাঙ্গণে স্থাপিত জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে অত্র কলেজের অধ্যক্ষের নেতৃত্বে শিক্ষক কর্মচারী ও শিক্ষার্থীসহ স্বাস্থ্যবিধি মেনে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়।

সকাল ৯:১৫ টায় কলেজের অধ্যক্ষ বঙ্গবন্ধুর জীবন ও কর্মের উপর আলোকচিত্র প্রদর্শনী অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন। সকাল ৯:৩০ টায় জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষ্যে শেখ রাসেল দেয়ালিকা’য় উপস্থাপিত দেয়ালিকা উন্মোচন করেন কলেজ অধ্যক্ষ প্রফেসর মোঃ মাসুদুর রহমান। সকাল ৯:৪৫টায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর জীবন ও কীর্তির উপর আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

বেলা ১১:১৫ টায় রচনা, চিত্রাঙ্কন এবং বঙ্গবন্ধু রচিত ‘বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনী, কারাগারের রোজনামচা ও আমার দেখা নয়াচীন’ বই এর উপর কুইজ প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করা হয়। রচনা প্রতিযোগিতায় প্রথম হয়েছে একাদশ শ্রেণির মানবিক বিভাগের শিক্ষার্থী আয়শা আক্তার লাকি, দ্বিতীয় হয়েছে দ্বাদশ শ্রেণির মানবিক বিভাগের শিক্ষার্থী সাদিয়া ইসলাম বিন্দু এবং তৃতীয় হয়েছে একাদশ শ্রেণির মানবিক বিভাগের শিক্ষার্থী স্মৃতি আক্তার।

চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতায় প্রথম হয়েছে একাদশ শ্রেণির মানবিক বিভাগের শিক্ষার্থী আয়শা আক্তার লাকি, দ্বিতীয় হয়েছে দ্বাদশ শ্রেণির মানবিক বিভাগের শিক্ষার্থী তাসনিয়া আক্তার এবং তৃতীয় হয়েছে একাদশ শ্রেণির মানবিক বিভাগের শিক্ষার্থী তানিয়া আক্তার তন্নি।

কুইজ প্রতিযোগিতায় প্রথম হয়েছে একাদশ শ্রেণির মানবিক বিভাগের শিক্ষার্থী আয়েশা আক্তার, দ্বিতীয় হয়েছে একাদশ শ্রেণির মানবিক বিভাগের শিক্ষার্থী নুসরাত জাহান এবং তৃতীয় হয়েছে একাদশ শ্রেণির বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী তাসফিহা তাহসিন। অনুষ্ঠানে বঙ্গবন্ধু রচিত ‘বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনী, কারাগারের রোজনামচা এবং আমার দেখা নয়াচীন’ বই থেকে বিভিন্ন বিষয় তুলে ধরা হয়।

বেলা ১১:৩০ টায় ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট নির্মম হত্যাকান্ডে নিহত শহিদদের স্মরণে দোয়া অনুষ্ঠিত হয়। দোয়া অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন অত্র কলেজের হিসাববিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক আবদুল মান্নান মিয়া। আলোচনা সভায় অত্র কলেজের শিক্ষক, কর্মচারী, শিক্ষার্থী, বিএনসিসি, রেডক্রিসেন্ট, গার্লস ইন রোভার এর সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।
ফম/এমএমএ/

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি | ফোকাস মোহনা.কম