শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ উন্নয়নের রোল মডেল

হাজীগঞ্জ: সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, মুক্তিযুদ্ধের ১নং সেক্টর কমান্ডার মেজর অব. রফিকুল ইসলাম বীরউত্তম এমপি বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদর্শী ও দক্ষ নেতৃত্বে বাংলাদেশ বিশ্বের কাছে আজ উন্নয়নের রোল মডেলে পরিণত হয়েছে।
শনিবার (১৬ নভেম্বর) চাঁদপুরের হাজীগঞ্জে বিভিন্ন উন্নয়ণমূলক কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।
এ সময় সাবেক এ মন্ত্রী বলেন, আর্থ-সামাজিক উন্নয়নসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে দেশের উন্নয়ন আজ দৃশ্যমান। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গতিশীল নেতৃত্বে ২০২১ সালের মধ্যে বাংলাদেশ একটি মর্যাদাপূর্ণ দেশে পরিণত হবে।
তিনি বলেন, শিক্ষা ক্ষেত্রে সরকারের সাফল্য আকাশ ছোঁয়া, সন্ত্রাস দমনে সরকার সাফল্য অর্জন করেছে। আইন-শৃংখলা বাহিনীর যথাযথ উদ্যোগের ফলে দেশে নাশকতার হার অনেক কমে এসেছে। দেশের মানুষ এখন শান্তিতে বসবাস করছে। ৪ বারের নির্বাচিত এ সংসদ সদস্য আরো বলেন, দেশ এখন বিদ্যুতে স্বয়ংস্বম্পন্ন, দেশের যাতায়াত বিশেষ করে রেল যোগাযোগ ব্যবস্থায় অভূতপূর্ব উন্নয়ন হয়েছে। বিভিন্ন প্রকল্পে প্রশিক্ষণ ও ভাতা দিয়ে নারীর ক্ষমতায়ন করা হয়েছে।
নৌ পরিবহন মন্ত্রণালয় সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি আরো বলেন, আমি যখন ‘১৯৯৬’ সালে প্রথম সংসদ সদস্য হয়েছিলাম সে সময় হাজীগঞ্জ-শাহরাস্তি দু উপজেলায় মাত্র ১০ কিলোমিটার পাকা সড়ক ছিল। বর্তমানে এ দু উপজেলায় সাড়ে ৩’শ কিলোমিটার পাকা সড়ক আছে। সাড়ে ৫’শ ব্রীজ কালভার্ট করা হয়েছে। ৬’শর মতো স্কুল, কলেজ ও মাদরাসা ভবন পাকা করা হয়েছে। শুধু মাত্র ডাকায়িা নদীর উপর ৭টি ব্রীজ করা হয়েছে। ৮ম নম্বর ব্রীজ (বড়কুল-টোরাগড় সেতু) কাজ চলমান রয়েছে।
তিনি বলেন, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের বিষয়ে বলেন, আমরা একসময় মাটিতে বসে লেখা পড়া করেছি। এখন তোমরা বহুতল ভবন পাচ্ছো। এটা আমরা কল্পনাও করতে পারিনি।
তিনি বলেন, এতো উন্নয়ন আমি করিনি। দেশের রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় আওয়ামী লীগ থাকায় জননেত্রী শেখ হাসিনার সহযোগিতায় আমরা এসব উন্নয়ন করতে পেরেছি।
তিনি বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনা বেঁচে থাকলে দেশের উন্নয়ন অগ্রগতি হবে। আপনার সবাই বঙ্গবন্ধু কন্যা, জননেত্রী শেখ হাসিনার জন্য দোয়া করবেন।
এ দিন সকালে ছালেহাবাদ এম.এন ফাজিল মাদরাসার উপাধ্যক্ষ মাওলানা নূর মোহাম্মদ খানের সভাপতিত্বে একাডেমিক ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন, এরপর বলাখাল জে.এন উচ্চ বিদ্যালয় এন্ড কারিগরি কলেজের অধ্যক্ষ মো. আবু তাহের মজুমদারের সভাপতিত্বে এবং পৌর আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি আবু নাছের আদনানের সঞ্চালনায় প্রতিষ্ঠানের মাঠে বর্ণাঢ্য আয়োজনে একাডেমিক ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন প্রধান অতিথি।
পরবর্তীতে বলাখাল নূরে মদিনা নেছারীয়া আলিম মাদরাসা পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি ইউছুফ মাস্টারের সভাপতিত্বে এবং মাদরাসা অধ্যক্ষ মাও. মাহবুবুল হাছানের সার্বিক তত্ত্বাবধানে ও প্রভাষক কামরুল হাসানের সঞ্চালনায় একাডেমিক ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন, এরপর মৈশাইদ পল্লী মঙ্গল এ.জি উচ্চ বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি আতিকুর রহমান নান্নু মজুমদারের সভাপতিত্বে এবং প্রধান শিক্ষক শাহ্ এমরান হোসেন মজুমদারের সার্বিক তত্ত্বাবধানে ও সহকারি শিক্ষক মো. শাহজাহানের সঞ্চালনায় বর্ণাঢ্য আয়োজনে একাডেমিক ভবনের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করেন প্রধান অতিথি।
এ দিন দুপুরে হাজীগঞ্জ পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি ও পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব সৈয়দ আহম্মদ খসরুর সভাপতিত্বে এবং প্রধান শিক্ষক মো. দেলোয়ার হোসেনের সার্বিক তত্ত্বাবধানে ও সিনিয়র সহকারি শিক্ষক মো. আকবার হোসেনের সঞ্চালনায় একাডেমিক ভবন নির্মাণ কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন প্রধান অতিথি।
এরপর হাজীগঞ্জ বালিকা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৫ম শ্রেণির সমাপানী পরীক্ষার্থীদের বিদায় সংবর্ধণা, মিলাদ, দোয়া ও আলোচনা সভা যোগ দেন প্রধান অতিথি মেজর অব. রফিকুল ইসলাম বীরউত্তম এমপি। অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন, বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি আলহাজ্ব সেলিম মিয়া। পরিচালনা পর্ষদের সদস্য মো. নজরুল ইসলামের সার্বিক তত্ত্বাবধানে এবং প্রধান শিক্ষক আয়শা আক্তারের সঞ্চালনায় আয়োজিত সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে দোয়া ও মোনাজাত পরিচালনা করেন, হাজীগঞ্জ ঐতিহাসিক বড় মসজিদের খতিব ও পেশ ইমাম মুফতি আব্দুর রউফ।
সকালে সাংসদ মেজর অব. রফিকুল ইসলাম বীরউত্তমকে স্বাগত জানিয়ে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান বলাখাল মকবুল আহমেদ ডিগ্রি কলেজের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা। কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মো. আবুল কালাম ও সহকারি অধ্যাপক মোশারফ হোসেন লিটনের নেতৃত্বে শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা এ ফুলেল শুভেচ্ছা জানান।
ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন স্বাধীনতানপদক প্রাপ্ত নারী মুক্তিযোদ্ধা সৈয়দা বদরুন নাহার চৌধুরী, হাজীগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান গাজী মাইনুদ্দীন, পৌর মেয়র আ. স. ম. মাহবুব-উল আলম লিপন, উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ¦ হেলালউদ্দিন মিয়াজী, জেলা আওয়ামীলীগের কোষাধ্যক্ষ রোটা. আহসান হাবিব অরুন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাতি আলী আশরাফ দুলাল, হাজী সেলিম উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান গোলাম ফারুক মুরাদ, পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ¦ সৈয়দ আহমদ খসরু, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান (মহিলা) মির্জা শিউলি মিলি, উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক মাসুদ ইকবাল, যুগ্ম আহবায়ক জাকির হোসেন সোহেল, আলি নুর নিপু, পৌর মহিলা আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ফেরদৌস আকতার, পৌর যুবলীগের আহবায়ক হায়দার পারভেজ সুজন, তাজুল ইসলাম জসিমউদ্দিন, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি এবায়েদুর রহমান খোকন, পৌর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মেহেদি হাছান রাব্বি, মহিলা আওয়ামী লীগ নেত্রী খাদিজা আকতার, ডাক্তার মুক্তা।
দুপুরে মেজর অব. রফিকুল ইসলাম বীরউত্তম এমপি উপজেলা চত্ত্বরে প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল থেকে অসুস্থ্যদের চিকিৎসার জন্য বরাদ্ধের অর্থের চেক, সংসদ সদস্যের ঐচ্ছিক তহবিলের চেক এবং অস্বচ্ছলদের মাঝে সেলাই মেশিন বিতরণ করেন।
ফম/এমএমএ/

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | ফোকাস মোহনা.কম