শুক্রবার শুরু হচ্ছে বিসিবি কাউন্সিলর কাপ টি-২০ ক্রিকেট

টুর্নামেন্টে অংশ নিয়েছে চাঁদপুর সহ বিভিন্ন জেলার ২৪টি দল

চাঁদপুর: আর মাত্র ২ দিন পরই চাঁদপুর স্টেডিয়ামে শুরু হচ্ছে বিসিবি কাউন্সিলর কাপ টি-২০ ক্রিকেট টুনামেন্ট। টুর্নামেন্টের আয়োজনে রয়েছেন চাঁদপুর ক্রিকেটারর্স ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েন।

শুক্রবার (২ সেপ্টেম্বর) সকালে টুর্নামেন্টের উদ্ধোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন আইসিসি জয়ী বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক ও বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডেও কাউন্সিলর আকরাম খান। এ টুর্নামেন্টে অংশ নিয়েছে চাঁদপুর সহ দেশের বিভিন্ন জেলার ২৪টি দল। টুনার্মেন্টের মিডিয়া পাটনার হলো স্পোর্টস ২৪, চাঁদপুর কন্ঠ, ফোকাস মোহনা ও চাঁদপুর বার্তা। সার্বিক সহযোগিতায় রয়েছেন চাঁদপুর জেলা ক্রীড়া সংস্থা। টুর্নামেন্টের উদ্ধোধনী দিনের খেলায় অংশ নিবে চাঁদপুর শাহারাস্তি ক্রিকেট একাডেমী ও সন্ধীপ ক্রিকেট একাডেমী চট্টগ্রাম।

চাঁদপুর স্টেডিয়ামে শুক্রবার সকালে বিসিবি কাউন্সিলর কাপ ক্রিকেট টুর্নামেন্টের উদ্ধোধন উপলক্ষে আয়োজকদেও পক্ষ থেকে উদ্ধোধক আকরাম খানের সাথে গত ২৭ আগষ্ট শনিবার সৌজন্য সাক্ষাত অনুষ্ঠিত হয়। ঢাকায় বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডে আকরাম খানের সাথে টুর্নামেন্ট উপলক্ষে সৌজন্য সাক্ষাতে অংশ নেন চাঁদপুর জেলা ক্রীড়া সংস্থার সহ-সভাপতি ও ফরিদগঞ্জ উপজেলার পরিষদেও চেয়ারম্যান , বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের চট্টগ্রামস্থ কাউন্সিলর এবং টুর্নামেন্টের প্রধান সম্বনয়ক অ্যাডঃ জাহিদুল ইসলাম রোমান। তার সাথে ছিলেণ চাঁদপুর জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারন সম্পাদক গোলাম মোস্তফা বাবু।

চাঁদপুরের ক্রীড়াঙ্গনে এই প্রথম সবচেয়ে বড় বাজেটের বড় টুর্নামেন্টের আয়োজন করা হয়েছে। যদিও এটা ক্রীড়া সংস্থার টুর্নামেন্ট কিংবা ক্রিকেট লীগ নয় ? চাঁদপুর স্টেডিয়ামে খেলার আয়োজন করার কারনেই আয়োজকরা মাঠটি ব্যবহার করার সুযোগ পাচ্ছে। যদিও এর আগে কোনো আয়োজকরা এ ধরনের টুর্নামেন্ট আয়োজন করতে পারেনি কিংবা আয়োজকদেরকে কতৃপক্ষ আর্দৌ মাঠ দিবে কিনা এমন অনেক সংশয় ছিলো অনেক আয়োজকদেও মাঝেই। যদিও একটা গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে যে বাংলাদেশ ক্রীড়া ফেডারেশনের মাধ্যমে ও জেলা ক্রীড়া অফিসের ব্যবস্থাপনায় চলতি মাসেই এই ভেন্যতে স্কুল ক্রিকেট টুর্নামেন্ট শুরু হতে পারে।

ক্রিকেটার্স ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশন চাঁদপুর জেলা শাখার আয়োজনে বড় বাজেটের এ টুর্নামেন্টে চাঁদপুর জেলা ও উপজেলার ৫টি দল সহ রাজধানী ঢাকা, বন্দরনগরী চট্টগ্রাম, রায়পুর, লক্ষীপুর সহ ২৪ টি দল অংশগ্রহন করেছে। যদিও আগষ্টের ২০ তারিখ পর্যন্ত আয়োজকদেও কাছে দেশের বিভিন্ন জেলাসহ চাঁদপুরের প্রায় ৭০টি দল অংশগ্রহন করবে বলে সম্মতি জানিয়েছিলো। আয়োজকরা প্রথমবারের মতো বড় ধরনের এ টুর্নামেন্টটি যেনো সুন্দরভাবে শেষ করতে পারে সেই বিষয় সহ বিভিন্ন বিষয় চিন্তা করেই সবর্শেষ ২৪টি দল নিয়েই টুর্নামেন্ট শুরু করতে যাচ্ছে।

টুনামেন্টের আয়োজকদেও পক্ষ থেকে গত সপ্তাহে অংশ ণেয়া ২৪টি দলের কর্মকতা ও টিম ম্যানেজার এবং খেলোয়াড়দেও নিয়ে ড্র ( লটারি ) অনুষ্ঠিত হয়েছে। সকল কর্মকতা ও ক্রীড়া সাংবাদিকদেও সামনেই এ লটারি অনুষ্ঠিত হয়। লটারি অনুষ্ঠানে জেলা ও উপজেলার উদিয়মান ক্রীঢ়া সংগঠক সহ অনেক ক্রীড়া কর্মকতরাই উপস্থিত ছিলেন। মহাকুমা থেকে চাঁদপুর জেলা হওয়ার পর এবং মালেক ভবনের পর নতুনভাবে নির্মিত হওয়ার পর চাঁদপুর স্টেডিয়ামে ক্রিকেট খেলার লটারি এই প্রথমবারের মতো উম্মুক্তভাবে দেখতে পেলেন সকলেই। অবশ্য সেখানে চাঁদপুর জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাথে জড়িত ৩বারের সাধারন সম্পাদক গোলাম মোস্তফা বাবু সহ জেলা ক্রীড়া সংস্থার কার্যকরী কমিটির অনেকেই উপস্থিত ছিলেন।

চাঁদপুর স্টেডিয়ামে এ টুর্নামেন্টের উদ্ধোধনী দিনেই খেলতে দেখা যাবে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের সাথে জড়িত রয়েছেন এমন অনেক ক্রিকেটারদেরই। এ টুর্নামেন্টে খেলার সুযোগ পাচ্ছেন চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জের ছেলে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের হয়ে খেলা টেষ্ট দলের সদস্য মাহমুদুল হাসান জয়, টি-২০ খেলা শামিম পাটওয়ারী, বিপিএলের সেরা বোলার কচুয়ার মেহেদী হাসান সহ জাতীয় ক্রিকেট দল ও প্রিমিয়াওে খেলা অনেক ক্রিকেটারগনই।

আয়োজকদেও মাধ্যমে আরো জানা যায় যে শুক্রবার টুর্নামেন্টের উদ্ধোধন অনুষ্ঠিত হলেও ট্রফি উম্মোচন করা হবে দু’দিন আগেই। অথ্যা ৩১ তারিখ সন্ধায় উপস্থিত ২৪ দলের খেলোয়াড়ও কর্মকতাদেও সামনেই টুর্নামেন্টের ট্রফি উম্মোচন করা হবে। টুনামেন্টে সুন্দরভাবে খেলা পরিচালানার জন্য বাংলাদেশ আম্পায়ার স্কোরাস এন্ড এসোসিয়েশন চাঁদপুর জেলা শাখার আম্পায়ারগন বেশ কয়েকবার সভাও করেছেন। শনিবার বিকেলে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোডের থেকে সনদপ্রাপ্ত বিভিন্ন ক্যাটাগরির জেলার ও উপজেলার সকল আম্পায়ারদেও নিয়ে জরুরি সভাও অণুষ্ঠিত হয়।

টুনামেন্টে অংশ নেয়া দলগুলো হলো:- কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানস ক্রিকেট একাডেমী, এরিস্টান ইউসি স্পোর্টস ক্রিকেট ক্লাব, বাকালিয়া সূর্য তরুন ক্লাব রায়পুর, চট্টগ্রাম লায়ন্স, সন্দীপ ক্রিকেট একাডেমী চট্টগ্রাম, কক্সবাজার ক্রিকেটাস ফোরাম, ১০/১২ ক্রিকেটাস ঢাকা, ব্রাদাস ক্রিকেট একাডেমী চট্টগ্রাম, গাজীপুর ক্রিকেট একাডেমী, নিউ ক্রিকেট একাডেমী চাঁদপুর, ঢাকা পাওয়ার ক্রিকেট একাডেমী, ঢাকা টাইটেন্স, থ্রিকুইন ওয়ারিয়র্স চাঁদপুর, স্লোগ সিকসারস টিম চাঁদপুর, শেখ কামাল স্পোর্টস একাডেমী চাঁদপুর, শাহারাস্তি ক্রিকেট একাডেমী চাঁদপুর, মতলব সূর্য তরুন স্পোর্টিং ক্লাব চাঁদপুর, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ক্রীড়া চক্র চাঁদপুর, উদয়ন ক্লাব চাঁদপুর, ক্রিকেট স্কুল কুমিল্লা, ইলেভেন স্টার ঢাকা, আলতাফ ক্রিকেট ফাউন্ডেশন ঢাকা, রায়পুর ক্রিকেট একাডেমী ও ইনটেন্স ক্রিকেট একাডেমী ঢাকা।

টুর্নামেন্টের আয়োজকদেও মাধ্যমে আরো জানা যায় যে, টুর্নামেন্টের চ্যাম্পিয়ন দল পাবে ১ লক্ষ টাকা ও রানারআপ দল পাবেন ৫০ হাজার টাকা। এছাড়া প্রতিদিন ম্যাচে থাকবে আয়োজকদেও পক্ষ থেকে ম্যান অব দ্যা ম্যাচ, সেরা খেলোয়াড়, সেরা ব্যাটসম্যান ও সেরা বোলারের পুরুস্কার। খেলাশেষেই প্রতিদিন আয়োজকদেও পক্ষ থেকে অংশ নেয়া দল ও দলের খেলোয়াড়দেও মাঝে পুরুস্কার তুলে দিবেন প্রতিদিন উপস্থিত অতিথিবৃন্দ। আর আয়োজকদেও পক্ষ থেকে চেষ্টা করা হবে প্রতিদিনকার খেলাগুলো ফেইসবুকের মাধ্যমে সরাসরি লাইভ করার।

চাঁদপুওে এ টুর্নামেন্টের খেলা উপলক্ষে জেলা সদও সহ কুমিল্লা, রাজধানী ঢাকা ও বন্ধর নগরী চট্টগ্রাম সহ বিভিন্ন স্থানেই ফেষ্টুন ও বিলবোড সাাটানো হয়েছ। গতকাল থেকে জেলার ৭টি উপজেলায় মাইক নামানো হয়েছে। খেলোয়াড়রা যাতে এসে থাকতে পাওে এবং প্রাকটিস করতে পাওে সেই ব্যবস্থা ও করা হয়েছে। যারাই এই টুর্নামেন্টের সাথে জড়িত রয়েছেন তাদেও প্রত্যেক সদস্য দিনরাত টুর্নামেন্টটি সফল করার জন্য নিরলসভাবে কাজ কওে যাচ্ছেন।
টুর্নামেন্ট সুন্দরভাবে পরিচালনার জন্য গত ২৪ জুলাই চাঁদপুর স্টেডিয়ামের প্যাভিলিয়ানে আয়োজকদেও প্রথম সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় টুর্নামেন্ট সুন্দরমতো পরিচালনা ও খেলোয়াড়দেও বিভিন্ন সুযোগ সুবিধা সহ মিডিয়া পাটনার ও স্পনরন দেও বিষয়ে আলোচনা হয়। এই টুর্নামেন্টে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের ক্রিকেটার সহ বিপিএল, সিপিএল এ খেলা অনেক খেলোয়াড় এবং ঢাকা ও চট্ট্রগ্রামের বিভিন্ন দলের ক্রিকেটার সহ বিদেশী খেলোয়াড়রা ও খেলার সুযোগ পাবে। প্রত্যেক দলই তাদেও নিজস্ব পছন্দ অণুযায়ী দল গঠন কওে মাঠে নামতে পারবেন। তবে ইতিম্যধ্যে শোনা গেছে বেশ কয়েকটি দলে খেলার জন্য ইতিম্যধ্যে বাংলাদেশ টেষ্ট দলের ও টি ২০ এবং ওয়ানডে দলের বেশ কয়েকজন খেলোয়াড় বিভিন্ন দলের সাথে চুক্তিবদ্ধ হচ্ছেন।

টুর্নামেন্টের উপদেষ্টামন্ডলীর সদস্যরা হলেন- জেলা ক্রীড়া সংস্থার সহ-সভাপতি ও ফরিদগঞ্জ উপজেলা পরিষদেও চেয়ারম্যান অ্যাডঃ জাহিদুল ইসলাম রোমান, চাঁদপুর পৌরসভার মেয়র অ্যাডঃ জিল্লুর রহমান জুয়েল, জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারন সম্পাদক গোলাম মোস্তফা বাবু, ক্রীড়া সংগঠক ও চাঁদপুর পৌরসভার প্যানেল মেয়র অ্যাডঃ হেলাল হোসাইন, ক্রীড়া সংগঠক হুমায়ন কবির মোল্লা, জেলা ক্রীড়া সংস্থার ক্রিকেট উপকমিটির সম্পাদক শেখ মোঃ মোতালেব, চাঁদপুর জেলার ক্রিকেট কোচ ও ক্লেমন চাঁদপুর ক্রিকেট একাডেমীর প্রতিষ্ঠাতা শামীম আক্তার ফারুকী, চাঁদপুরের সাবেক ক্রিকেটার ও ক্রীড়া সংগঠক রোটারিয়ান শেখ মঞ্জুরুল কাদেও সোহেল, ক্রিকেট কোচ ও ক্রীড়া সংগঠক নজরুল ইসলাম, সাবেক ক্রিকেটার ও জেলা ক্রিকেট উপকমিটির টেকনিক্যাল কমিটির সাইফুল ইসলাম সুমন, এস এম মুজিবুল হক রাসেল।

টুর্নামেন্টের আহবায়ক কমিটির আহবায়ক হলেন- গাজী আলমগীর, যুগ্ম আহবায়ক হানীফ ঢালী হীরা, অ্যাডঃ বিশ^জিত কর রানা, জাহান আলম গেরি, সাইফুল ইসলাম সোহাগ, মোশারফ বাবু, মাইনুদ্দিন মিজি, সাখওয়াত হোসেন, ফজলুল হক, সাইফুল ইসলাম, ফজলে রাব্বি, রাকিবুল হাসান, মোরশেদ আলম, মোশারফ সবুজ, অলিভ বাবু, ফয়সাল সানি, মেহেদী হাসান, মেহেদী হাসান রানা। প্রধান সম্বনয়ক রাফসান জানি , সম্বনয়ক ও ট্রেজারার সাদ্দাম হোসেন। সদস্য সচিব – মাসুদ মোল্লা। সদস্য- ইসমাইল হোসেন, মনিরুল ইসলাম রনি, তোফায়েল মাল, সাইদুল ইসলাম জিসান, ইউনুছ খান, ফজলে রাব্বি, কবির আলী, শামিম হোসেন পাটওয়ারী, মাহমুদুল হাসান জয়, মোঃ মিঠু, আহাদ হোসেন, আলাউদ্দিন, রাফি, শাওন হোসেন, রবিন সরকার, আরিফ হোসেন, নাকিব, বাপ্পি, সিয়াম, রাকিব, আল রাহাত সাকিব, লোকমান সাকিব, কামরুল ইসলা, তারেকুর রহমান, সাইফুদ্দিন বাবু, সাখওয়াত হোসেন ও শিপন মল্লিক।

টুর্নামেন্টের প্রধান সম্বনয়ক রাফসান জানি ও টেজারার সাবেক বাংলাদেশ জাতীয় অনুর্দ্দ ১৯ দলের ক্রিকেটার সাদ্দামের সাথে এ প্রতিবেদকর আলাপকালে তারা জনানা আমরা এ টুর্নামেন্টটি সুন্দরভাবে পরিচালনার জন্য সকল কিছুই আয়োজন করার চেষ্টা করছি। আমরা টুর্নামেন্টেরি জন্য নিরলসভাবে জেলার সকল ক্রিকেটারগন মিলেমিশে কাজ করছি। আশা করি জেলাতে এ ধরনের আয়োজন এই প্রথম।টুর্নামেন্টে আয়োজকদেও পক্ষ থেকে প্রতিদিনই ম্যান অব দ্যা ম্যাচ সহ সেরা বোলার, সেরা ক্রিকেটার, সেরা ব্যাটসম্যানদেরকে পুরুস্কার দেয়া হবে। আমরা চাই এ জেলাতে সুন্দরভাবে একটি ক্রিকেট টুর্নামেন্ট শুরু হউক। আমরা উদ্ধোধনী ম্যাচে একটি ম্যাচের আয়োজন রেখেছি। এছাড়া টুর্নামেন্টের নিয়ম অনুযায়ী প্রতিদিন ২টি কওে ম্যাচের আয়োজনের ব্যবস্থা করা হবে। আমরা সকলের সহযোগিতা ও সমর্থন প্রত্যাশা করছি। আমাদেরকে রোমান ভাই সকল ধরনের সহযোগিতা সহ বিভিন্নভাবে উৎসাহ দিয়ে যাচ্ছেন।
ফম/এমএমএ/চৌইই/

চৌধুরী ইয়াসিন ইকরাম | ফোকাস মোহনা.কম