শিক্ষক মনকুমার দাসের পরলোকগমন

চাঁদপুর: চাঁদপুর ল্যাবরেটারী স্কুলের পরিচালক মৃনাল কান্তি দাস ও মৃদুল কান্তি দাসের বাবা চাঁদপুর পুরানবাজার মধুসূদন উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রাক্তন শিক্ষক মনকুমার দাস আর বেঁচে নেই।

তিনি রবিবার (২৪ অক্টোবর) দুপুর ১২টা ১০ মিনিটে ঢাকাস্থ ল্যাব এইড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় পরলোকগমন করেন (দিব্যান লোকান স গচ্ছতু)। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭২ বছর।

গত ২০ অক্টোবর সকালে পুরানবাজার পূর্ব শ্রীরামদী দাসপাড়া নিজ বাড়িতে তিনি অসুস্থ হয়ে পড়লে তঁকে তাৎক্ষণিক উন্নত চিকিৎসার জন্যে ঢাকা ল্যাব এইডে ভর্তি করা হলে তিনি ব্রেইন স্ট্রোকে আক্রান্ত হয়েছেন বলে জানা যায়। সন্ধ্যায় তার মরদেহ নিজবাড়িতে নিয়ে আসা হয়।

তাকে শেষবারের মতো দেখতে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব নাছির উদ্দিন আহমেদ, জেলা পূজা উদ্যাপন পরিষদের সভাপতি সুভাষ চন্দ্র রায়, পুরাণবাজার মধুসূদন উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক গণেশ চন্দ্র দাস, পৌর কাউন্সিলর আঃ মালেক শেখ, মোঃ আঃ লতিফ গাজী, শহর আওয়ামী লীগ নেতা মঞ্জুরুল ইসলাম মঞ্জু, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব রফিক আহম্মদ মিন্টু, জেলা পূজা উদ্যাপন পরিষদের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বিমল চৌধুরীসহ বিভিন্ন সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ এবং ছাত্র-ছাত্রী, অভিভাবক, শুভানুধ্যায়ী ও আত্মীয়-স্বজন তার বাড়িতে আসেন।

তারা প্রয়াতের দুই পুত্র সন্তানকে শান্ত্বনা প্রদান পূর্বক শোকার্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান। এদিনই তার আত্মার শান্তি কামনায় তার বাড়িতে সমবেত উপাসনা অনুষ্ঠিত হয়। উপাসনা পরিচালনা করেন চাঁদপুর অযাচক আশ্রম পরিচালনা পর্ষদের অন্যতম পরিচালক দুলাল চন্দ্র দাস। পরে তার মরদেহ তার প্রিয় গুরুধাম চাঁদপুর অযাচক আশ্রমে নিয়ে যাওয়া হয়।

এদিন রাতেই চাঁদপুর মহাশ্মশানে তার অন্তে্যুাষ্টিক্রিয়া সম্পন্ন হয়। তার মরদেহে শেষবারের মতো ফুলেল শুভেচ্ছা জ্ঞাপন করেন তার প্রিয় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পুরাণবাজার মধুসুধন উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষকবৃন্দ, চাঁদপুর জেলা পূজা উদ্যাপন পরিষদ, চাঁদপুর অযাচক আশ্রম, দাসপাড়া কালীমন্দির, দাসপাড়া বিদ্যার্থী সংঘ, দাসপাড়া বড় বাড়ির সভ্যবৃন্দ, ঘাসফড়িং সামাজিক সংগঠন প্রমুখ।

ফম/এমএমএ/

চৌধুরী ইয়াসিন ইকরাম | ফোকাস মোহনা.কম