শাহমাহমুদপুরে সরকারি গাছ কেটে নেওয়ার অভিযোগ!

চাঁদপুর: চাঁদপুরের শাহমাহমুদপুরে রাস্তার পাশে সরকারি গাছ কেটে নেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। 

শনিবার (২২ অক্টোবর) সকালে ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের হযরত শাহমাহমুদ বাগদাদী (রঃ) মাজার সংলগ্ন এলাকায় রেইন-ট্রি কড়ই গাছ কাটতে দেখে স্থানীয়রা ইউপি চেয়ারম্যানের নিকট অভিযোগ জানান। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে গাছ কাটা বন্ধ করে গ্রাম্য পুলিশ সদস্যরা।
সরজমিনে গিয়ে দেখা যায়, রাস্তার পাশে অবস্থিত একটি রেইন-ট্রি কড়ই গাছ কেটে ফেলেছে তারা। অপর একটি বড় আকৃতির গাছের ডাল-পালা কেটে ফেলা হয়েছে।
স্থানীয়রা অভিযোগ করেন, ওই এলাকার আমিনুল হক মোহন খন্দকার, বাবু খন্দকার ও মুরাদ খন্দকারের নির্দেশে তাদের লোকজন গাছ দুটি কাটেন। গাছ কাটার দৃশ্য দেখে আমরা ইউনিয়ন পরিষদে খবর দেই। এভাবে সরকারি গাছ কেটে নেয়ার তীব্র প্রতিবাদ জানাই। দোষীদের বিরুদ্ধে আইনুক ব্যবস্থা নেওয়ার অনুরোধ করছি।
এ বিষয়ে মুরাদ খন্দকার ও বাবু খন্দকারের সাথে কথা হলে অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, আমাদের জমিতে লাগানো গাছ আমরা কেটে নিচ্ছি। আমরা কোন সরকারি গাছ কাটি নাই। ইউনিয়ন পরিষদ থেকে আমাদেরকে নিষেধ করেছে, তাই বর্তমানে আমরা গাছ কাটা বন্ধ রেখেছি।
এ বিষয়ে ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাসুদুর রহমান নান্টু জানান, শাহতলী গ্রামের খন্দকার বাড়ির সামনে সরকারি গাছ কাটা হচ্ছে বলে আমরা জানতে পেরে গ্রাম পুলিশ পাঠিয়ে তা বন্ধ রেখেছি। যে কোনো প্রভাবশালী ব্যক্তিই সরকারি কোন সম্পদ তছরুপ করতে পারবে না। এ ব্যাপারে আমরা সজাগ রয়েছি।
ফম/এমএমএ/

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | ফোকাস মোহনা.কম