শরীতপুরে হবে দেশের দ্বিতীয় ডিজিটাল পল্লী

ই-কমার্সের শক্তিতে এবার গ্রাম থেকে বিশ্বে ছড়িয়ে পড়ার মিশন- ডিজিটাল কমার্স প্রকল্পের অধীনে এলো শরীয়তপুর। গ্রামীণ তাঁতকে কেন্দ্র করে মানিকগঞ্জের সাঁটুরিয়াকে সফলভাবে ‘ডিজিটাল পল্লী’ বাস্তবায়নের পর বাণিজ্য মন্ত্রণালয় ও ই-কমার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ই-ক্যাব) নতুন করে এই উদ্যোগ গ্রহণ করে।

বৃহস্পতিবার (১ ডিসেম্বর ২০২২) মতিঝিলের বিপিসি সম্মেলন কেন্দ্রে বাণিজ্য মন্ত্রণালয় ও ই-ক্যাবের মধ্যে এ নিয়ে একটি সমঝোতা চুক্তি হয়েছে। বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব ও বিপিসি কো-অর্ডিনেটর মোঃ আবদুর রহিম খান এবং ই-ক্যাব সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ আবদুল ওয়াহেদ তমাল নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানের পক্ষে চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন।

অন্যান্যের মধ্যে ই-ক্যাব কার্যনির্বাহী কমিটির পরিচালক মোঃ সাইদুর রহমান, ডিজিটাল পল্লী টিমের পক্ষে ইব্রাহিম খলিল, জাহিদুজ্জামান সাঈদ, মীর শাহেদ আলী ও মরিয়ম সুলতানা এবং আইসিটি বিজনেস প্রমোশন কাউন্সিলের সহকারী নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ ফয়সাল খান উপস্থিত ছিলেন।

চুক্তি অনুযায়ী, শরীয়তপুরের সম্ভাবনাময়ী গ্রাম নির্বাচন করে আগামী ২০২৩ সালের ২০ ফেব্রুয়ারির মধ্যে দেশের দ্বিতীয় ডিজিটাল পল্লী বাস্তবায়ন করবে ডিজিটাল পল্লী টিম। এর মাধ্যমে ই-কমার্সের শক্তিতে গ্রামীণ অর্থনীতিকে বিশ্ববাণিজ্যের সঙ্গে সংযুক্ত করার পথ উন্মুক্ত হবে।
ফম/এমএমএ/

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি | ফোকাস মোহনা.কম