লালমনিরহাটের হরিণছাড়ায় প্রকল্পের অগ্রগতি পরিদর্শনে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের ডেপুটি গভর্নর

আড়াইশ কৃষি উদ্যোক্তার প্রশিক্ষণ ইউসিবি’র ‘ভরসার নতুন জানালা’ প্রকল্পের অধীনে

রংপুর: ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক (ইউসিবি) পিএলসি’র ‘ভরসার নতুন জানালা’ শীর্ষক কৃষি সহায়তামূলক প্রকল্পের অধীনে শনিবার (১০ ফেব্রুয়ারি) রংপুরের আরডিআরএস মিলনায়তনে কৃষি উদ্যোক্তাদের দক্ষতা উন্নয়নে দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

এর আগে, শুক্রবার (৯ ফেব্রুয়ারি) ইউসিবি’র অর্থায়নে পল্লী উন্নয়ন একাডেমি, বগুড়ার চর উন্নয়ন গবেষণা কেন্দ্র (সিডিআরসি) কর্তৃক বাস্তবায়নাধীন কর্মসূচিসমূহের অগ্রগতি পরিদর্শনে যান কেন্দ্রীয় ব্যাংকের ডেপুটি গভর্নর আবু ফরাহ মো. নাছের।

প্রশিক্ষণে অংশগ্রহণ করেন ২৫০ জন কৃষি উদ্যোক্তা। কৃষি ও খাদ্য উদ্যোক্তাদের চিহ্নিত করার মাধ্যমে তাদের প্রয়োজন অনুযায়ী প্রশিক্ষণ প্রদানের লক্ষ্য নিয়ে ৩৯তম জেলা হিসেবে রংপুরে কৃষি উদ্যোক্তাদের প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়। এ প্রশিক্ষণ কর্মসূচি বাস্তবায়নে ইউসিবির সহযোগী হিসেবে রয়েছে বিএসএএফই ফাউন্ডেশন।

প্রশিক্ষণ কর্মসূচির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ব্যাংকের ডেপুটি গভর্নর আবু ফরাহ মো. নাছের এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক মো. আনোয়ারুল ইসলাম ও বাংলাদেশ টেলিভিশনের জনপ্রিয় কৃষি বিষয়ক অনুষ্ঠান মাটি ও মানুষের উপস্থাপক রেজাউল করিম সিদ্দিক। এবং সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা মৎস্য কর্মকর্তা মো. বদরুজ্জামান মানিক, জেলা অতিরিক্ত প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. জোবায়দুর কবির ও জেলা কৃষি প্রশিক্ষণ কর্মকর্তা কৃষিবিদ এনামুল হক।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক পিএলসির ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী আরিফ কাদরী।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ ব্যাংকের ডেপুটি গভর্নর আবু ফরাহ মো. নাছের বলেন, “ব্যাংকসহ সকল প্রতিষ্ঠানের মানুষ ও সমাজের প্রতি দায়বদ্ধতা রয়েছে। আমি অত্যন্ত আনন্দিত ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক পিএলসি গৃহীত উদ্যোগের অগ্রগতি দেখে। তারা অত্যন্ত নিষ্ঠার সঙ্গে কৃষি কমিউনিটির উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছে। আমি মনে করি, আর্থিক খাতের অন্যান্য প্রতিষ্ঠানেরও এমন উদ্যোগ গ্রহণে এগিয়ে আসা উচিত; কেননা, সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠান ও সংস্থাসমূহের অংশীদারত্বমূলক উদ্যোগের মাধ্যমেই সমৃদ্ধ ও স্বনির্ভর বাংলাদেশ বিনির্মাণ গঠন সম্ভব হবে।”

অনুষ্ঠানের বিশেষ অতিথি বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক মো. আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, “দেশের উন্নয়ন ও জিডিপির প্রবৃদ্ধিতে কৃষিখাতের উল্লেখযোগ্য অবদান রয়েছে। আর কৃষিখাতের সাফল্যের কারিগর হচ্ছেন আমাদের কৃষক ও কৃষি উদ্যোক্তারা। দেশের কৃষি উদ্যোক্তাদের বিকাশে ইউসিবি যে উদ্যোগ গ্রহণ করেছে তা সত্যিকার অর্থেই প্রশংসনীয়।”

বিটিভির মাটি ও মানুষ অনুষ্ঠানের উপস্থাপক রেজাউল করিম সিদ্দিকী বলেন, “কৃষি-নির্ভর বাংলাদেশের সমৃদ্ধিতে কৃষিখাতের সাফল্যের কোনো বিকল্প নেই। ইউসিবির বাস্তবায়নাধীন ‘ভরসার নতুন জানালা’ প্রকল্পের কার্যক্রমের সাফল্য ও অগ্রগতি দেখে আমি অভিভূত। বাংলাদেশ ব্যাংক দেশের কৃষিখাতের উন্নয়নে ব্যাংকগুলোতে সম্পৃক্ত করছে। তাদের এ সিদ্ধান্ত অত্যন্ত সময়োপযোগী।”

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের সভাপতি ইউসিবির ব্যবস্থাপনা পরিচালক আরিফ কাদরী বলেন, আমাদের ব্যাংক কৃষির উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছে। আমরা কৃষক ও কৃষি উদ্যোক্তাদের জন্য সহজ শর্তে ঋণ প্রদান করছি। বাণিজ্যিক কৃষির বিকাশের জন্য আমাদের প্রয়াস অব্যাহত থাকবে।

অনুষ্ঠানের শুরুতে ভরসার নতুন জানালা প্রকল্পের রূপরেখা তুলে ধরে স্বাগত বক্তব্য রাখেন ইউসিবির অতিরিক্ত ব্যব¯’াপনা পরিচালক ও কোম্পানি সেক্রটারি এটিএম তাহমিদুজ্জামান।
দিনব্যাপী প্রশিক্ষণে কৃষি উদ্যোক্তাদের প্রায়োগিক দক্ষতার উন্নয়ন, বাজার ও বিপণন সক্ষমতা বৃদ্ধি, মূলধন ও আর্থিক ব্যবস্থাপনা এবং কৃষিঋণ সংক্রান্ত নীতিমালা ও সুদের হারসহ সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন বিষয়ে প্রয়োজনীয় ধারণা প্রদান করা হয়। এ প্রশিক্ষণ কর্মসূচিতে প্রশিক্ষক হিসেবে ছিলেন ইউসিবি’র বিশেষ প্রশিক্ষক দল এবং জেলা ও উপজেলা পর্যায়ের কৃষি, মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তাগণ। প্রশিক্ষণ শেষে কৃষকদের কৃষি উপকরণ (জৈব সার, বীজ, ছাতা প্রভৃতি), অংশগ্রহণ ভাতা এবং সনদপত্র প্রদান করা হয়।

স্থানীয় কৃষি, মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তাদের সহায়তায় কৃষি উদ্যোক্তাদের তালিকা তৈরি করে ইউসিবি, যার ভিত্তিতে দেশের ৬৪ জেলার প্রায় সকল উপজেলা থেকে উদ্যোক্তা তৈরি ও বিকাশের জন্য প্রশিক্ষণ প্রদানের উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়। এ উদ্যোগের অধীনে ইতোমধ্যে ৩৮ জেলার মোট ৮ হাজার ৫৪৭ জন কৃষি উদ্যোক্তাকে বিষয়-ভিত্তিক প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, দেশের খাদ্য নিরাপত্তা ও উন্নত পুষ্টিমান নিশ্চিত করার পাশাপাশি জলবায়ু-সহিষ্ণু টেকসই কৃষির প্রসার ঘটাতে সক্রিয় ভূমিকা রাখার লক্ষ্য নিয়ে গত বছরের শুরুতে কৃষিখাতে সহায়তামূলক প্রকল্প ‘ভরসার নতুন জানালা’ শীর্ষক উদ্যোগ গ্রহণ করে ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক (ইউসিবি) পিএলসি। বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্দেশনা অনুযায়ী নিজেদের করপোরেট সামাজিক দায়িত্বের (সিএসআর) অংশ হিসেবে এ উদ্যোগ নেয় প্রতিষ্ঠানটি।

এ প্রকল্পের অধীনে দেশের প্রায় সকল উপজেলায় কৃষি উদ্যোক্তা তৈরি ও বিকাশের উদ্যোগ গ্রহণসহ বিভিন্ন উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। যেমন: নির্বাচিত এলাকাসমূহ ‘মডেল এলাকা’ হিসেবে গড়ে তুলে এলাকাগুলোতে ৫৫ হাজার তাল ও অন্যান্য গাছ রোপণ করা হয়েছে; তিন হাজার জন কৃষি উদ্যোক্তাকে মৎস্য, পশুপালন এবং শস্য ও সবজি উৎপাদন বিষয়ক কারিগরি প্রশিক্ষণ এবং জৈবসার, উন্নত বীজ ও কৃষি-সংশ্লিষ্ট স্মার্ট যন্ত্র প্রদান করা হয়েছে, ১০টি নির্বাচিত কৃষক দলকে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তাচালিত ‘আরো মাছ’ ডিভাউস প্রদানের পাশাপাশি পল্লী উন্নয়ন একাডেমি বগুড়ার চর ডেভেলপমেন্ট রিসার্চ সেন্টারের সহযোগিতায় গাইবান্ধা ও লালমনিরহাটের ২৫০ একর জমিতে তামাকের বিকল্প ফসল গম ও ভূট্টা চাষের উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে।

ফম/এমএমএ/

প্রেস বিজ্ঞপ্তি | ফোকাস মোহনা.কম