মেঘনায় ট্রলার ডুবির ঘটনায় নিহত ৯ জেলের দাফন সম্পন্ন

জেলার উপজেলা সদরের ইলিশা এলাকার মেঘনা নদীতে ডুবে যাওয়া মাছ ধরার ট্রলার থেকে উদ্ধারকৃত মৃত ৯ জেলের দাফন সম্পন্ন হয়েছে।

মঙ্গলবার (১২ নভেম্বর) সকালে চরফ্যসন উপজেলার স্ব স্ব এলাকায় জানাজা শেষে ৯টার দিকে নিহতদের লাশ পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়। এর আগে সোমবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে বরিশাল জেলার মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলার রোকোনদিয়া এলাকার মেঘনা নদীর পাড় হতে ট্রলারটি’র মধ্যে থেকে ৯ জেলের মরদেহ উদ্ধার হয়।-খবর বাসস।

এছাড়া রোববার রাতে মেঘনা নদীর মধ্যে থাকা অবস্থায় ট্রলারটিতে কোষ্টগার্ডের ডুবুরিদল অভিযান চলিয়ে খোরশেদ নামের একজন জেলের মৃত দেহের খোঁজ পায়। ঐ রাতেই তার দাফন সম্পন্ন হয়।

নিহত জেলেরা হলেন, চরফ্যাসন উপজেলার আবুবকরপুরের মৃত নুরুল হকের ছেলে কামাল দালাল (৩৫), উত্তর শিবার মজিবুল হক মুন্সির ছেলে আব্বাস মুন্সি (৪৫), নুরাবাদের কাদের মোল্লা ছেলে হাসান মোল্লা ( ৩৮), উত্তর শিবার মৃত জামাল বিশ্বাসের ছেলে রফিক বিশ্বাস (৪৫), নুরাবাদের কাদের ব্যাপারীর ছেলে নুরনবী ব্যাপারী (৩০), দুলার হাটের ছলেমান মাতাব্বরের ছেলে মফিজ মাতাব্বর (৩৬), ফরিবাদারে ইয়াসিন পাটোয়ারির ছেলে নজুরুল ইসলাম (৩৫), একই এলাকার মোসলেউদ্দিন মাঝির ছেলে কবির হোসেন (৪০), আব্দুল্লাহপুরের ইসমাইল খানের ছেলে মো: বিল্লাহ (৩২)।

এদিকে সোমবার রাতেই উদ্ধার হওয়া ট্রলার ও মৃতদেহ তাদের স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়। গভীর রাতে নিহতদের লাশ তাদের নিজ নিজ বােিড়তে পৌঁছালে স্বজনরা কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন।

ভোলা কোষ্টগার্ড দক্ষিণ জোনের মাহবুবুল আলম শাকিল বাসস’কে জানিয়েছেন, মাছ ধরার ট্রলারটি চরফ্যাসন উপজেলার আব্দুল্লাহপুরের তোফায়েল মাঝির। রোববার বেলা ১১ টার দিকে চাঁদপুর থেকে মাছ বিক্রি করে চরফ্যাসনে ফেরার পথে ইলিশার জনতাবাজার খাল সংলগ্ন মেঘনায় ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের কবলে পড়ে ডুবে যায় ট্রলারটি।

তিনি বলেন, খবর পেয়ে কোষ্টগার্ড সদস্যরা ১০ জনকে জীবিত উদ্ধার করে এবং ঐ রাতে ডুবে যাওয়া ট্রলারের মধ্যে ১ জেলের লাশ পায়। সোমবার ৪টি ট্রলারের সাহায়তায় ডুবে যাওয়া ট্রলারটি পাড়ে নিয়ে যাওয়া হয়। রাত সাড়ে ১০টার দিকে সবাই মিলে ট্রলারটি উল্টালে আরো ৯ জেলের লাশ পাওয়া যায়। এ নিয়ে মোট ১০ জনের লাশ উদ্ধার হলো।

চরফ্যাসন উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা রুহুল আমিন বাসস’কে বলেন, সকাল ৯টায় নিজ নিজ কবরস্থানে নিহত ৯ জেলের দাফন সম্পন্ন হয়েছে। নিহতদের পরিবারকে উপজেলা পরিষদে ডাকা হয়েছে। বেলা ১২ টার দিকে ভোলার জেলা প্রশাসক তাদের প্রত্যেকে ২৫ হাজার টাকা করে তুলে দেবেন।

ফম/এমএমএ/

ফোকাস মোহনা.কম