মেঘনায় চলন্ত লঞ্চে সন্তান প্রসব

ছবি: সংগ্রহীত।

রাজধানী ঢাকা থেকে বরিশালগামী এমভি প্রিন্স আওলাদ-১০ লঞ্চে সন্তান জন্ম দিয়েছেন এক গৃহবধূ।

বৃহস্পতিবার (১৮ আগস্ট) দিবাগত রাত ১টার দিকে মেঘনা নদীতে চলমান লঞ্চটির ডেকে এক ধাত্রীর সহায়তায় ছেলে সন্তান জন্ম দেয় ওই গৃহবধূ।

এ তথ্য নিশ্চিত করে প্রিন্স আওলাদ লঞ্চের সুপারভাইজার হৃদয় খান জানান, ওই গৃহবধূর বাড়ি বরিশালের গুড়িয়ার পাড়ে। সাথে তার দুজন স্বজন আছেন। তবে স্বামী ছিলেন না। আমারা জেনেছি তার সন্তান প্রসবের নির্ধারিত সময় ছিল আরো ২২ দিন পরে। এই প্রস্তুতি নিয়েই মূলত তিনি স্বজনদের নিয়ে বাড়ি ফিরছিলেন। কিন্তু লঞ্চে ওঠার পরে অসুস্থ হয়ে পড়েন।

তিনি আরো জানান, ঢাকা সদরঘাট ত্যাগ করার পরে রাত সাড়ে ৯টার দিকে ওই গৃহবধূর প্রসব ব্যথা ওঠে। আমরা তাকে কেবিনে নিয়ে যেতে চেয়েছিলাম। কিন্তু সিঁড়ি বেয়ে ওপরে তোলা সম্ভব না বলে পরিবারের স্বজনরা সিদ্ধান্ত নেন ডেকে রাখতে।

হৃদয় খান বলেন, প্রথমাবস্থায় লঞ্চে কোনো ডাক্তার বা নার্স পাওয়া যাচ্ছিল না। একজন ধাত্রী সহায়তার জন্য এগিয়ে আসেন। যদিও পরে শের-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের একজন নার্সকে আমরা পাই। রাত ১টার দিকে নরমাল ডেলিভারির মাধ্যমে পুত্র সন্তানের জন্ম দেন ওই গৃহবধূ।-খবর এন শতাব্দী।

ফম/এমএমএ/

ফোকাস মোহনা.কম