মতলব উত্তরে শত্রুতার জেড় ধরে ময়লা দিয়ে ঘরবাড়ি নোংরা করার অভিযোগ

মতলব উত্তর (চাঁদপুর): চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলার রায়পুর ইসলামাবাদ গ্রামে জায়গা সংক্রান্ত মামলার শত্রুতার জেড় ধরে গাছের চারা ভেঙ্গে ফেলার অভিযোগ পাওয়া গেছে। শুধু তাই নয় রাতের আঁধারে মলমুত্র ত্যাগ করে ঘরবাড়ি নোংরা করে রাখে দুর্বিত্তরা। এমন অমানবিক ঘটনার শিকার হয়ে একটি পরিবার জিম্মি হয়ে পড়েছে এবং পরিবেশ নস্ট হচ্ছে চরমে।

ভুক্তভোগী রায়পুর ইসলামাবাদ গ্রামের (দক্ষিণ) রাজ্জাক পাটোয়ারী বলেন, আমার প্রতিবেশী সামছুল হক, মাসুদ ও আলমগীর গংদের সাথে জায়গা নিয়ে বিগত দিন ধরে মামলা চলছে। বর্তমানেও কয়েকটি মামলা চলমান আছে। আমি এরআগে কোর্টের রায় পেয়েছি। কিন্তু তারা তা না মেনে বার বার মিথ্যা মামলা করে আমাদেরকে অযথা হয়রানি করতেছে। রাজ্জাক পাটোয়ারী অভিযোগ করেন বলেন, শুধু মামলায় হয়রানি নয়, গত ৫ বছর ধরে আমার গাছ গাছালির উপর অত্যাচার চালিয়ে যাচ্ছে। রাতের আঁধারে গাছের চারা ভেঙ্গে ফেলছে। গত এক মাসে বিভিন্ন দিনে প্রায় ৪০ টির বেশি গাছের চারা ভেঙ্গেছে। এছাড়া গত ৬ মাস ধরে আরেকটি নোংরা কাজ শুরু করেছে। মলমুত্র দিয়ে রাতের আঁধারে আমার ঘরের পিড়ায়, উঠানে, রাস্তায় ও টিউবয়েল নোংরা করে দেয়। এতে করে আমার বাড়ির পরিবেশ একেবারেই নস্ট হয়ে যাচ্ছে। এভাবে আমরা প্রতিনিয়ত হয়রানির শিকার হচ্ছি। আমার ধারণা যাদের সাথে মামলা চলছে তারাই আমাকে কাগজপত্রে না পেরে এরকম নোংরা পন্থায় হয়রানি করছে। আমি আইনের কাছে সুষ্ঠু বিচার চাই।

স্থানীয় রফিক পাটোয়ারী সহ আরো কয়েকজন বলেন, আমরা বাড়ির সবাই এই টিউবয়েল থেকে পানি নিয়ে খাই। মাঝে মাঝে সকালে দেখা যায় টিউবয়েল ময়লা দিয়ে নোংরা করে রেখেছে। রাজ্জাকের ঘর ও চলার পথ সহ নোংরা করে রাখে। এগুলো কোন ভালো মানুষের কাজ না। আমরা চাই এর সুষ্ঠু সমাধান হোক।

স্থানীয় এলাকার মানুষ জানান, সামছুল হক, মাসুদ ও আলমগীর গং খুবই খারাপ লোক। মানুষের সাথে ভালো আচরণ করে না। এদিকে সামছুল হক, মাসুদ ও আলমগীর গংদের সাথে কথা বলার জন্য বাড়িতে খোঁজ করলে তাদের পাওয়া যায়নি। তবে তাদের এক নিকটাত্মীয় জানায় তারা এসব নোংরা কাজের ব্যাপারে কিছুই জানেন না।

ফম/এমএমএ/

উপজেলা করেসপন্ডেন্ট | ফোকাস মোহনা.কম