মতলব উত্তরের লুধুয়া গোহাট কাল থেকে নির্দিষ্ট স্থানে বসবে

ফাইল ছবি।

মতলব উত্তর (চাঁদপুর): চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলার ফতেপুর পুর্ব ইউনিয়নের লুধুয়া গোহাট ১৪২৯ বাংলা সনের ১লা বৈশাখ থেকে এক বছরের জন্য ইজারা দেয় উপজেলা প্রশাসন।

ইজারা পায় মধ্য লুধুয়া গ্রামের ওয়াজির আলী মিজির ছেলে মোঃ ইউসুফ। ইজারা পাওয়ার পর থেকে সরকার নির্দিষ্ট স্থান আমতলায় হাট না বসিয়ে অন্যত্র বসানো হতো। যা সম্পূর্ণ অনিয়ম।

পরবর্তীতে ইজারাদার মোঃ ইউসুফের হাট পরিচালনা করার অভিজ্ঞতা না থাকায় তিনি গত ২৮ আগস্ট একই গ্রামের মুক্তার হোসেনকে নোটারী পাবলিকের মাধ্যমে ইজারাদার বদল করে দেন। মুক্তারকে গো হাট দেওয়ার খবর পেয়ে উত্তর লুধুয়া গ্রামের লালমিয়া মোল্লার ছেলে মনির হোসেন, মোহাম্মদ আলী ও জাকির হোসেন গত ৩০ আগস্ট ইউসুফের বাড়িতে গিয়ে তাকে এবং তার স্ত্রী তানিয়া আক্তারকে হত্যার হুমকি দিয়ে ১০০ টাকার তিনটি ননজুডিশিয়াল অলিখিত ষ্ট্যাম্পে স্বাক্ষর নেয়। এ ঘটনায় চাঁদপুর বিজ্ঞ আদালতে মোঃ ইউসুফ বাদী হয়ে মনির হোসেন, মোহাম্মদ আলী ও জাকির হোসেনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন।
ইউসুফ বলেন, আমি হাট পরিচালনা করতে পারি না বিধায় কোর্টের মাধ্যমে মুক্তার হোসেনকে দিয়ে দিছি।

এটা কেন্দ্র করে মনির হোসেন সহ তারা তিনভাই আমাকে মেরে ফেলার হুমকি দিয়ে অলিখিত ষ্ট্যাম্পে স্বাক্ষর নেয়। ওই ষ্ট্যাম্প উদ্ধারের লক্ষ্যে আমি কোর্টে মামলা করেছি। আর এখন থেকে নিয়মিত প্রতি বৃহস্পতিবার আমতলা বাজারে গরুর হাট বসনো হবে।
মতলব উত্তর থানার ওসি মুহাম্মদ শাহজাহান কামাল বলেন, বিজ্ঞ আদালতের কাগজপত্র অনুযায়ী মুক্তার হোসেন আমতলা বাজারে গো হাট পরিচালনা করবে। আইন শৃঙ্খলা বজায় রাখতে সকলকে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

ফম/এমএমএ/

আরাফাত আল-আমিন | ফোকাস মোহনা.কম