মতলবে সেফটিক ট্যাংকে কাজ করতে গিয়ে ২ শ্রমিকের মৃত্যু

চাঁদপুর :  চাঁদপুরের মতলব দক্ষিণ উপজেলায় নির্মাণাধীন বাড়ির সেফটিক ট্যাংকে কাজ করার সময় শ্বাসরুদ্ধ হয়ে লিটন (৪৫) ও আশরাফ (২৭) নামে দুই শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে।

শুক্রবার (১৯ আগষ্ট) সকালে উপজেলার নারায়ণপুর বারিগাঁও গ্রামের ডিগ্রি কলেজ রোডে ভূঁইয়া হোয়াইট হাউজ এর পূর্ব পাশে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

দুপুর ১২টায় ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা নিহত দুজনের মরদেহ উদ্ধার করেন। পরে থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয় তাদের মরদেহ। মৃত লিটন মতলব দক্ষিণ উপজেলার ৩নং খাদেরগাঁও ইউনিয়নের পুটিয়া গ্রামের অলিউল্ল্যাহ বেপারীর ছেলে ও আশরাফ একই ইউনিয়নের গোয়ালগাভা গ্রামের আলী আরশাদের ছেলে।

জমির মালিক মো. আবুল বাসার বলেন, সকালে নির্মাণ শ্রমিকদের সাথে আমার মুঠো ফোনে কথা হয়। তারা সকাল ৮টায় সাটারিং খোলতে সেপটিক ট্যাংকের ভিতরে ঢুকে। আমি ঘটনাস্থলে সকাল ৯টায় এসে দেখি তারা ট্যাংকের ভিতরে অচেতন অবস্থায় পড়ে আছে। পরে আমি ৯৯৯ ফোন করে ফায়ার সার্ভিসে খবর দেই।

মতলব দক্ষিণ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মহিউদ্দিন মিয়া বলেন, শুক্রবার সকালে নারায়ণপুর বাজারের পাশে জনৈক আবুল বাশারের নির্মাণাধীন দালানের সেফটিক ট্যাংকে কাজ করছিলেন লিটন ও আশরাফ। কাজের একফাঁকে তারা দুজন ট্যাংকের ভেতরে প্রবেশ করলে তাতে লুটিয়ে পড়েন। একপর্যায়ে তাদের সাড়াশব্দ না পেয়ে বাড়ির মালিকসহ অন্যরা এগিয়ে যান। পরে মতলব দক্ষিণ ফায়ার সার্ভিস স্টেশনে উদ্ধারের জন্য সংবাদ পাঠালে সেখানে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ছুটে যান এবং লিটন ও আশরাফের নিথর দেহ উদ্ধার করা হয়।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, মৃত লিটন দালানসহ সেফটিক ট্যাংক নির্মাণের ঠিকাদারি নেন। আর তার সঙ্গে সহযোগী হিসেবে কাজ করছিলেন আশরাফ। দুর্ঘটনায় নিহতদের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে থানা পুলিশ।

ফম/এমএমএ/

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | ফোকাস মোহনা.কম