ভালো ফলাফলের জন্য অবশ্যই অভিভাবকদের অধিকতর ভূমিকা পালন করতে হবে: অধ্যক্ষ মাসুদুর রহমান

চাঁদপুর: বৃহস্পতিবার (১৯ মে) সকাল ৯ টায় চাঁদপুর সরকারি মহিলা কলেজ অডিটোরিয়ামে দ্বাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থীদের অভিভাবকদের সাথে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

কলেজ অধ্যক্ষ প্রফেসর মোঃ মাসুদুর রহমান এর সভাপতিত্বে এই মতবিনিময় সভায় বক্তব্য রাখেন উপাধ্যক্ষ প্রফেসর আবুল খায়ের খান, শিক্ষক পরিষদ সম্পাদক মোঃ ফিরোজ আলম চৌধুরী, ভূগোল বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. মোঃ মাসুদ হোসেন, পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক জীবন কানাই সাহা, গণিত বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক আবুল কালাম মোঃ রিয়াজ উদ্দিন, রসায়ন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মোহাম্মদ আফসার আলী শিকদার, ইতিহাস বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মোহাম্মদ এনামুল হক, অর্থনীতি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মোঃ মহি উদ্দিন, হিসাববিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক আবদুল মান্নান মিয়া, ব্যবস্থাপনা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক পেয়ার আহাম্মদ, বাংলা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক তাহমিনা ফেরদৌস, ইংরেজি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মোসা. আবজম খানম, দর্শন বিভাগের প্রভাষক মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান, প্রমুখ।

অভিভাবকদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন জনাব ওমর আলী, মোস্তফা কামাল, মোঃ তকদির হোসেন, মোঃ আতিকুর রহমান, মোঃ জাহিদ হাসান, প্রমুখ।

প্রাক নির্বাচনী পরীক্ষার ফলাফল উপস্থাপন করেন আইসিটি বিষয়ের প্রভাষক মোঃ আসাদুজ্জামান। অভিভাবকগন তাদের বক্তব্যে কলেজ অধ্যক্ষের এই উদ্যোগকে স্বাগত জানান এবং বলেন, “এই সভার মাধ্যমে আমরা আমাদের সন্তানদের বাস্তব অবস্থা জানতে পেরেছি। আমাদের সন্তানরা যেন ভবিষ্যতে ভালো ফলাফল করতে পারে তার জন্য আমরা সচেতন থাকবো”।

সভাপতির বক্তব্যে কলেজ অধ্যক্ষ বলেন, “চাঁদপুর সরকারি মহিলা কলেজ চাঁদপুর জেলা তথা মেঘনা পাড়ের শ্রেষ্ঠ নারী শিক্ষার বিদ্যাপীঠ। প্রতিষ্ঠান থেকে প্রতি বছর উচ্চ মাধ্যমিক পাশ করার পর বুয়েট, মেডিকেল, সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়সহ বিভিন্ন ভালো শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভর্তি হয়ে থাকে। ২০২১ সালের উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় ২৫০ জন শিক্ষার্থী জিপিএ ৫.০০ পেয়েছে। আশা করি এই শিক্ষার্থীদের উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার ফলাফল আরো ভালো হবে। শিক্ষার্থীদের ভালো ফলাফল করার জন্য অবশ্যই অভিভাবকদের অধিকতর ভূমিকা পালন করতে হবে। কোভিড-১৯ কারণে তাদের সিলেবাস সংক্ষিপ্ত করা হয়েছে এবং পরীক্ষার সময় কম প্রশ্নের উত্তর দিতে হবে। ফলে শিক্ষার্থীরা অল্প পরিশ্রমে অধিকতর ভালো ফলাফল করতে পারবে। তিনি শিক্ষার্থীদেরকে স্মার্টফোন ব্যাবহারে নিরুৎসাহিত করেন এবং নিয়মিত শ্রেণি কক্ষে উপস্থিত থাকার আহ্বান জানান। যে সকল শিক্ষার্থীরা নিয়মিত ক্লাসে উপস্থিত থাকে তারাই পরবর্তীতে ভালো শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভর্তি হতে পারে। তিনি সভায় উপস্থিত হওয়ার জন্য অভিভাবকদের ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। মতবিনিময় সভায় সকল শিক্ষক , অভিভাবক, কর্মকর্তা-কর্মচারী ও দ্বাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।

ফম/এমএমএ/

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি | ফোকাস মোহনা.কম