বিষ্ণুপুরে প্রকাশ্যে মা ইলিশ শিকার

চাঁদপুর: চাঁদপুর সদর উপজেলার বিষ্ণুপুর ইউনিয়নে চলছে প্রকাশ্যে মা ইলিশ শিকার ও ক্রয়-বিক্রয়।

বুধবার (১২ অক্টোবর) দুপুরে সরেজমিনে গিয়ে দেখাগেল এমন চিত্র। ওইসময় সেখানে ইলিশ ক্রয় করার জন্য মানুষের উপছে পড়া ভীড় দেখা যায়। পরিস্থিতির কারণে ইলিশের অস্থায়ী হাটের ছবি তোলা সম্ভব হয়নি।

খোজ নিয়ে জানাযায়, প্রতিবছর অভিযানের সময় এই এলাকায় চলে জমজমাট ইলিশ বেচাকিনা। চাঁদপুরের অন্যান্য এলাকায় অভিযানের সময় জেলেদের নিয়ন্ত্রণ করা গেলেও অভিযোগ রয়েছে এখানকার জেলেরা প্রকাশ্যে ইলিশ ধরা ও বেচাকিনা চালিয়ে যায়।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্থানীয় একাধিক ব্যক্তি জানায়, জেলেরা নৌ- পুলিশের সাথে সমন্বয় করে নদীতে নামে। বিষয়টি স্বীকার করেন ইউপি চেয়ারম্যান শামিম খান নিজেও।

তিনি বলেন, নৌ-পুলিশের সদস্য রেদওয়ানের সাথে সমন্বয় করে জেলেরা নদীতে নামে। এখানকার জেলেদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য আমিও সদর উপজেলায় লিখিত দিয়েছি। পানি বেশি থাকায় আমরা খালের মুখগুলি বন্ধ করতে পারছি না। তবে অভিযানে তেমন কোন ভূমিকা না রাখার অভিযোগ রয়েছে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ও সদস্যদের বিরুদ্ধে।

এবিষয়ে চাঁদপুর সদর নৌ- থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কামরুজ্জামান বলেন, আমরা মন্ত্রী মহোদয়ের প্রোগ্রাম নিয়ে ব্যস্ত রয়েছি। আমাদের টিম প্রতিদিনই নদীতে যাচ্ছে। তবে নৌ- পুলিশের সদস্য রেদওয়ানের বিষয়ে তিনি বলেন, আমার এরকম কিছু জানা নেই। যদি কেউ লিখত অভিযোগ করে আমরা ব্যবস্থা নিবো।
ফম/এমএমএ/

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | ফোকাস মোহনা.কম