বিদেশী রাষ্ট্রের সহযোগিতা পেলে পাচারকৃত টাকা উদ্ধার করা সম্ভব: দুদক মহাপরিচালক

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন দুদক মহাপরিচালক (ডিজি) মোঃ মাহমুদুল হোসাইন খান। ছবি: শাহরিয়া পলাশ।

চাঁদপুর : মানিলন্ডারিং এর টাকা বিদেশ থেকে ফেরত আনা প্রসঙ্গে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) মহাপরিচালক মোঃ মাহমুদুল হোসাইন খান বলেছেন, অর্থ পাচারের বিষয়টি দুদক মানি লন্ডারিং আইনে দ্রুত কার্যক্রম গ্রহন করছে। যেহেতু এই প্রক্রিয়ার সাথে বিদেশী রাষ্ট্র জড়িত। যে অর্থগুলো দেশের বাহিরে পাচার হচ্ছে সেখানে পারস্পরিক সহযোগিতা প্রয়োজন। আমরা বিদেশে রাষ্ট্রগুলোর তথ্যগত সঠিক সহযোগিতা পেলে পাচার করা টাকাগুলো উদ্ধার করা সম্ভব। আমরা সেই চেষ্টা অব্যাহত রেখেছি। আশা করছি বিভিন্ন রাষ্ট্রগুলোর সহযোগিতা পাব এবং দুদক সফলতার সাথে এগিয়ে যাবে।

রবিবার (৩ জুলাই) সকালে চাঁদপুর-রায়পুর সড়কের ওয়ারলেছ সংলগ্ন রশিদ ভবনে দুর্নীতি দমন কমিশন এর সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

মানিলন্ডারিং এর পরিসংখ্যান ও তালিকা সম্পর্কিত প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এই বিষয়ে সুনির্দিষ্ট তথ্য বলতে যেটা যখন তথ্য আসে সেটাই তালিকাভুক্ত হয়। আমি আজকে ভালো আছি, কালকে মানিলন্ডারিং করতেও পারি। এক্ষেত্রে আমরা মিডিয়া কিংবা ব্যাংকের মাধ্যমে তথ্য পাই তখন সেগুলো অন্তর্ভূক্ত হয়। নির্দিষ্ট কোন সংখ্যা নেই। এটি চলমান প্রক্রিয়া। কখন কে মানিলন্ডারিং করে এটা বলা মুশকিল।

দুদকের কার্যক্রম সম্পর্কে মহাপরিচালক বলেন, চাঁদপুর ও লক্ষ্মীপুর জেলায় উদ্বোধন হওয়া কার্যালয়ের কাজ হচ্ছে দুর্নীতি প্রতিরোধ। প্রতিকারের চাইতে প্রতিরোধই হচ্ছে প্রধান। আমরা চাই সবার মাঝে দুর্নীতিবিরোধী একটি মনোভাব গড়ে উঠুক। সবাই যাতে দুর্নীতিকে প্রশ্রয় না দেই। যারা দুর্নীতির সাথে জড়িত তাদেরকে অতিথি হিসেবে আমন্ত্রণ না জানাই এবং তাদেরকে সামাজিকভাবে বয়কট করি। এভাবেই আমাদের প্রতিরোধটা গড়ে উঠবে।

দুদক চাঁদপুর জেলা কার্যালয় ফিতা কেটে উদ্বোধন করেন মহাপরিচালক মোঃ মাহমুদুল হোসাইন খান। ছবি: শাহরিয়া পলাশ।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন চাঁদপুরের জেলা প্রশাসক (ডিসি) কামরুল হাসান। উপস্থিত ছিলেন লক্ষ্মীপুর জেলা প্রশাসক (ডিসি) আনোয়ার হোসাইন আখন্দ, চাঁদপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ ও প্রশাসন) সুদীপ্ত রায়, লক্ষ্মীপর জেলা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) আব্দুল্লাহ মোহাম্মদ শেখ সাদী, চাঁদপুর জেলা দুদক উপপরিচালক জালাল উদ্দিন আহমেদ, প্রেসক্লাব সভাপতি গিয়াস উদ্দিন মিলন, রশিদ ভবনের সত্ত্বাধিকারী আবু তাহেরসহ দুদকের অন্যান্য কর্মকর্তাবৃন্দ।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের সঞ্চালনায় ছিলেন দুদক চাঁদপুর কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মো. জয়নাল আবেদীন।

জেলা কার্যালয় উদ্বোধনের শুরুতেই জাতীয় সংগীত পরিবেশন এর সাথে জাতীয় ও দুদকের পতাকা উত্তোলন করা হয়। পরে বেলুন উড়িয়ে এবং ফিতা কেটে কার্যালয় আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন দুদক মহাপরিচালক (ডিজি) মোঃ মাহমুদুল হোসাইন খানসহ অতিথিবৃন্দ। এরপর মহাপরিচালক নতুন কার্যালয় পরিদর্শন করেন।

আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন শেষে তিনি সকলের উদ্দেশ্যে সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে বলেন, দুর্নীতি দমন কমিশন দুর্নীতিরোধে এবং দমনে কাজ করে যাচ্ছেন। দুর্নীতি দমনরোধে এবং সুশাসন প্রতিষ্ঠায় এই কার্যালয়টি ভূমিকা রাখবে। বাংলাদেশকে উন্নত রাষ্ট্রে পরিণত করার জন্য দুদক সরকারকে সহযোগিতা করছে।

ফম/এমএমএ/