বাংলাদেশের সকল উন্নয়নের সারথিই হচ্ছে আওয়ামী লীগ : নাছির উদ্দিন আহমেদ

প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগের আলোচনা সভা

চাঁদপুর: বাংলাদেশের সবচেয়ে প্রাচীন, ঐতিহ্যবাহী এবং গণমানুষের রাজনৈতিক দল বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের গৌরবোজ্জ্বল ৭৩ বছর পূর্তি উদযাপন উপলক্ষে চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগের কেক কাটা, দোয়া ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২৩ জুন) বিকালে চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে এসব অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্য রাখেন চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব নাছির উদ্দিন আহমেদ।

তিনি বক্তব্যে বলেন, আওয়ামী লীগের জন্মই হয়েছিলো এদেশে মানুষে অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্যে। এ আওয়ামী লীগকে বিছিন্ন করার জন্যে চেষ্টা চলছিলো। যখন এধরণের চেষ্টা চলেছে তখনই আওয়ামী লীগ সমহিমায় আবির্ভূত হয়েছিল। বঙ্গবন্ধুর হাতে গড়া দল। এদেশের মানুষের ঠিকানা দেয়ার দল। বঙ্গবন্ধুর হত্যার মাধ্যমে এদেশে মানুষের অধিকার হত্যা করা হয়েছিল। বর্তমানে তাঁরই সুযোগ্য কন্যার হাত ধরে বাংলাদেশ এগিয়ে চলছে। বাংলাদেশের সকল উন্নয়নের সারথিই হচ্ছে আওয়ামী লীগ। আমরা যারা আওয়ামী লীগ করি তাদের আজ আনন্দের দিন। জননেত্রী শেখ হাসিনাই আমাতের নেতা। সকল দ্বিধাদ্বন্দ্ব ভুলে গিয়ে আমাদের ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।

তিনি বলেন, নির্বাচনে অংশগ্রহণ করা সবার অধিকার।কিন্তু গণতান্ত্রিক নির্বাচনকে ব্যাহত করার চেষ্টা করবেন। বিএনপি নির্বাচনে আসুক বা না আসুক গণতান্ত্রিক ভাবে এদেশে নির্বাচন হবে।

প্রধান বক্তার বক্তব্যে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা আবু নঈম পাটওয়ারী দুলাল বলেন, আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে অনেক ষড়যন্ত্র চলছে। আমরা কারো কাছে মাথা নত করার নয়। চাঁদপুরে আমরা কোন অন্যায়কে পশ্রয় দিবো না। আদর্শ ও গঠনতন্ত্র মূলক দল চলতে হবে। জাতির পিতার আদর্শের রাজনীতি করতে চাই। নতুন প্রজন্ম জানবে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ কি। রাজনীতি আদর্শ ও গঠনতন্ত্র মোতাবেক করতে হবে। ব্যক্তিগত কোন বলয় সৃষ্টি করতে দেওয়া হবে। পদ্মা সেতু দেশে ও জাতির জন্য মহাকর্মজ্ঞ। দেশ ও জাতির কাছে তা তুলে ধরতে হবে। সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে দলকে এগিয়ে নিয়ে যেতে হব।

জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. জহিরুল ইসলাম চৌধুরী’র সঞ্চালনায় আরো বক্তব্য রাখেন, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার আব্দুর রব ভূঁইয়া, সন্তোষ দাস, আব্দুর রশিদ সর্দার, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আহসান উল্লাহ আখন্দ, শ্রম বিষয়ক সম্পাদক নুরুল ইসলাম মিয়াজি, তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট বিনয় ভূষণ মজুমদার, দপ্তর সম্পাদক শাহআলম মিয়া, আইন বিষয়ক সম্পাদক অ্যাড. রুহুল আমিন সরকার, স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডা. হারুনুর রশিদ সাগর, সদস্য অ্যাড. বদিউজ্জামাল কিরন, খালেদুর রহমান মিঠু, সাবেক শ্রম বিষয়ক সম্পাদক রফিকুল ইসলাম, সদস্য আব্দুল ওহাব তপাদার, অ্যাড. জসিম উদ্দিন পাটওয়ারী, জেলা যুব লীগের আহবায়ক আলহাজ্ব মিজানুর রহমান কালু ভূঁইয়া, পৌর আওয়ামী লীগের কৃষি বিষয়ক সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম ভূঁইয়া, শ্রমিক লীগের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক ওহিদুল ইসলাম প্রধানীয়া, জেলা কৃষক লীগের পক্ষে আব্দুল হান্নান সবুজ, জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের পক্ষে রেনু বেগম জেলা মৎসজীবি লীগে সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মালেক দেওয়ান, স্বেচ্ছাসেবক লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি অ্যড. লিটু, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাসুদুর রহমান, প্রাক্তন ছাত্রনেতার পক্ষে আক্তার পাটওয়ারী, ছাত্রনেতা সুমন মজুমদার প্রমূখ।

দোয়া পরিচালনা করেন বাইতুল আমিন জামে মসজিদের ইমাম মুফতি জাফর আহমেদ।

এরআগে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে সকাল সাড়ে ৭টায় দলীয় কার্যালয় সম্মুখে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন করা হয় এবং সকাল ৮টায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এঁর প্রতিকৃতিতে জেলা আওয়ামী লীগসহ অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দরা পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন।

ফম/এমএমএ/এস.পলাশ/

শাহরিয়া পলাশ | ফোকাস মোহনা.কম