ফ্রান্সে খরা, বিভিন্ন শহরে পানির সংকট

ফ্রান্সে ভয়াবহ খরার প্রভাবে শতাধিক পৌরসভায় পানির সংকট দেখা দিয়েছে। সংকট সমাধানে ফরাসি সরকার একটি দল গঠন করেছে। বিবিসি জানিয়েছে, পানির সমস্যা দূর করতে ওই সব এলাকায় ট্রাকে করে পানি পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে।

ইকোলজিক্যাল ট্রান্সজিশন মন্ত্রী ক্রিস্টোফি বেচু বলেন, পানি প্রবাহিত পাইপগুলোতে কোনো পানি অবশিষ্ট নেই।

দেশটির প্রধানমন্ত্রী কার্যালয় থেকে বলা হয়েছে, ফ্রান্সে খরা ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে। ৯৩টি এলাকায় পানি ব্যবহারে সতর্কতা জারি করা হয়েছে। এ সমস্যা আগামী দুই সপ্তাহ অব্যাহত থাকতে পারে।

এএফপি জানিয়েছে, ফ্রান্সের রাষ্ট্রীয় বিদ্যুৎ কম্পানি অতিরিক্ত গরমের কারণে পরমাণু বিদ্যুৎকেন্দ্রের উৎপাদন কমিয়ে দিয়েছে। নদীর পানির তাপমাত্রা বেড়ে যাওয়ার কারণে সমস্যা দেখা দেওয়ায় তারা এমন সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে।

ফ্রান্সে যেভাবে খরা শুরু হয়েছে তাতে তা পুরো অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়তে পারে। এর ফলে চাষাবাদে সমস্যা দেখা দিতে পারে। ফলে খাদ্যশস্যের দাম আরো বেড়ে যেতে পারে। অন্যদিকে রাশিয়া ও ইউক্রেনের মধ্যে যুদ্ধের কারণে এমনিতেই বিশ্বে খাবারের দাম অনেক বেড়েছে।

জুন থেকে ফ্রান্সে এত বেশি দাবদাহ চলছে যে গাছের পাতাগুলো কুঁকড়ে গেছে। দেখলে মনে হবে দেশটিতে শরৎকাল ‍শুরু হয়েছে।

এ বছরের জুলাইয়ে ফ্রান্সে মাত্র ৯.৭ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। যা ১৯৬১ সালের পর সবচেয়ে কম বৃষ্টিপাত। পানিসংকটের কারণে ফ্রান্সের উত্তর-পশ্চিম এবং দক্ষিণ-উত্তর অঞ্চলে সেচ কাজ বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

সূত্র : বিবিসি

ফোকাস মোহনা.কম