ফরিদগঞ্জে ভেজাল আইসক্রীম বিক্রি, মালিকের কারাদন্ড: কারখানা সীলগালা

ছবি: সংগ্রহীত।

ফরিদগঞ্জ (চাঁদপুর): চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জে অনুমোতি ছাড়া নোংড়া পরিবেশে, কাপড়ের রং মিশিয়ে আইসক্রীম তৈরী ও ভেজাল এবং মেয়াদহীন আইসক্রীম বিক্রি করায় কারখানার মালিক রাসেল আহম্মেদকে ৩ মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমান আদালত। একই সাথে কারখানাটি সীলগালা করে দেয়া হয়।

শুক্রবার (১৫ জুলাই) দিনগত রাত সাড়ে ৯টায় ফরিদগঞ্জ বাজারে ভ্রাম্যমান আাদলত পরিচালনা করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তাসলিমুন নেছা। পুলিশ কারাদন্ডপ্রাপ্ত কারখানা মালিক রাসেলকে চাঁদপুর কারাগারে প্রেরন করে।

অভিযান চলাকালে রাসেল আইসক্রিম কারখানা থেকে বিপুল পরিমানের মেয়াদ উত্তীর্ণ আইসক্রিম, কাপড়ের রং ও বিভিন্ন অনুমোদনহীন ক্যামিকেল সামগ্রী উদ্ধার করা হয়। উদ্ধারকৃত সামগ্রীগুলো উপস্থিত পুলিশ সদস্য ও গনমাধ্যম কর্মীদের সামনে গাড়ীর চাকা দিয়ে ধ্বংস করা হয়।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) তাসলিমুন নেছা বলেন, কারখানার মালিক রাসেল বেআইনিভাবে আইসক্রিম কারখানাটি পরিচালনা করে আসছেন। তিনি নোংড়া পরিবেশ, লাইসেন্সস বিহীন, কাপড়ের রং মিশিয়ে আইসক্রিম তৈরি ও ভেজাল এবং মেয়াদ উত্তীর্ণ আইসক্রিম বিক্রি ও উৎপাদন করে আসছেন। এসব অপরাধে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইনে ২০০৯ এর ৪১ ধারা মোতাবেক তাকে ৩ মাসের কারাদন্ড এবং কারখানাটি সিলগালা করে দেওয়া হয়েছে।

অভিযানে ফরিদগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) নাছির হোসেন ও পুলিশ সদস্যরা সার্বিক সহযোগিতা করেন। জন্বস্বার্থে এই ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে জানান নির্বাহী কর্মকর্তা।
ফম/এমএমএ/

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | ফোকাস মোহনা.কম