ফরিদগঞ্জের পাইকপাড়া ইউপি নির্বাচনে বিএনপির ৩ প্রার্থী, দ্বিধায় নেতাকর্মীরা

ফরিদগঞ্জ(চাঁদপুর) : এই সরকারের অধীনে বিএনপি কোন ধরনের নির্বাচন না করার অঙ্গীকার করলেও অনেকেই তা মানছেন না। এর সর্বশেষ উদাহরণ চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জ উপজেলার পাইকপাড়া দক্ষিণ ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন।

আগামী ৮ নভেম্বর ইভিএম এর মাধ্যমে অনুষ্ঠেয় নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে তিনজন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন । স্বতন্ত্রের আড়ালে তারা নির্বাচন করছেন। এরা হলেন, ইউনিয়ন বিএনপির বর্তমান সভাপতি ফারুক আহমেদ, সাবেক সভাপতি ও সাবেক চেয়ারম্যান হুমায়ুন কবির কাজী, বিএনপি নেতা ইকবাল হোসেন পিন্টু কাজী। তাদের নির্বাচন করা নিয়ে চলছে আলোচনা সমালোচনা।
বিএনপির সমর্থক ও কর্মীরা অনেকেই দ্বিধাবিভক্ত তাদের নির্বাচন নিয়ে। কেউ কেউ বলছেন বিএনপি প্রতীকে নির্বাচনে না গিয়ে কৌশলে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছেন। তাহলে বিএনপির প্রার্থী কাকে সমর্থন করবো ও ভোট প্রদান করবো। এদিকে শনিবার (১২ নভেম্বর) চাঁদপুরে বিএনপির কেন্দ্রীয় ও জেলার নেতারা কুমিল্লার বিভাগীয় সম্মেলনকে সামনে রেখে একত্রিত হচ্ছে। সেই সভায় নির্বাচনের বিষয়টি উঠতে পারে বলে ধারনা করছে নেতাকর্মীরা।

বিষয়টি নিয়ে ইউনিয়ন বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মোক্তার আহমেদ খন্দকার বলেন, ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি ফারুক আহমেদ দলের আদর্শ ও নিদের্শনা না মেনে যদি নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেন তবে তার দায়িত্ব ইউনিয়ন বিএনপি নিবে না। বিএনপি তার সাংগঠনিক নিয়েমে চলবে। আশা করছি, উপজেলা বিএনপির সভাপতি ও সম্পাদক এই ব্যাপারে ভুমিকা গ্রহণ করবেন। তবে আমি আমার কথা বলতে পারি, এই নির্বাচনে আমার কোন সম্পৃক্ততা থাকবে না । আশা করি ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড বিএনপির সম্পৃক্ত হবে না।
উপজেলা বিএনপির সভাপতি শরীফ মোহাম্মদ ইউনুছ বলেন, দল নির্বাচনে যাচ্ছে না। কেউ নির্বাচনে যায় তাহলে তার বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এব্যাপারে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারী স্বতন্ত্র ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি ফারুক আহমেদ বলেন, আমি নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে অংশ গ্রহণ করছি। দল নির্বাচনে যাচ্ছে না, তবে এর পুর্বেও নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেছি। জনগণ আমাকে চায় তাই আমি আবার পুনরায় প্রার্থী হয়েছি।

আরেক প্রার্থী সাবেক চেয়ারম্যান হুমায়ুন কবির কাজী বলেন, আমি দলের কোন পদে নেই। তবে বিগত নির্বাচনে সরকারি দল আমর জয় ছিনিয়ে নিয়েছে। মামলা করার পর জনগণের অনুরোধে মামলা প্রত্যাহার করে নির্বাচনী লড়াইয়ে নেমেছি। তবে ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি যদি দলীয় প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করে তবে আমি তাকে সমর্থন দিবো।

ফম/এমএমএ/

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | ফোকাস মোহনা.কম