প্রেমিকাকে উঠিয়ে নিতে এসে আটক ১০

প্রেমিকার অন্যত্র বিয়ে ঠিক হওয়ার খবর শুনে দলবলসহ তাকে বাড়ি থেকে উঠিয়ে আনতে গিয়েছিলেন আশিক। এসময় প্রেমিকার বাড়ির লোকজনের চিৎকারে এলাকাবাসীরা জড়ো হয়ে আশিকের ১০ সহযোগিকে আটক করে পুলিশে দিয়েছে। তবে, ঘটনাস্থল থেকে পালিয়েছে আশিক ও তার অন্য সহযোগিরা।

বৃহস্পতিবার রাতে ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলার রামগোপালপুর ইউনিয়নের দামগাঁও গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। ১০ জনকে আটক করার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন গৌরীপুর থানার এসআই মো. জামাল উদ্দিন। তিনি জানান, আশিকের নেতৃত্বে এক দল যুবক বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে ওই মেয়ের বাড়িতে হানা দেয়। এসময় এলাকাবাসী ধাওয়া দিয়ে ১০ জনকে আটক করে পুলিশে দেয়। তাদের জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। এখন পর্যন্ত এ ব্যাপারে কোন মামলা হয়নি।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বৃহস্পতিবার রাতে একদল যুবক দেশীয় অস্ত্রসস্ত্র নিয়ে ওই কলেজ ছাত্রীর বাড়িতে হানা দিয়ে তাকে অপহরণ করে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। এ সময় প্রতিবেশীরা তার চিৎকারে ছুটে আসে এবং চারদিক ঘেরাও করে অপহরণে জড়িত ১০ জনকে আটক করেছে। তবে অপহরণে নেতৃত্বদানকারী আশিকসহ অন্যরা পালিয়ে যায়।

রামগোপালপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল আমিন জনি জানান, মেয়েটির সঙ্গে ধুরুয়া রামনাথপুর গ্রামের খাইরুল ইসলামের পুত্র আশিক নামের এক ছেলের প্রেমের সম্পর্ক রয়েছে বলে জানা গেছে। মেয়েটির অন্যত্র বিয়ে দেয়া হচ্ছে এমন খবরের ভিত্তিতে ওই ছেলে তার লোকজন নিয়ে মেয়েকে বাড়ি থেকে উঠিয়ে নিয়ে যেতে চেয়েছিলো।

নিউজ ডেস্ক | ফোকাস মোহনা.কম