প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কোন বিকল্প নেই : মনজুর আহমেদ

মোহনপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ইফতার মাহফিল ও দোয়া

ছবি: ফোকাস মোহনা.কম

মতলব উত্তর (চাঁদপুর): চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলার মোহনপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ ও সহযোগী অঙ্গ সংগঠনের উদ্যোগে এবং কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের ধর্ম বিষয়ক উপ-কমিটির সদস্য ও দৈনিক সংবাদ সারাবেলা পত্রিকার সম্পাদকমণ্ডলীর সভাপতি, মোহনপুর পর্যটন লিঃ এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক কাজী মিজানুর রহমান এর সার্বিক ব্যবস্থাপনায়  ইফতার মাহফিল ও দোয়া অনুষ্ঠিত  হয়েছে।

শনিবার (৩০ এপ্রিল ) বিকেলে মোহনপুর পর্যটন লিঃ এর দ্যা শিপ ইন রেস্টুরেন্টে অনুষ্ঠিত ইফতার মাহফিল ও দোয়া অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চাঁদপুর জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি ও মতলব উত্তর উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মোঃ মনজুর আহমেদ ৷

প্রধান অতিথির বক্তব্যে মনজুর আহমেদ বলেন, আজকে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর কন্যা, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকার ক্ষমতায় আছে বলেই দেশজুড়ে শুধু উন্নয়ন আর উন্নয়ন দেখা যাচ্ছে। আমাদের নেত্রী হচ্ছে উদার, সবাইকে নিজের সন্তানের মতো ভালো বাসেন। প্রধানমন্ত্রী  শেখহাসিনার কোন বিকল্প নেই। আপনারা শুধু আমাদের নেত্রী মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখহাসিনার জন্য দোয়া করবেন। তিনি বেঁচে থাকলে আপনারা ভালো থাকবেন এবং দেশের উন্নয়ন হবে।

তিনি বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী  কোন বেয়াদবকে পছন্দ করেননা। কেউ দলের সিনিয়র নেতৃবৃন্দের সাথে বেয়াদবী করবেননা ৷ সবাই দলের নিয়ম শৃঙ্খলা বজায় রাখবেন ৷

তিনি বলেন, কাজী মিজান মোহনপুর পর্যটন গড়ে তুলে বহুলোকের কর্মসংস্থানের  সুযোগ সৃস্টির মাধ্যমে মতলবে এক দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন  শুধু তাই নয় মোহনপুরসহ মতলবে আওয়ামীলীগকে শক্তিশালী করার লক্ষেও কাজ করছেন  তিনি ৷ আপনারা সবাই কাজী মিজানুর রহমানের জন্য দোয়া করবেন ৷

মোহনপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি আব্দুল হাই প্রধানের সভাপতিত্বে ও দৈনিক সংবাদ সারাবেলা পত্রিকার নির্বাহী সম্পাদক, মতলব উত্তর থানা যুবলীগের সদস্য ও মোহনপুর পর্যটন লিঃ এর পরিচালক কাজী হাবিবুর রহমানের সঞ্চালনায়  ইফতার মাহফিল ও দোয়া অনুষ্ঠানের সার্বিক ব্যবস্থাপক কেন্দ্রীয় আওয়ামী ‘লীগের ধর্ম বিষয়ক উপ-কমিটির সদস্য এবং দৈনিক সংবাদ সারাবেলা পত্রিকার সম্পাদকমণ্ডলীর সভাপতি, মোহনপুর পর্যটন লিঃ এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক কাজী মিজানুর রহমান  বলেন, শেখ হাসিনা একজন খাঁটি মুসলমান। তিনি নিজে অত্যন্ত ধার্মিক। আমাদের পরম সৌভাগ্য যে আমাদের দেশের প্রধানমন্ত্রী একজন অত্যন্ত ধার্মিক এবং দেশপ্রেমিক।

কাজী মিজানুর রহমান বলেন, রমজান আমাদের আত্মশুদ্ধির অন্যতম হাতিয়ার। রমজান মাসের শিক্ষা কাজে লাগিয়ে আমাদের সমাজ থেকে সবধরনের পাপাচার বিতাড়িত করতে হবে। মহতী উদ্যোগ এবং কর্মের মাধ্যমে মানুষের মাঝে বেঁচে থাকার জন্য সবাইকে প্রয়াস চালাতে হবে। দেশকে দুর্নীতিমুক্ত রাখতে এবং শেখহাসিনার হাতকে শক্তিশালী করার লক্ষে সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে ৷

কাজী মিজান আরও বলেন, “বছর ঘুরে আবার এসেছে পবিত্র ঈদুল ফিতর। ‘ও মন রমজানের ঐ রোজার শেষে এলো খুশির ঈদ/তুই আপনাকে আজ বিলিয়ে দে, শোন আসমানী তাগিদ’ ৷  আমি স্বাগত জানাই পবিত্র ঈদুল ফিতরকে।

“আমি বাংলাদেশের জনগণসহ বিশ্ববাসীকে পবিত্র ঈদুল ফিতরের আন্তরিক শুভেচ্ছা জানাচ্ছি। ঈদ মোবারক।”

পবিত্র ঈদ উল ফিতর উপলক্ষে গভীর শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করেন সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে। শ্রদ্ধা জানান জাতীয় চার নেতার প্রতি। স্মরণ করেন মুক্তিযুদ্ধের ৩০ লাখ শহীদ এবং দুই লাখ নির্যাতিত মা-বোনকে। সকল বীর মুক্তিযোদ্ধার প্রতিও শ্রদ্ধা জানান  কাজী মিজানুর রহমান।
অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, মতলব উত্তর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোতাহার হোসেন খান সুফল, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও গজরা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শহীদুল্লাহ প্রধান, থানা আওয়ামীলীগের সহসভাপতি সিরাজুল ইসলাম লস্কর, সদস্য রাধেশ্যাম সাহা চান্দু বাবু, ফতেপুর পশ্চিম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নুর মোহাম্মদ, বাগানবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল- মামুন, উপজেলা কৃষকলীগের সাধারণ সম্পাদক জিএম ফারুক, জেলা যুবলীগের সদস্য গাজী শাখাওয়াত হোসেন, মোহনপুর ইউপি আওয়ামীলীগ নেতা ফজলুল হক সরকারসহ আওয়ামীলীগ, যুবলীগ ও অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ ৷

ইফতার ও দোয়া অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, মোহনপুর ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি বিল্লাল হোসেন তপদার, সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন জয়, সাংগঠনিক সম্পাদক কাজী মতিন, যুবলীগ নেতা কাজী আনোয়ার হোসেনসহ জেলা ও থানা পর্যায়ের আওয়ামীলীগ ও অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ ৷

ফম/এমএমএ/

আরাফাত আল-আমিন | ফোকাস মোহনা.কম