প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কোন অপরাধিকে ছাড় দেয় না : দুলাল পাটওয়ারী

লক্ষীপুর মডেল ইউনিয়নের পূর্ব রামদাসদীর প্রতিবন্ধী অসহায় শাহিন কে একটি নতুন পাঁকা ঘরের ব্যবস্থা 

চাঁদপুর: চাঁদপুর সদর উপজেলার ১০ নং লক্ষীপুর মডেল ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ড পূর্ব রামদাসদীর প্রতিবন্ধী অসহায় শাহিন কে চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব আবু নঈম পাটওয়ারী  দুলাল নিজের সার্বিক সহযোগিতায় একটি নতুন পাকা ঘরের ব্যবস্থা করে দেন।
বৃহস্পতিবার (২০ অক্টোবর) বিকেলে সেই নির্মাণাধীন ঘরের সার্বিক খোঁজ খবর নিতে পরিদর্শন করতে যান চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা আবু নঈম পাটওয়ারী দুলাল।  সেখানে উপস্থিত দলীয় নেতাকর্মী এবং এলাকা বাসীর উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, চাঁদপুর সদর উপজেলার অধীনস্থ ১৪ টি ইউনিয়নের মধ্যে সবচাইতে চাঁদপুর সদর ১০ নং লক্ষীপুর মডেল ইউনিয়নের এলাকার নেতাকর্মীরা নির্মম নির্যাতনের শিকার ভূমিদস্যু বালু খেকোদের হাতে। তবু মনে রাখবেন আজ থেকে আর এই বালু খেকো মানুষের জায়গা সম্পদ জোর করে লুটপাটকারি ভূমিদস্যু চাঁদাবাজরা আর এই এলাকায় মাথা চাড়া দিয়ে উঠতে পারবে না। জননেত্রী শেখ হাসিনা কোন অপরাধি কে ছাড় দেয় না। আইন চলে আইনের সঠিক গতিতে, বাঘে ধরলে ছাড়ে জননেত্রী শেখ হাসিনা যাকে ধরে তার কোন প্রকারী ছাড় নাই তার প্রমাণ আপনারা ইতিমধ্যে পেয়ে গেছেন।
তিনি আরো বলেন, ইনশাল্লাহ আজকে আপনাদের ইউনিয়নে দ্বিতীয়বারের মতো একটি প্রতিবন্ধীকে নতুন ঘর নির্মাণ করে দিতে পেরে নিজেকে আরও সৌভাগ্যবান মনে করছি। মানবিক কাজে উৎসাহ পেয়েছি, আপনাদের এলাকাবাসীর মধ্যে কেউ যদি ঘর করতে পারেন না, এমন কোন ব্যক্তি যদি থাকেন তাহলে আমার সাথে যোগাযোগ করবেন আমি তার ব্যবস্থা করব। আমার পিতা মরহুম আব্দুল করিম পাটোয়ারী তিনি  শিখিয়েছেন আমাকে কিভাবে সাধারণ মানুষের পাশে দাঁড়াতে হয়। আমার সুযোগ্য পিতার নির্দেশিত পথে জননেত্রী শেখ হাসিনার দোয়া নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছি মানুষের কল্যাণে। দলের তৃণমূল নেতাকর্মীরা অভিমানী হয় বেইমানি করতে জানে না, তার প্রমান আমরা পেয়েছি। মনে রাখবেন আপনাদের পাশে আছি, ছিলাম, থাকবো, প্রতিটি ক্ষেত্রে আপনাদের ত্যাগের এবং নির্যাতনের মূল্যায়ন করা হবে।
দুলাল পাটওয়ারী বলেন, যতদিন মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামীন হায়াতে বাঁচিয়ে রাখেন, যেমনিভাবে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ডাকে সাড়া দিয়ে নিজের জীবনকে বাজি রেখে অস্ত্র হাতে নিয়ে যুদ্ধে জাতীয় পড়েছিলাম এখন আবার সময় এসেছে বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে মানবতার কাজে সকল দুর্যোগে দুঃসময়ে মানুষের পাশে নিজের জীবনকে বাজি রেখে উৎসর্গ করে দেব,আপনারা শুধু  শেখ হাসিনার জন্য একটু দোয়া করবেন, মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামিন তাকে যেন সুস্থ রাখে, দীর্ঘ নেক হায়াত দান করেন।
এই সময় উপস্থিত ছিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা শহীদ ভূঁইয়া,বীর মুক্তিযোদ্ধা রওশন আলী বেপারী, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি ইউনুস জমাদার, সদর উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহ্বায়ক শফিকুর রহমান গাজী, ১০নং লক্ষীপুর মডেল ইউনিয়ন পরিষদের ৪নং ওর্ডারের সাবেক মেম্বার নান্নু হাজী,৭ নং ওয়ার্ডের সাবেক মেম্বার জলিল বেপারী, ৮ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি সেলিম খান, ৮ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সজল খান, আওয়ামীলীগ নেতা শাহজাহান বরকন্দাজ
লক্ষীপুর মডেল ইউনিয়ন যুবলীগের সাবেক সভাপতি ও বর্তমান ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি শফিকুর রহমান বেপারীসহ আওয়ামী লীগ যুবলীগ ছাত্রলীগ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের দলীয় নেতাকর্মীসহ এলাকাবাসী।
ফম/এমএমএ/

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | ফোকাস মোহনা.কম