প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে ছাত্রলীগের বছরব্যাপী কর্মসূচি ঘোষণা

ছবি: সংগ্রহীত।

‘ডিজিটাল বাংলাদেশ দৃশ্যমান, লক্ষ্য এবার ‘স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণ’- এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে ৭৫ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে বছরব্যাপী কার্যক্রম ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ।

মঙ্গলবার (৩ জানুয়ারি) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মধুর ক্যান্টিনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এই কর্মসূচি ঘোষণা করেন সংগঠনটির সভাপতি সাদ্দাম হোসেন।-বাসস।

বছরব্যাপী কর্মসূচির মধ্য রয়েছে: আগামীকাল ৪ জানুয়ারি সকাল ৬টায় কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন। সকাল সাড়ে ৮টায় ধানমন্ডিতে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন, সকাল ৯টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কার্জন হলে কেক কেটে প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন ও বিকেল ৩টায় শীতার্তদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ।

৬ জানুয়ারি দুপুর আড়াইটায় প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী শোভাযাত্রা, ৫ থেকে ৮ জানুয়ারি প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে রক্তের গ্রুপ নির্ণয়, স্বেচ্ছায় রক্তদান ও সংগৃহীত রক্ত এবং শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষা উপকরণ বিতরণ।

এছাড়া পরবর্তী কর্মসূচিগুলো সুবিধাজনক সময়ে অনুষ্ঠিত হবে বলে জানান সাদ্দাম হোসেন। এসকল কর্মসূচির মধ্য রয়েছে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে দেশের ওয়ার্ড পর্যায় পর্যন্ত অনাবাদি জমিতে শাক-সবজি, ফল চাষ, মাছ ও গৃহপালিত পশুপালন ইত্যাদি উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়। প্রগতিশীল ছাত্র সংগঠনের নেতাদের সঙ্গে স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণে ঐক্যবদ্ধ ছাত্রসমাজ শীর্ষক মতবিনিময় সভা পরিচালনা, কনসার্ট ফর স্মার্ট বাংলাদেশ আয়োজন, বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ৭৫তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পুনর্মিলনীর আয়োজন করা।

এছাড়াও কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে ছাত্রলীগের গৌরব, ঐতিহ্য, সংগ্রাম ও সাফল্যের ৭৫ বছর শীর্ষক স্মারক গ্রন্থ প্রকাশ, স্মার্ট বাংলাদেশ আইডিয়া কনটেস্ট আয়োজন, সব সাংগঠনিক ইউনিটের দলীয় কার্যালয়ে লাইব্রেরি প্রতিষ্ঠা, উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষার্থীদের নিয়ে দেশব্যাপী বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়তে স্মার্ট বাংলাদেশের প্রাসঙ্গিকতা শীর্ষক প্রতিযোগিতা ও জাতীয়ভাবে ‘স্মার্ট ইয়ুথ ক্যাম্প’ আয়োজন, শেখ হাসিনার উন্নয়ন অগ্রযাত্রা নিয়ে ‘শর্ট ফিল্ম প্রতিযোগিতা’ আয়োজন।

এছাড়া বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ে ‘ডেভেলপমেন্ট কুইজ’ আয়োজন, নারী শিক্ষার্থীদের নিয়ে নারীর ক্ষমতায়ন ও শেখ হাসিনা’ শীর্ষক বক্তব্য প্রতিযোগিতা, সজিব ওয়াজেদ জয় প্রোগ্রামিং কনটেস্ট’ আয়োজন, ‘স্মার্ট বাংলাদেশ’ ও ‘স্মার্ট ক্যাম্পাস’ এর ওপর আন্তর্জাতিক একাডেমিক কনফারেন্স, ‘স্মার্ট বাংলাদেশ’ অলিম্পিয়াড, দেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের পুরস্কারপ্রাপ্ত মেধাবী শিক্ষার্থীদের সঙ্গে চা চক্র এবং স্মার্ট বাংলাদেশ: আওয়ার কান্ট্রি, আওয়ার ড্রিম’ শীর্ষক পোস্টার প্রেজেন্টেশন কর্মসূচির ঘোষণা করা হয়।

ছাত্রলীগের সভাপতি সাদ্দাম হোসেন আনুষ্ঠানিকভাবে এসব কর্মসূচি ঘোষণা করেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ ওয়ালী আসিফ ইনান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি মাজহারুল কবীর শয়ন, সাধারণ সম্পাদক তানভীর হাসান সৈকত, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি রাজিবুল ইসলাম বাপ্পী ও সাধারণ সম্পাদক সজল কুন্ডু প্রমুখ।

১৯৪৮ সালের ৪ জানুয়ারি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান উপমহাদেশের ঐতিহ্যবাহী ছাত্র সংগঠন ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠা করেন। পরে এটি আওয়ামী লীগের ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠন হিসেবে পরিচিতি পায়।

ফম/এমএমএ/

ফোকাস মোহনা.কম