প্রতিপক্ষের বাঁধায় ঘর মেরামত করতে পারছেনা অসহায় পরিবার

চাঁদপুর:  সম্পত্তিগত মামলায় আদালতের রায় পেয়েও ঘর নির্মাণ করতে পারছেনা ভুক্তভোগী মো. মোহসীন শেখ। চাঁদপুর পৌরসভার ১১নং ওয়ার্ডের মধ্য ইচলী মুক্তিযোদ্ধা মালেক সড়কে ঘটনাটি ঘটে।

এঘটনায় গত ২৫ অক্টোবর মৃত রুস্তুম শেখের ছেলে মো. মোহসীন শেখ চাঁদপুর সদর মডেল থানায় মো. জসিম শেখ, ইদ্রিছ হাওলাদার, খোদেজা বেগমের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত ৪/৫ জনের বিরুদ্ধে একটি অভিযোগ দায়ের করে। যার নং -১৫৯২।

অভিযোগের সূত্রে জানা যায়, জসিম শেখ, ইদ্রিছ হাওলাদার, খোদেজা বেগম উৎশৃঙ্খল, অত্যচারী, দখলবাজ, ভূমি আত্মসাৎকারী ও আইন অমান্যকারী। তারা সকলে একই বাড়ির বাসিন্দা। বিভিন্ন সময় জোর পূর্বক মহসীনের সম্পত্তি দখল করার চেষ্টা করে আসছে। সম্পত্তিতে বসবাসকৃত ঘর পুরাতন হয়ে ঝুঁকিপূর্ণ হওয়ায় তা ভেঙ্গে নতুন ভাবে নির্মাণ করতে গেলে জসিম শেখ উক্ত সম্পত্তি তাদের দাবী করে মামলা করে। আদালত কাগজপত্র পর্যালোচন করে মামলাটি খারিজ করে দেয়। পরে উক্ত সম্পত্তিতে ঘর নির্মাণ করতে গেলে বিভিন্ন লোকজন নিয়ে জসিম বাঁধা প্রদান ও হামলা করে। এ বিষয়ে অনেকবার এলাকার গন্যমান্য ব্যাক্তিবর্গকে অবহিত করলেও জসিমরা কাউকে তোয়াক্কা করেনা।

মহসিন শেখ জানায়, জসিম শেখ আমাদের বিরুদ্ধে চাঁদপুর অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রট  আদালতে মামলা দায়ের করেন। যার নং- ৮০৯/২০২২। তবে মামলাটি আদালত পর্যালোচনা করে মামলাটি খারিজ করে দেয় এবং উক্ত সম্পত্তি থেকে অস্থায়ী স্থিতিবস্থা প্রত্যাহার করে নথিজাত করে। প্রতিপক্ষরা এরপরও একেরপর এক থানায় মিথ্যা অভিযোগ ও স্থানীয় কিছু লোকজনকে ম্যানেজ করে আমাদেরকে হয়রানি করছে।

তিনি আরও জানান, গত ১৫ অক্টোবর সকাল ১০টায় আমাদের সম্পত্তি পুনরায় কাজ করতে গেলে  লোকজন নিয়ে তারা বাঁধা প্রদান করে এবং অকথ্য ভাষায় গালমন্দ করে মারধর করার চেষ্টা করে বলে সম্পত্তিতে আবার কাজ করলে আমাদের খুন করে লাশ গুম করে ফেলবে। আমি প্রশাসনের প্রতি সুদৃষ্টি কামনা করছি। আমাদের মাথা গোজার একমাত্র ঘরটি ভেঙ্গে মা, ভাই, বউ ও সন্তানদের নিয়ে খুব কষ্টে খোলা আকাশের নিচে বসবার করে আসছি।

ফম/এমএমএ/

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | ফোকাস মোহনা.কম