পঞ্চম ধাপে চাঁদপুরের ২৭ ইউপি নির্বাচন ৫ জানুয়ারি

পঞ্চম ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। তফসিল অনুযায়ী, আগামী ৫ জানুয়ারি ৭০৭ ইউনিয়ন পরিষদে ভোট হবে।

এর মধ্যে চাঁদপুর জেলায় কচুয়া, ফরিদগঞ্জ ও হাইমচর উপজেলার ২৭ ইউনিয়ন পরিষদে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। এর মধ্যে ফরিদগঞ্জ উপজেলার বালিথুবা (পশ্চিম), বালিথুবা (পুর্ব), সুবিদপুর (পূর্ব), সুবিদপুর (পশ্চিম), গুপ্টি (পূর্ব), গুপ্টি (পশ্চিম), পাইকপাড়া (উত্তর), গোবিন্দপুর (উত্তর), গোবিন্দপুর (দক্ষিণ), রূপসা (উত্তর), রূপসা (দক্ষিণ), চরদুঃখিয়া (পূর্ব), চরদুঃখিয়া (পশ্চিম)।

হাইমচর উপজেলার দু’টি ইউনিয়ন। ইউনিয়নগুলো হচ্ছে-নীলকমল ও আলগী দুর্গাপুর (উত্তর)।

কচুয়া উপজেলার সাচার, পাথৈর, বিতারা, পালাখাল মডেল, সহদেবপুর পশ্চিম, কচুয়া উত্তর, কচুয়া দক্ষিণ, কাদলা, কড়ইয়া, গোহট উত্তর, গোহট দক্ষিণ ও আশ্রাফপুর।

শনিবার (২৭ নভেম্বর) সকালে কমিশনের ৯০তম বৈঠক শেষে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে তফসিল ঘোষণা করেন ইসি সচিব হুমায়ুন কবীর খোন্দকার।

বৈঠক শেষে ইসি সচিব হুমায়ুন কবীর জানান, তফসিল অনুযায়ী, সাধারণ সদস্য ও সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে ৭ ডিসেম্বর মনোনয়নপত্র জমা দেয়ার শেষ দিন। আর মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই হবে ৯ ডিসেম্বর। আপিল ১০ থেকে ১২ ডিসেম্বর, নিষ্পত্তি ১৩ ও ১৪ ডিসেম্বর। মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার ১৫ ডিসেম্বর, প্রতীক বরাদ্দ ১৭ ডিসেম্বর আর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে ৫ জানুয়ারি।

নির্বাচন ভবনের মিডিয়া সেন্টারে অনুষ্ঠিত সংবাদ ব্রিফিংয়ে উপস্থিত ছিলেন ইসির অতিরিক্ত সচিব অশোক কুমার দেবনাথ, এনআইডি ডিজি এ কে এম হুমায়ুন কবীর, যুগ্মসচিব ফরহাদ আহাম্মদ খান ও জনসংযোগ পরিচালক এসএম আসাদুজ্জামান।

এর আগে গত ২১ জুন ও ২০ সেপ্টেম্বর প্রথম ধাপের দুই দফায় ৩৬৯টি এবং ১১ নভেম্বর দ্বিতীয় ধাপে ৮৩৩টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। ২৮ নভেম্বর রোববার তৃতীয় ধাপে এক হাজার এবং চতুর্থ ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনের তারিখ পরিবর্তন হয়েছে। পূর্বঘোষিত তফসিল অনুযায়ী ২৩ ডিসেম্বরের পরিবর্তে ২৬ ডিসেম্বর ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। মামলা জটিলতার কারণে বাকি ইউনিয়নগুলোতে নির্বাচন আটকে রয়েছে।

সর্বশেষ ২০১৬ সালের ১১ ফেব্রুয়ারি প্রথম বারের মতো দলীয় প্রতীকে নবম ইউপি নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হয়। ওই বছরের ২২ মার্চ থেকে ৪ জুন পর্যন্ত ছয় ধাপে চার হাজার ২৭৫টি ইউপি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়।

প্রসঙ্গত, দেশে চার হাজার ৫৭১টি ইউনিয়ন পরিষদ রয়েছে। এর মধ্যে প্রায় চার হাজার ইউপিতে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।
ফম/এমএমএ/

ফোকাস মোহনা.কম