নিজ নিজ অবস্থান থেকে দুর্নীতির বিরুদ্ধে এগিয়ে আসার আহ্বান

চাঁদপুর:  নিজ নিজ অবস্থান থেকে দুর্নীতির বিরুদ্ধে এগিয়ে আসার আহবান জানান চাঁদপুরের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) ইমতিয়াজ হোসেন। আন্তর্জাতিক দুর্নীতিবিরোধী দিবস উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এ আহ্বান জানান।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, জাতিসংঘ ২০০৩ সালে আন্তর্জাতিক দুর্নীতিবিরোধী দিবস ঘোষনা করেছে। টিআই’র এক গবেষণায় দেখা যায়, দক্ষিণ এশিয়ার মধ্যে নিম্ন দিক থেকে দুর্নীতিতে বাংলাদেশের অবস্থান ২য়। দুদকের তথ্য-উপাত্ত অনুযায়ী পূর্বে দুদকের করা মামলাগুলোতে মাত্র ২০% সফলতা আসতো আর এখন তা বেড়ে হয়েছে প্রায় ৮০%। সুতরাং আমরা দেখতে পাই এক্ষেত্রে দুর্নীতি প্রধিরোধে দুদক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে। তিনি আরও বলেন, নৈতিকতা ও মূল্যবোধ যদি আমাদের পরিবার থেকে আমরা শিখতে পারি তাহলে দুর্নীতি প্রতিরোধে আমরা এগিয়ে যেতে পারবো। দুর্নীতিবিরোধী আন্দোলন আমাদের পরিবার থেকে শুরু করতে হবে। সনাক-টিআইবি তথ্যমেলায় যে জননী সংলাপের আয়োজন করেছে তা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। কারণ দুর্নীতিবিরোধী আন্দোলনে পুরুষের পাশাপাশি নারীদের ভূমিকা খুবই গুরুত্ব বহন করে। তিনি বলেন, প্রতিটি সেক্টরে স্বচ্ছতা ও জবাদিহিতা নিশ্চিত করার জন্য টিআইবি’র সহযোগিতায় সরকার ২০০৯ সালে যে তথ্য অধিকার আইন পাশ করে। তথ্য অধিকার আইনের ফলে প্রতিটি সেক্টরে ইতিবাচক পরিবর্তন লক্ষ্য করা গেছে। তিনি আরও বলেন, দুর্নীতি কমিয়ে আনার ক্ষেত্রে তথ্য-প্রযুক্তি খুবই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে। সরকার দুর্নীতি প্রতিরোধের ক্ষেত্রে বিভিন্ন ধরনের প্লাটফর্ম তৈরি করেছে। সবাইকে নিয়ে ঐক্যবদ্ধভাবে জাতীর জনকের সোনার বাংলা গড়ার প্রত্যয়ে দুর্নীতি প্রতিরোধে আমাদের সকলকে এগিয়ে যেতে হবে। এটাই হোক আমাদের বিজয়ের মাসে প্রত্যাশা। তিনি আলোচনা সভায় অংশগ্রহণ করার জন্য সবাইকে ধন্যবাদ জানান।

জেলা প্রশাসন ও দুর্নীতি দমন কমিশন-চাঁদপুরের আয়োজনে এবং সচেতন নাগরিক কমিটি (সনাক), চাঁদপুর- সহযোগিতায় আন্তর্জাতিক দুর্নীতিবিরোধী দিবস উপলক্ষে সকাল ৯:৩০টায় সার্কিট হাউসে জাতীয় পতাকা, দুদকের পতাকা ও বেলুন উত্তোলনের মধ্য দিয়ে দিবসের উদ্বোধন ঘোষণা করেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) ইমতিয়াজ হোসেন। দুর্নীতি দমন কমিশনের উপপরিচালক জালাল উদ্দিন আহাম্মদের সভাপতিত্বে সহকারী পরিচালক আজগর হোসেনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন জেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি ড. কাজী হাসেম।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন ও অর্থ) সুদীপ্ত রায় বলেন, অন্যায়কারী ও অন্যায়কে প্রশ্রয় দানকারী দুজনেই সমান অপরাধী। আমরা প্রত্যেকেই একটা পরিবার, সমাজ ও রাষ্ট্রের অংশ। তাই আমাদের প্রত্যেকেরই উচিত দুর্নীতি প্রতিরোধে সচেতনতা তৈরি করা। তিনি আরও বলেন, আমরা যদি নিজেরা দুর্নীতিমুক্ত হই, দুর্নীতি না করি এবং জনগণকে দুর্নীতির বিরুদ্ধে সচেতন করি তাহলে এদেশে আর কোন দুর্নীতি থাকবে না। উন্নত ও সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়তে হলে এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ভিশনকে বাস্তবায়ন করতে হলে এমনকি জাতীর জনকের স্বপ্নের সোনার বাংলা দেখতে চাইলে আমাদের আগামী প্রজন্মকে দুর্নীতির বিরুদ্ধে সোচ্চার ভূমিকা পালন করতে হবে। এই বিজয়ের মাসে আমাদের প্রত্যেকেরই শপথ নেওয়া উচিত আমরা নিজেরা দুর্নীতি করবো না এবং অন্যকে দুর্নীতি করতে দিবো না।

“দুর্নীতির বিরুদ্ধে বৈশ্বিক ঐক্য” এই প্রতিপাদ্যকে উপজীব্য করে দিবসের উপর মূখ্য আলোচকের বক্তব্য রাখেন চাঁদপুর সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ অসিত বরণ দাশ। তিনি বলেন, দুর্নীতি শুধু বাংলাদেশের সমস্যা তা নয়। এটি একটি বৈশ্বিক সমস্যা। তাই আজকের এই দিনটি খুবই গুরুত্ব বহন করে। বর্তমান সরকার দুর্নীতি প্রতিরোধ করার জন্য প্রাতিষ্ঠানিকভাবে বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। সাধারণ মানুষকে সম্পৃক্ত করে সনাক-টিআইবি চাঁদপুরে দুর্নীতিবিরোধী বিভিন্ন কার্যক্রম পরিচালনা করছে। টিআইবি দুদককেও দুর্নীতির বিরুদ্ধে সামাজিক সচেতনতা তৈরির জন্য সহযোগিতা করে যাচ্ছে। তিনি আরও বলেন, দুর্নীতি একটা মাকড়সার জালের মতো। স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতার দিকগুলো জনগণের সামনে তুলে ধরতে হবে। জবাবদিহিতা সুনিশ্চিত হলে দুর্নীতিবিরোধী আন্দোলন সফল হবে বলে আমি বিশ্বাস করি। মানুষের প্রাপ্য সেবাটুকু সঠিকভাবে দিয়ে দিলেই দুর্নীতি অনেকাংশে কমে যাবে। দুদক তার লক্ষ্যে পৌঁছে যাবে এই প্রত্যাশাই করছি। পাশাপাশি সনাক-টিআইবি যদি আমাদের কলেজে দুর্নীতিবিরোধী সামাজিক আন্দোলন শিক্ষার্থীদের মধ্যে ছড়িয়ে দিতে চায় আমার পক্ষ থেকে সর্বাত্মক সহযোগিতা থাকবে।

শুভেচ্ছা বক্তব্যে সনাক-চাঁদপুরের সভাপতি ডাঃ পীযূষ কান্তি বড়ুয়া বলেন, দুর্নীতির বিরুদ্ধে সামাজিক আন্দোলনকে বেগবান করার লক্ষ্যেই আজ আমরা এখানে একত্রিত হয়েছি। সনাক-টিআইবি, বাংলাদেশ সরকার, দুদক, এমনকি চাঁদপুরের প্রশাসনকে দুর্নীতি প্রতিরোধে বিভিন্নভাবে সহযোগিতা করে যাচ্ছে। তিনি বলেন, আজ একজন মহিয়সী নারীর জন্মদিন। এই মহিয়সী নারী বেগম রোকেয়া সাখাওয়াত হোসেনের জন্মদিনে সনাকের পক্ষ থেকে শ্রদ্ধা জানাচ্ছি। বাংলাদেশ ও এসমাজকে এগিয়ে নিতে হলে পুরুষের পাশাপাশি নারীদেরও এগিয়ে আসতে হবে। তিনি আরও বলেন, জাতীর জনক অর্থনৈতিক মুক্তি ও সাংস্কৃতিক মুক্তির কথা বলেছেন। অর্থনৈতিক মুক্তি ও সাংস্কৃতিক মুক্তি লাভ করতে হলে আমাদেরকে দুর্নীতিমুক্ত বাংলাদেশ বিনির্মান করতে হবে। দুর্নীতিমুক্ত বাংলাদেশ বিনির্মান করতে হলে বর্তমান তরুন প্রজন্মকে এগিয়ে আসতে হবে। সনাক-চাঁদপুরের ইয়েস সদস্যবৃন্দ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে শিক্ষার্থীদের মধ্যে দুর্নীতিমুক্ত বীজ বপন করে যাচ্ছে। তিনি পাঠ্যপুস্তকেও দুর্নীতিবিরোধী বিভিন্ন লেখা দেওয়ার আহ্বান জানান। ইতিমধ্যে টিআইবি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের জন্য “বর্ণমালায় নীতিকথা” নামক একটি বই প্রনয়ণ করেছে। তিনি আন্তর্জাতিক দুর্নীতিবিরোধী দিবস ২০২২ উপলক্ষে দুর্নীতি প্রতিরোধে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণে টিআইবি সংশ্লিষ্ট অংশীজনের বিবেচনার জন্য বেশ কিছু সুপারিশ তুলে ধরেন।

সভাপতির বক্তব্যে দুর্নীতি দমন কমিশন, সমন্বত কার্যালয়, চাঁদপুরের উপপরিচালক জালাল উদ্দিন আহাম্মদ বলেন, সকলের মাঝে দুর্নীতিবিরোধী চেতনা জাগ্রত করার লক্ষ্যেই আমাদের আজকের এই আয়োজন। জাতীয় উন্নয়নে, জনগণের স্বার্থে, এমনকি সরকারের রাজস্ব বৃদ্ধির ক্ষেত্রেও দুদক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে। আমরা কাজ করার জন্য আপনাদের সর্বাত্মক সহযোগিতা কামরা করছি। আপনারা আমাদের তথ্য দিয়ে সহযোগিতা করবেন। তিনি আরও বলেন, এই তরুণ প্রজন্মের মাঝে দুর্নীতিবিরোধী চেতনা জাগ্রত করতে হবে। সারা বাংলাদেশে প্রায় প্রতিটি উচ্চ বিদ্যালয়ে আমরা সততা সংঘ এবং সততা স্টোর চালু করতে পেরেছি। আমরা নিজেরা দুর্নীতিমুক্ত থেকে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাবো এটাই প্রত্যাশা করছি। তিনি মানববন্ধন ও আলোচনা সভায় অংশগ্রহণের জন্য সবাইকে ধন্যবাদ জানান।

এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন, জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তা কর্মচারীবৃন্দ, সাংবাদিকবৃন্দ, সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের নের্তৃবৃন্দ, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক শিক্ষার্থীবৃন্দ, জেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সদস্যবৃন্দ, সনাক সদস্যবৃন্দ, ইয়েস গ্রুপের সদস্যবৃন্দ ও সনাক-চাঁদপুরের অ্যাকটিভ সিটিজের গ্রুপের সদস্যবৃন্দ।

ফম/এমএমএ/

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি | ফোকাস মোহনা.কম