নাথেরপেটুয়া ফাজিল মাদ্রাসার শিক্ষকদের বিদায়ী সংবর্ধনা

মনোহরগঞ্জ (কুমিল্লা): কুমিল্লার মনোহরগঞ্জ উপজেলার নাথেরপেটুয়া ফাজিল ডিগ্রি মাদরাসার উদ্যোগে বুধবার (২০ জুলাই) সকালে মাদ্রাসা প্রাঙ্গনে তিনজন শিক্ষকের বিদায়ী সংবর্ধনা, বার্ষিক পুরস্কার বিতরণী ও অভিভাবক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। সংবর্ধিত শিক্ষকরা-হলেন মাওলানা শামছুল আলম, মাওলানা কলিম উল্লাহ ও মাওলানা আবদুল মান্নান।

মাদরাসার গভর্নিং বডির সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার নাজির আহামেদ চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও মাদরাসার সহকারী অধ্যাপক মাওলানা মোবারক হোসেনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি মাস্টার আবদুল কাইয়ুম চৌধুরী।

প্রধান বক্তার বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ জাকির হোসেন। স্বাগত বক্তব্য রাখেন মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মোঃ হুজ্জাতুল ইসলাম।

বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ আমিরুল ইসলাম, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মোহাম্মদ উল্যাহ, স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আবদুল মান্নান চৌধুরী, সাবেক চেয়ারম্যান মাস্টার মোঃ রুহুল আমিন, শিক্ষানুরাগী ও সমাজসেবক মোঃ ফয়েজ উদ্দিন প্রমুখ।

উপস্থিত ছিলেন নাথেরপেটুয়া কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ আবদুর রশিদ, নাথেরপেটুয়া বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আবদুল আউয়াল, মাদরাসার গভর্নিং বডির সহ-সভাপতি নওশাদ আলী, সদস্য মফিজুর রহমান, মাওলানা রফিকুল ইসলাম, শিক্ষক জাফর ইকবাল কাশেম, মীর হোসেন, আবদুল্লাহ আল-নুর, নাছিমা বেগম, সাবিনা আক্তার, ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহ্বায়ক আবদুল্লাহ আল-মামুন সুমন, ছাত্রলীগ সভাপতি শিব্বির আহমদসহ সকল শিক্ষক-অভিভাবক, শিক্ষার্থী ও বিভিন্ন ব্যক্তিবর্গ।

বক্তারা বিদায়ী তিনজন শিক্ষকের দীর্ঘ কর্মজীবন নিয়ে স্মৃতিচারণ করে তাদের বক্তব্যে বলেন, অত্র নাথেরপেটুয়া মাদরাসার তিনজন গুগী ও শিক্ষার্থী গড়ার আন্তরিক ও যত্মবান শিক্ষক হলেন মাওলানা শামছুল আলম, মাওলানা কলিম উল্লাহ ও মাওলানা আবদুল মান্নান। আজ তাদের বিদায় লগ্নে আমরা মর্মাহত। এই বিদ্যাপীঠ যতদিন থাকবে, তাদের অবদান স্মরণ করবে সকলে। তাদের অভাব অপূরণীয়।

বক্তারা আরো বলেন, আজ শিক্ষার্থীরা বই, কলম ফেলে মোবাইলের পিছে ছুটছে। এমনকি কোন কোন শিক্ষার্থী সঠিক যত্নের অভাবে আদর্শচ্যুত হয়ে পড়ছে। তাই শিক্ষার্থীদের নৈতিক শিক্ষার ব্যাপারে এবং লেখাপড়ায় মনোযোগী করে গড়ে তুলতে শিক্ষক, অভিভাবক ও সংশ্লিষ্টদের লক্ষ্য রাখতে হবে। ওইদিন চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারী দুলাল চন্দ্র মালিকেও বিদায়ী সংবর্ধনা দেওয়া হয়।
অনুষ্ঠানে মাদরাসার বিভিন্ন উন্নয়ন কাজে বিশেষ অবদান রাখার জন্য সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিবর্গকে ক্রেস্ট প্রদান এবং মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয়।
ফম/এমএমএ/

ইকবাল কবির শাওন | ফোকাস মোহনা.কম