দুর্ঘটনা প্রতিরোধে আইনকে নিয়ম হিসেবে মানতে হবে: ইলিয়াছ কাঞ্চন

চাঁদপুরে সড়ক নিরাপত্তা বিষয়ক সমাবেশ

বক্তব্য রাখছেন ‘নিরাপদ সড়ক চাই’ সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারম্যান ইলিয়াছ কাঞ্চন। ছবি: ফোকাস মোহনা.কম।

চাঁদপুর :  ‘নিরাপদ সড়ক চাই’ সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারম্যান ইলিয়াছ কাঞ্চন বলেছেন, সড়ক দুর্ঘটনা প্রতিরোধ করতে হলে নিয়ম মেনে চলতে হবে। দুর্ঘটনা প্রতিরোধে যে আইন আছে, ওই আইন আপনার ওপর চাপিয়ে দেয়া হয়েছে, তা না ভেবে এটাকে নিয়ম হিসেবে মানতে হবে। আর দুর্ঘটনা তখনই কমে আসবে, যখন একজন চালক সঠিকভাবে প্রশিক্ষণ নিয়ে ড্রাইভিং লাইসেন্স গ্রহণ করবে। মাথায় হেলমেট লাগালে দুর্ঘটনা কমবে না বরং দুর্ঘটনার পরে হেলমেট মাথায় থাকায় আপনার জীবন রক্ষা হবে। এক্ষেত্রে আমাদের অবশ্যই ট্রাফিক আইন মেনে চলতে হবে।

শনিবার (১৫ অক্টোবর) দুপুরে চাঁদপুর শহরের পুরাতন বাসস্ট্যান্ড এলাকায় নিরাপদ সড়ক চাই চাঁদপুর জেলা শাখার আয়োজনে যানবাহন শ্রমিক, চালক ও মালিকদের নিয়ে সড়ক নিরাপত্তা বিষয়ক সমাবেশে প্রধান বক্তার বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, একজন চালক হাইওয়েতে যে গতিতে গাড়ি চালাবেন, আঞ্চলিক সড়কে সে গতিতে চালাতে পারবেন না। কারণ আঞ্চলিক সড়কে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, মসজিদ ও বাজার ইত্যাদি রয়েছে। সেখানে গতিসীমা লেখা আছে। এর চাইতে বেশি গতিতে গাড়ী চালাতে পারবেন না। কিন্তু আপনি যখন হাইওয়ের ৬০ কিলোমিটার গতি আঞ্চলিক সড়কে এসে চালিয়ে যান, তখনত আপনি ব্রেক করে দুর্ঘটনা নিয়ন্ত্রন কিংবা একজন লোককে বাঁচাতে পারবেন না। কারণ একজন লোক বাজারে মাথায় একটি বস্তা নিয়ে দ্রুত চলতে পারে না। মাথায় বোঝাসহ মাথা ঘুরিয়ে তাকাতেও সময় লাগে। তাকে সড়ক পার হওয়ার সুযোগ করে দিতে হবে।

ইলিয়াছ কাঞ্চন বলেন, সড়কে চলার নিয়ম আছে। আমরা সে নিয়ম মেনে চলি না। ফুটপাত দিয়ে হেঁটে চলি না। দুর্ঘটনা হলে বলি-আল্লার মাল আল্লাহ নিয়েগেছে। আল্লাহ আমাকে এমনি এমনিতে পৃথিবীতে পাঠাননি। আমাকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে, জ্ঞান, বুদ্ধি, চিন্তা করার ক্ষমতা দিয়েছেন। আল্লাহ আমাদেরকে সম্মানিত করেছেন। তিনি বলেছে-তুমি আমার প্রতিনিধি। মানুষই এই প্রথিবী পরিচালনা করবে। ফেরেশতা এসে করবে না। আপনাকে যে জ্ঞান দিয়েছে, সে জ্ঞান যদি কাজে না লাগান, তাহলে আপনাকে ছেড়ে দেয়া হবে না। আল্লাহর কাছে জবাবদিহি করতে হবে।

নিরাপদ সড়ক চাই চাঁদপুর জেলা শাখার সভাপতি এম.এ.লতিফ এর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন সাবেক সচিব ও লেখক হোসেন আবদুল মান্নান।

তিনি বক্তব্যে বলেন, ইলিয়াছ কাঞ্চন সাধারণ একজন মানুষ নয়, তিনি জাতীয় ব্যাক্তিত্ব। কারণ একটিমাত্র ইস্যু নিয়ে তিনি দীর্ঘ বছর রাস্তায় পড়ে আছেন। কেউ নিজের খেয়ে নিজের পরে নিজ দায়িত্বে এমন কাজ করছেন, তা আমার জানা নেই। আমি দেখেছি, আমাদের দেশে যখন কোন উল্লেখয্যোগ মানুষ সড়ক দুর্ঘটনায় মারা যায়, তখন অনেকেই সরব হয়ে উঠে। পরে আবার থেমে যায়। আমাদের দেশের সক্ষমতা ও সীমাবদ্ধতা সব কিছু চিন্তা করেই কাজ করতে হবে।

স্বাগত বক্তব্য রাখেন নিরাপদ সড়ক চাই সংগঠনের কেন্দ্রীয় নির্বাহী সদস্য সাংবাদিক মোহাম্মদ রোকনুজ্জামান রোকন।

সংগঠনের জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক শেখ মহিউদ্দিন রাসেল এর সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন চাঁদপুরে জেলা প্রশাসক কামরুল হাসান, পুলিশ সুপার মো. মিলন মাহমুদ, চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি নাছির উদ্দিন আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা আবু নঈম পাটওয়ারী দুলাল ও চাঁদপুর পৌরসভার মেয়র মো. জিল্লুর রহমান।

ফম/এমএমএ/

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | ফোকাস মোহনা.কম