দুই ইউনিয়নের একমাত্র কাঠের ব্রিজটির ভগ্নদশা

চাঁদপুর: চাঁদপুর সদর উপজেলার ইব্রাহীমপুর ইউনিয়নের দক্ষিণে সাখুয়া গ্রাম ও লক্ষ্মীপুর মডেল ইউনিয়নের সীমান্তে পশ্চিম রামদাসদী মেঘনা নদীর পূর্ব পাড়ে দুই ইউনিয়নের জন্য তৈরী করা একমাত্র কাঠের ব্রিজটির ভগ্নদশা। বহুবছর পূর্বে এই কাঠের ব্রিজটি তৈরী করে দেন ইব্রাহীমপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান। কিন্তু এটির সংস্কার না করায় এখন ভগ্নদশায় পরিণত হয়েছে। খুবই ঝুঁকিনিয়ে পার হতে হয় ব্রিজটি।

গত বুধবার (২০ নভেম্বর) সকাল ১১টার দিকে ওই গ্রামে গিয়ে দেখা যায় মেঘনা নদী সংযুক্ত খালের উপর ওই কাঠের ব্রিজটি। স্থানীয় শত শত বাসিন্দা, স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসাগামী শিক্ষার্থী এই কাঠের ব্রিজটি দিয়ে পারপার হন। কাঠের এই ব্রিজটির কাঠ পচে নষ্ট হয়ে যাওয়ার কারণে ভেঙে খালে পড়েছে। স্থানীয় বাসিন্দারা চাঁদা তুলে কয়েকবার মেরামত করলেও এখন আর কেউই মেরামত করছেন না।

সাখুয়া গ্রামের বাসিন্দা ইসমাইল ভুঁইয়া ও পশ্চিম রামদাসদী গ্রামের বাসিন্দা অনিল সূত্রধর বলেন, আমাদের দুই গ্রামের মানুষই এই কাঠের ব্রিজটি দিয়ে চলাচল করেন। দুই গ্রামের মানুষের চলাচলের প্রধান সড়কও এটি। পশ্চিম রামদাসদী গ্রামের খালের উপর পাকা ব্রিজ থাকলেও দুই ইউনিয়নের সীমান্তের কাঠের ব্রিজট পাকা করা হয়নি। আমরা স্থানীয় ভাবে উদ্যোগ নিয়ে কয়েকবার কাঠ কিনে সংস্কার করেছি। এখন আবারও ব্রিজটির কাঠ ভেঙে বেহাল দশায় পরিণত হয়েছে। দুই ইউনিয়নের জনপ্রতিনিধরা যদি ইচ্ছা করেন তাহলে দ্রুত সময় এটি সংস্কার করা সম্ভব।
ফম/এমএমএ/

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | ফোকাস মোহনা.কম