দারিদ্র বিমোচনে শেখ হাসিনার কৌশল অনেক দেশ অনুকরণ করে : সেলিম মাহমুদ

চাঁদপুর: বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক ড. সেলিম মাহমুদ বলেছেন, বাংলাদেশে দারিদ্র বিমোচনে শেখ হাসিনার যে কৌশল তা আজকে যুক্তরাষ্ট্রসহ অনেক উন্নত দেশে অনুকরণ করছে। গত ১৫ বছর তিনি অসংখ্য অনুকরণীয় কাজ করেছেন। কোন ষড়যন্ত্রকই তিনি আজ পর্যন্ত সফল হতে দেননি। আমাদের সাথে অনেক বিদেশী বন্ধ রয়েছেন। আমাদের সাথে আমাদের প্রতিবেশী বন্ধু রাষ্ট্র ভারত রয়েছেন। বঙ্গবন্ধু কন্যার সাথে রয়েছে এদেশের কোটি কোটি জনগণ। যারা গণতন্ত্র ও সাংবিধানিক শাসন নস্যাত করতে চায়, তার বোকার সাগরে বাস করছে। তাদের কোন ষড়যন্ত্র সফল হবে না, সফল হতে পারে না।

শুক্রবার (২০ অক্টোবর) বিকেলে চাঁদপুরের কচুয়া উপজেলার পাথৈর ইউনিয়নের মধুপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে ‘রুখো ষড়যন্ত্র ও মিথ্যাচার’ প্রচার করো শেখ হাসিনার উন্নয়ন-এই প্রতিপাদ্যে আয়োজিত সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, আজকের যারা স্বপ্ন দেখছেন হুটহাট করে আমাদের বাদ দিয়ে ক্ষমতায় আসবে, সেই দিন শেষ। শেখ হাসিনা সরকার অত্যন্ত শক্তিশালী সরকার। শুধু বাংলাদেশেই নয়, পশ্চিমা বিশে^ এবং আরো বিদেশী প্রতিনিধিদের সাথে আমাদের কথাবার্তা হয়, তাদের মুখ থেকে শুনি আমাদের নেত্রী সম্পর্কে প্রশংসা। মার্কিন দুটি রাজনৈতিক দলনেতা আমাদের নেত্রী সম্পর্কে ভুয়শি প্রশংসা করেছেন।

সেলিম মাহমুদ বলেন, আওয়ামী লীগের এই ১৫ বছর সময়ে নির্বাচন অবাধ, নিরপেক্ষ ও সুষ্ঠুভাবে পরিচালনার জন্য ৮২টি আইন সংস্কার করা হয়েছে। আজকে কিছু কুলাঙ্গার এদেশের মানুষের সমর্থন নেয়ার জন্য ভুল বুঝিয়ে রাস্তায় নামানোর চেষ্টা করছেন। কিন্তু এদেশের মানুষ বোকা নয়। তারা তাদেরকে বিশ^াস করবে না। এদেশের মানুষ আমাদের সঙ্গে আছে। তবে যারা দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করবে, সন্ত্রাস, নৈরাজ্য ও অস্থিরতার সৃষ্টি করবে শেখ হাসিনা সরকার কাউকে ছেড়ে দিবে না। তাদের প্রত্যেককে আইনের আওতায় আনা হবে। তাদের বিচার করা হবে।

আওামী লীগের এই নেতা বলেন, যারা বিগত কয়েকবছর ধরে গণতন্ত্র আর মানবাধিকার নিয়ে মায়া কান্না করে যাচ্ছেন, আমি তাদের নাম বলছি না, আপনারা বুঝতে পারছেন। যারা গণতন্ত্র ও মানিবাধিকারের সবক দিয়ে যাচ্ছেন ঢাকার বিভিন্ন সভা ও সেমিনারে এবং মানবাধিকারের ব্যবসা করছেন, তাদেরকে বলব ফিলিস্তিনে আজকে যে গণহত্যা চলছে, মানবাধিকার লঙ্ঘন হচ্ছে, মানবতার বিরুদেধ অপরাধ হচ্ছে এই বিষয়ে আপনাদের বক্তব্য কি? এই বিষয়েত আপনাদের কোন কথা শুনা যায় না। বিএনপি-জামায়াত মানবাধিকার ব্যবসায়ী।

ইউপি চেয়ারম্যান আলী আক্কাস মোল্লার সভাপতিত্বে ও চাঁদপুর জেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের উপ- প্রচার সম্পাদক কামাল পারভেজ মিয়াজীর সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন-জেলা আওয়ামী লীগ সহ-সভাপতি আইয়ুব আলী পাটওয়ারী, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক ইঞ্জি. একেএম আব্দুল মোতালেব ও উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান মাহবুব আলম।

আরো বক্তব্য দেন-ইউপি চেয়ারম্যান মনির হোসেন, ইসহাক সিকদার, হাবিবুর রহমান, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান জুয়েল, আওয়ামী লীগ নেতা জিএম আতিকুর রহমান ও মো. শাহজাহানসহ আরো অনেকে।

স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা ওমর ফারুক শামীম, উপজেলা ছাত্রলীগের আহ্বায়ক সালাউদ্দিন সরকার, যুগ্ম আহ্বায়ক শুভজিৎ দাস, ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি সাইফ চৌধুরী কাইয়ুম, সাধারণ সম্পাদক সজীব মোল্লাসহ দলীয় নেতাকর্মীরা সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন।

ফম/এমএমএ/

শাহরিয়া পলাশ | ফোকাস মোহনা.কম