ত্রিপুরা রাজ্যের খোয়াই জেলা জজ শংকরী দাস কুমিল্লায় আগমন

কুমিল্লা:  ২৬ জুলাই মঙ্গলবার সকাল সোয়া ৯টায় কুমিল্লা জেলা ও দায়রা জজ মোঃ আতাবুল্লাহ এর সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন উত্তর-পূর্ব ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যের খোয়াই জেলার বিজ্ঞ জেলা জজ শংকরী দাস সহ পাঁচ সদস্যের একটি প্রতিনিধিদল।
ওই সময় কুমিল্লা জেলা ও দায়রা জজ মোঃ আতাবুল্লাহ এর আতিথিয়তায় মুগ্ধ ত্রিপুরা রাজ্যের জেলা জজ শংকরী দাস। এ সময় উপস্থিত ছিলেন- কুমিল্লা চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট সোহেল রানা, জার্জ ইনচার্জ সমরেশ শীল, জেলা জজ শংকরী দাস এর গর্ভধারীনি মাতা গীতা সরকার, কুমিল্লার যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ ৪র্থ আদালতের এপিপি এডভোকেট স্বর্ণকমল নন্দী পলাশ ও এডভোকেট তাপস চন্দ্র সরকার।
এদিকে, একইদিন সাড়ে ১১টায় কুমিল্লা জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি এডভোকেট মোঃ আহছান উল্লাহ খন্দকার ও সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট আবু তাহের এর সাথে সৌজন্য সাক্ষাত করেন উত্তর-পূর্ব ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যের খোয়াই জেলার বিজ্ঞ জেলা জজ শংকরী দাস। এ সময় তাঁকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানানো হয়। এরপর স্বপ্নের পদ্মা সেতু দেখতে যান মাওয়া।
অপরদিকে, উত্তর-পূর্ব ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যের প্রথম মহিলা জেলা জজ শংকরী দাস ও তাঁর গর্ভধারীনি মাতা গীতা রাণী দাসকে ২৫ জুলাই সোমবার দিবাগত রাত ৯টায় কুমিল্লা সার্কিট হাউজে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান- বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ কুমিল্লা জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক ট্রাস্টি নির্মল পাল, কুমিল্লার বিজ্ঞ যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ ৪র্থ আদালতের এপিপি এডভোকেট স্বর্ণকমল নন্দী পলাশ, এডভোকেট মানিক চন্দ্র ভৌমিক, এডভোকেট সুলতান আহমেদ, এডভোকেট সঞ্জীবন পাল, এডভোকেট তাপস চন্দ্র সরকার, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী নারায়ণ সরকার, এডভোকেট প্রেমানন্দ গোস্বামী ও এডভোকেট মোঃ রিয়াদ ওবায়েদ উল্লাহসহ বিভিন্ন সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। এ সময় তাঁর সফরসঙ্গী ছিলেন-খোয়াই জেলা জজ (Khowai District Judge) আদালতের এপিপি ইনচার্জ ও স্পেশাল পিপি অভিজিৎ ভট্টাচার্য্য, চন্দন নাহা ও সপ্তদীপ সাহা।
অন্যদিকে, গত শনিবার কুমিল্লা আদর্শ সদর উপজেলাধীন ৬নং জগন্নাথপুর ইউনিয়নস্থিত রাজ মঙ্গলপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে তাঁর বাবার স্মৃতি বিজড়িত স্থানটি পরিদর্শন করেন খোয়াই জেলা জজ শংকরী দাস ও তাঁর গর্ভধারীনি মাতা গীতা রাণী দাশসহ প্রতিনিধিদল। এরপর কুমিল্লা সদর দক্ষিণ উপজেলাধীন খেয়াইশ গ্রামের নিবাসী মৃত সুবাস চন্দ্র দাশ এর স্ত্রী গীতা সরকারকে সদর দক্ষিণ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার উপস্থিতিতে প্রথম বধূ বরণ করা হয় এবং ২৪ জুলাই গীতা সরকার এর জন্মস্থান ও পৈত্রিক ভিটেবাড়ী ব্রাহ্মণবাড়ীয়া জেলার সরাইল উপজেলাধীন চুনটা গ্রাম পরিদর্শন করেন ত্রিপুরা রাজ্যের খোয়াই জেলা জজ শংকরী দাস ও তাঁর গর্ভধারীনি মাতা গীতা রাণী দাস।
ফম/এমএমএ/

সংবাদদাতা | ফোকাস মোহনা.কম