জমে উঠেছে চাঁদপুরে কোরবানি পশুর হাট

সোমবার সফরমালী গরুর হাটের দৃশ্য। ছবি: ফোকাস মোহনা.কম

চাঁদপুর :  আর মাত্র কয়েকদিন পরেই মুসলিম সম্প্রদায়ের অন্যতম বৃহৎ ধর্মীয় উৎসব পবিত্র ঈদুল আযহা। ধর্মীয় ঐতিহ্য ও ভাব-গাম্ভীর্যের মধ্যদিয়ে ঈদুল আযহা উপলক্ষে পশু কোরবানি করবেন মুসলিম সম্প্রদায়ের ধর্মপ্রান মানুষ। আর এই কুরবানি ঈদকে সামনে রেখে চাঁদপুরের সফরমালী কোরবানির পশুর হাট জমে উঠেছে।

সোমবার (৪ জুলাই) সকাল থেকে নদী পথে টলারযোগে ও সড়কপথে বিভিন্ন প্রান্ত থেকে গরু আসতে শুরু করে। দুপুরের পরই কোরবানির পশু দিয়ে কানায় কানায় পূর্ণ হয়ে যায় হাট।

হাটে বড়, মাঝারি ও ছোট সাইজের প্রচুর গরু উঠলেও দাম চড়া থাকায় অনেক ক্রেতা ফিরে এসেছেন। তবে দাম গত বছরের চাইতে একটু বেশী বলে জানিয়েছেন বেশ কয়েকজন ক্রেতা।

খোঁজ নিয়ে জানাগেছে, এবছর চাঁদপুর জেলায় ৭০ হাজারের বেশী পশু কোরবানির জন্য চাহিদা রয়েছে। পুরো চাহিদাই মেটানো সম্ভব স্থানীয়ভাবে প্রস্তুত থাকা পশু দিয়ে। জেলার ৮ উপজেলায় প্রায় দুই শতাধিক হাট বসবে কোরবানি উপলক্ষে। যারা কোরবানি দিবেন তারা নিজেদের কাছাকাছি বাজার থেকেই পশু ক্রয় করার জন্য অপেক্ষায় থাকেন।

এদিকে, ঈদ যত নিকটে আসছে, ততই গরু বিক্রির বাড়ছে। তবে শহর অঞ্চলের লোকজন একটু দেরিতেই কোরবানির পশু ক্রয় করেন। ঈদের এক থেকে দু’দিন আগেই প্রচুর পরিমানে কোরবানির পশু বিক্রি হয়। জেলা ও উপজেলা প্রশাসন সূত্রে জানাগেছে, কোরবানির পশুর হাটে আইন শৃঙ্খলা বাহিনী নিরাপত্তা জোরদার রেখেছেন। কোন ধরণের দুর্ঘটনা যেন না ঘটে সে জন্য ইজারাদার ও তাদের লোকজনও সতর্ক।

জেলা সদরের সবচাইতে নিকটে বাগাদী চৌরাস্তা কোরবানির পশুর হাট ইতোমধ্যে শুরু হয়েছে। এটি শহরবাসীর কাছে খুবই জনপ্রিয় পশুর হাট হিসেবে এখন বিবেচিত।
ফম/এমএমএ/

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | ফোকাস মোহনা.কম