চাল চুরি: দুই মেম্বারকে গণপিটুনি, দৌড়ে পালালেন চেয়ারম্যান

ছবি: সংগ্রহীত।

টাঙ্গাইলের ঘাটাইলে ভিজিএফের চাল চুরির অভিযোগে দুই ইউপি সদস্যকে গণপিটুনি দেওয়া হয়েছে।

শুক্রবার (৮ জুলাই) বিকেলে উপজেলার দেওপাড়া ইউনিয়নে এ ঘটনা ঘটে।

গণপিটুনির শিকার ওই দুই ইউপি সদস্য হলেন মো. রেজাউল করিম ও আব্দুস ছালাম।

স্থানীয়রা জানান, সকাল থেকে দেওপাড়া ইউনিয়ন পরিষদ ভবন থেকে ঈদ উপলক্ষে হতদরিদ্রদের মধ্যে ভিজিএফের চাল বিতরণ চলছিল। কিন্তু ৭, ৮ ও ৯ নং ওয়ার্ডের চাল বিতরণ শেষ না করেই বিকেলে ১২৫ বস্তা চাল অটোরিক্সায় তুলে বিক্রি করতে যান ইউপি সদস্য রেজাউল করিম ও আব্দুস ছালাম। এ সময় বিক্ষুব্ধ জনতা রাস্তা আটকে দিয়ে চালসহ দুই ইউপি সদস্যকে ঘেরাও করে রাখে। পরে উত্তেজিত জনতা তাদের দুজনকে গণপিটুনি দেয়। এ সময় স্থানীয় জনগণের তোপের মুখে ইউপি চেয়ারম্যান রুহুল আমিন হেপলু দৌড়ে পালিয়ে যান। পরে ঘাটাইল থানার পুলিশ ও স্থানীয় প্রশাসনের লোকজন গিয়ে চালসহ জনতার হাতে আটক দুই ইউপি সদস্যকে উদ্ধার করে।

ইউপি সদস্য আব্দুস ছালাম বলেন, চাল চুরির কোনো ঘটনা ঘটেনি। ইউপি চেয়ারম্যান রুহুল আমিন হেপলুর নির্দেশে তারা চালের বস্তাগুলো সরিয়ে নিয়ে দেলুটিয়া থেকে বিতরণ করতে চেয়েছিলেন।

ইউপি চেয়ারম্যান রুহুল আমিন হেপলু বলেন, চাল চুরির ঘটনা সঠিক নয়। বিতরণের সুবিধার জন্য চালগুলো দেলুটিয়া গ্রামে নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল। একটি পক্ষ ভুল বুঝিয়ে জনতাকে উত্তেজিত করে অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ঘটিয়েছে।

উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা এনামুল হক বলেন, চালগুলো উদ্ধার করে ইউনিয়ন পরিষদ ভবনে সিলগালা করে রাখা হয়েছে। (সৌজন্যে: বাংলানিউজ২৪.কম)

ফম/এমএমএ/

ফোকাস মোহনা.কম