চার শতাধিক নেতার বহর নিয়ে বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে শ্রদ্ধা জানালেন শিক্ষামন্ত্রী

চাঁদপুর সদর ও হাইমচরের

ছবি: একে আজাদ।

চাঁদপুর: চাঁদপুর সদর, চাঁদপুর পৌরসভা ও হাইমচর উপজেলার চার শতাধিক নেতাকে সাথে নিয়ে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিতে ফুলেল শ্রদ্ধা জানিয়েছেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও চাঁদপুর-৩ আসনের সংসদ সদস্য শিক্ষামন্ত্রী ডাঃ দীপু মনি।

চার শতাধিক নেতার এই বিশাল বহরে বিভিন্ন পর্যায়ের জনপ্রতিনিধিও ছিলেন।

পর্যায়ক্রমে একেক সংগঠনের পক্ষ থেকে বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে ফুল দেয়া হয়। ২৩ আগস্ট মঙ্গলবার গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় জাতির জনকের সমাধিতে চাঁদপুরের এই বিপুল সংখ্যক নেতা ও জনপ্রতিনিধি শিক্ষামন্ত্রীকে নিয়ে ফুলেল শ্রদ্ধা জানান। একই সাথে স্বপ্নের পদ্মা সেতুও তাঁরা স্বচক্ষে দেখেন। পুরো এই আয়োজনের ব্যবস্থাপনায় ছিলেন চাঁদপুর পৌরসভার মেয়র জিল্লুর রহমান জুয়েল।

আগস্ট মাস শোকের মাস। এই শোকের মাসে চাঁদপুর সদর উপজেলা, চাঁদপুর পৌরসভা ও হাইমচর উপজেলার বিভিন্ন পর্যায়ের চার শতাধিক নেতা এবং জনপ্রতিনিধি টুঙ্গিপাড়ায় গিয়ে বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে শ্রদ্ধা জানান ও ফাতেহা পাঠ করেন।

মঙ্গলবার (২৩ আগস্ট) সকাল ৭টায় চাঁদপুর শহরের কদমতলা এলাকাস্থ শিক্ষামন্ত্রীর বাসার সামনে থেকে চল্লিশটি গাড়ির বহর নিয়ে গোপালগঞ্জের উদ্দেশ্যে রওনা হন নেতৃবৃন্দ। পদ্মা সেতু হয়ে দুপুরে গোপালগঞ্জ পৌঁছে গাড়ির বহর।

টুঙ্গিপাড়ায় আগে থেকেই অবস্থান করেন শিক্ষামন্ত্রী ডাঃ দীপু মনি। এরপর শিক্ষামন্ত্রীকে সাথে নিয়ে বিশের অধিক সংগঠনের পক্ষ থেকে বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে ফুল দেয়া হয়।

ফুলেল শ্রদ্ধা জানানো শেষে ফাতেহা পাঠ ও দোয়া করা হয়। যেসব সংগঠনের পক্ষ থেকে ফুল দেয়া হয়, সেগুলো হলো- চাঁদপুর সদর ও হাইমচর উপজেলার সকল ইউনিয়ন এবং চাঁদপুর পৌরসভার সকল ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ, মহিলা আওয়ামী লীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, যুব মহিলা লীগ ও শ্রমিক লীগ।

একই সাথে ছিলেন চাঁদপুর পৌরসভার মেয়র জিল্লুর রহমান জুয়েলের নেতৃত্বে পৌরসভার সকল কাউন্সিলর, হাইমচর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নূর হোসেন পাটওয়ারীর নেতৃত্বে উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান ও সকল ইউপি চেয়ারম্যান, ফরিদগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাডঃ জাহিদুল ইসলাম রোমান, ভাইস চেয়ারম্যান জিএস তছলিম এবং সদর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আইয়ুব আলী বেপারী ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আবিদা সুলতানার নেতৃত্বে সদর উপজেলার সকল ইউপি চেয়ারম্যান।

আর উল্লেখযোগ্য নেতৃবৃন্দের মধ্যে ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি মোঃ ইউসুফ গাজী, সহ-সভাপতি ডাঃ জেআর ওয়াদুদ টিপু, সাংগঠনিক সম্পাদক তাফাজ্জল হোসেন এসডু পাটওয়ারী, অ্যাডঃ মজিবুর রহমান ভূঁইয়া, যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক মাসুদ আলম মিল্টন, কৃষি বিষয়ক সম্পাদক অজয় কুমার ভৌমিক, উপ-দপ্তর সম্পাদক অ্যাডঃ রনজিত রায় চৌধুরী ও সহ-প্রচার সম্পাদক হাসান ইমাম বাদশার নেতৃত্বে জেলা আওয়ামী লীগের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আলী আরশাদ মিয়াজী ও যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আঃ আজিজ খান বাদলের নেতৃত্বে সদর উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ, চাঁদপুর পৌর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি নূরুল ইসলাম নূরু, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আমিনুর রহমান বাবুল, দপ্তর সম্পাদক এমরান হোসেন সেলিম ও অ্যাডঃ সাইফুদ্দিন বাবুর নেতৃত্বে পৌর আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ, বাংলাদেশ আওযামী যুবলীগের কেন্দ্রীয় সদস্য অ্যাডঃ জাফর ইকবাল মুন্না এবং চাঁদপুর জেলা যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক মাহফুজুর রহমান টুটুল, মোহাম্মদ আলী মাঝি, সদস্য নজরুল ইসলাম বাদল, আবদুল গনি গাজী ও জাহাঙ্গীর হোসেন বেপারীর নেতৃত্বে জেলা যুবলীগ নেতৃবৃন্দ, সদর উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক অ্যাডঃ হুমায়ুন কবির সুমন, যুগ্ম আহ্বায়ক শিমুল হাসান সামনু ও তাজুল ইসলাম মিয়াজীর নেতৃত্বে সদর উপজেলা যুবলীগ নেতৃবৃন্দ, পৌর যুবলীগের আহ্বায়ক কাউন্সিলর শেখ আব্দুল মালেক, যুগ্ম আহ্বায়ক কাউন্সিলর শফিকুল ইসলাম ও ইকবাল হোসেন বাবু পাটওয়ারীর নেতৃত্বে পৌর যুবলীগ নেতৃবৃন্দ, জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অধ্যাপিকা মাসুদা নূর খান, আয়েশা রহমান লিলি, শিপ্রা দাস ও খালেদা খানমের নেতৃত্বে মহিলা আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ, যুব মহিলা লীগের সভাপতি কাউন্সিলর ফরিদা ইলিয়াস ও ফারহানা জাফর রুমা পাটওয়ারীর নেতৃত্বে যুব মহিলা লীগ, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মোঃ জহির উদ্দিন মিজি ও সাধারণ সম্পাদক মোঃ সাদ্দাম হোসেনের নেতৃত্বে ছাত্রলীগ নেতৃবৃন্দ এবং জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি শেখ আব্দুল মোতালেব, সদর উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি এবিএম রেজওয়ান, পৌর ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মোঃ সোহেল রানা ও সাধারণ সম্পাদক জহিরুল ইসলাম রবিন পাটওয়ারীর নেতৃত্বে ছাত্রলীগের সাবেক নেতৃবৃন্দসহ চার শতাধিক বিভিন্ন পর্যায়ের নেতা এই কর্মসূচিতে অংশ নেন।

নেতৃবৃন্দ বঙ্গবন্ধুর মাজার জিয়ারত ছাড়াও বঙ্গবন্ধু জাদুঘর এবং ঐতিহাসিক স্থান ঘুরে দেখেন। মঙ্গলবার রাতে নেতৃবৃন্দ চাঁদপুর এসে পৌঁছেন।

ফম/এমএমএ/

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | ফোকাস মোহনা.কম