চাঁদপুর মুক্তিযুদ্ধের বিজয় মেলার সমাপনীতে দেয়া হবে ১২০ পুরস্কার

চাঁদপুর: চাঁদপুরে মহান মুক্তিযুদ্ধের বিজয় মেলার সমাপনী দিনে ব্যাক্তি ও সংগঠন মিলিয়ে ১২০টি পুরস্কার প্রদান করা হবে।

মাসব্যাপী এই বিজয় মেলায় অংশগ্রহনকারী ব্যাক্তি ও সংগঠন আগামী ১০ জানুয়ারি সমাপনী দিনে এই পুরস্কার গ্রহণ করবে।

মেলার আয়োজক কমিটির দেয়া তথ্যে জানাগেছে, সাহিত্য সংস্কৃতি প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহনকারী ৫০টি, প্রদর্শনী গ্যালারীর মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক চিত্র প্রদর্শন এর জন্য ২০টি এবং অংশগ্রহনকারী সাংস্কৃতিক সংগঠনকে ৫০টি পুরস্কার (সম্মাননা স্মারক) দেয়া হবে।

গত ৫ ডিসেম্বর মেলার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন চাঁদপুর-৩ (সদর-হাইমচর) আসনের সংসদ সদস্য, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও শিক্ষামন্ত্রী ডাঃ দীপু মনি।

১০ জানুয়ারি স্বাধীন বাংলার স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস। এই দিবসটি যথাযোগ্য মর্যাদায় পালনসহ মেলার সমাপনি দিন নির্ধারণ করেছে মেলার আয়োজক কমিটি।

১৯৭১ সালের ১৬ ডিসেম্বর বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ার পর ১৯৭২ সালের এই দিনে তিনি পাকিস্তানের বন্দিত্ব থেকে মুক্তি পেয়ে যুদ্ধবিধ্বস্ত স্বাধীন-সার্বভৌম বাংলাদেশের মাটিতে পা রেখেছিলেন। বঙ্গবন্ধুর প্রত্যাবর্তনের মধ্য দিয়ে স্বাধীনতাযুদ্ধে বিজয় পূর্ণতা পায়। ১০ জানুয়ারি তিনি ঢাকায় পৌঁছানোর পর আনন্দে উদ্বেল লাখ লাখ মানুষ বিমানবন্দর থেকে রেসকোর্স ময়দান (বর্তমানে সোহরাওয়ার্দী উদ্যান) পর্যন্ত তাঁকে স্বতঃস্ফূর্ত সংবর্ধনা জানায়। বিকেল পাঁচটায় রেসকোর্স ময়দানে প্রায় ১০ লাখ লোকের উপস্থিতিতে তিনি ভাষণ দেন।
ফম/এমএমএ/

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | ফোকাস মোহনা.কম